বগুড়ার ক্যাম্প উপভোগ করছেন ইমরুল কায়েস

imrul
Vinkmag ad

ক্রিকেটারদের মানোন্নয়ন করতে বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে চলছে বাংলাদেশ টাইগার্সের অনুশীলন ক্যাম্প। জাতীয় দলের জন্য পরিপূর্ণ একজন খেলোয়াড় গড়ে তুলতে বিসিবির এই প্রোগ্রাম কাজে আসবে দারুণভাবে। ইমরুল কায়েস জানালেন কেমন চলছে ক‍্যাম্প। সঙ্গে করলেন উইকেটের প্রশংসা।

অভিজ্ঞ বাঁহাতি ওপেনার ইমরুল কায়েস সেই ২০১৯ সালের পর থেকে জাতীয় দলে ডাক পাননি। দীর্ঘসময় ধরে উপেক্ষিত ইমরুল জানেন না কেনই বা তাঁকে জাতীয় দলের জন্য বিবেচনায় রাখেন না নির্বাচক। তবে ইমরুলদের মতো বাদ পড়ে যাওয়া ক্রিকেটারদের ফেরাতে বিসিবি দিয়েছে দারুণ এক সুযোগ। অভিজ্ঞ কোচিং প্যানেল দিয়ে চলছে ট্রেনিং, ক্রিকেটের আদর্শ উইকেটে ইমরুলরা করছেন ব্যাটিং অনুশীলন।

বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে গতকাল মঙ্গলবার (১ মার্চ) অনুশীলনের ফাঁকে ইমরুল কায়েস কথা বলেছেন গণমাধ্যমের সামনে। বাংলাদেশ টাইগার্সের প্রথম ক‍্যাম্পের অনুশীলন উপভোগ করছেন তিনি, শিখছেন অনেক কিছুই। সুযোগ বুঝে প্রয়োগ করতে চান নিজের সামর্থ্য আর অভিজ্ঞতা।

আমরা সারাদিনই তো মাঠে থাকি। এখান থেকে ফিরি বিকাল ৫টার দিকে। হোটেলে গিয়ে পরে ক্রিকেট নিয়েই আলোচনা হয়। সব মিলিয়ে ভালোভাবেই উপভোগ করছি সময়টা।’

বাংলাদেশ টাইগার্সের প্রধান কোচের ভূমিকায় মিজানুর রহমান বাবুল। অভিজ্ঞ এই কোচের অধীনে থেকে অনেক কিছুই রপ্ত করছেন ইমরুলরা,

‘মিজানুর রহমান বাবুল স‍্যার আমাদের যেভাবে নির্দেশনা দিয়েছেন সবাই সেভাবেই অনুশীলন করছে। আমি মনে করি, এখানে প্রত‍্যেকটা সেশনে আমাদের খুব উপকার হচ্ছে।’

বগুড়ার উইকেট আর সুযোগ সুবিধা খুবই ভালো। অনেকটা বাইরের দেশের মতো উইকেট; আছে ভালো পেস ও বাউন্স। তাই বোলার, ব্যাটাররা মজা পাচ্ছে; নিজেদের সুযোগগুলো কাজে লাগাচ্ছে। এবার ইমরুল কায়েসও প্রশংসায় মাতেন বগুড়ার উইকেটের,

‘এখানকার উইকেট খুবই ভালো। আগেও এখানে অনেক ম‍্যাচ খেলেছিলাম। স্পোর্টিং উইকেট, বোলার, ব‍্যাটসম‍্যান সবার জন‍্যই সুবিধা আছে। এখানে সকালে উইকেটে বেশ আর্দ্রতা থাকে। যেটা ব‍্যাটসম‍্যানের জন‍্য খুব চ‍্যালেঞ্জিং হয়। আবার ব‍্যাটসম‍্যানরা থিতু হয়ে গেলে এখানে খুব সচ্ছন্দে রান করতে পারে।’

‘সকালে এখানে বোলারদের বলের মুখোমুখি হলে অনেক চ‍্যালেঞ্জ থাকে। সব দিক থেকে বিবেচনা করে বলব যে, এখানে খুব সিরিয়াস অনুশীলন হচ্ছে। (দেশের মাটিতে আমরা) বেশিরভাগ সময় আমরা মন্থর উইকেটে ব‍্যাটিং করে থাকি। তো এই ধরনের উইকেট থাকলে অবশ‍্যই ব‍্যাটসম‍্যানদের স্কিলের উন্নতি হবে। প্রত‍্যেকটা ব‍্যাটসম‍্যান সুযোগ কাজে লাগাচ্ছে। সবাই এটা উপভোগ করছে এবং প্রতিটি ফ‍্যাসিলিটিজ কাজে লাগাচ্ছে।’

ইমরুল কায়েসসহ অনেক তারকা ক্রিকেটারেরই বাংলাদেশ জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠে নামার সুযোগ হচ্ছে। তাঁদের অবহেলা না করে এবার বিসিবি খুঁজে দিয়েছে উন্নতির পথ। ব্যাটিং সেশন, ফিল্ডিং সেশন, ফিটনেস সেশন চালিয়ে নিজেদের আরও ঝালিয়ে নিচ্ছে দেশের ক্রিকেটাররা। ইমরুলের বক্তব্য,

‘জাতীয় দলের বাইরে যারা আছে, তাদের যদি সময়, সুযোগ থাকে তাদের নিয়ে লম্বা সময় ক‍্যাম্প করা উচিত। এতে, খেলোয়াড়েরা সব সময়ই তৈরি থাকবে। সেটা বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন‍্য ভালো হবে।’

‘এখানে ফিল্ডিং সেশন হচ্ছে, আমাদের ফিটনেস সেশন হচ্ছে। সব মিলিয়ে আমাদের জন‍্য কার্যকর সেশন হচ্ছে এখানে। অনেক দিন ধরেই ফিটনেস নিয়ে এভাবে কাজ করা হয়নি, সে জন‍্য আমি বলব, এটাও একটা ভালো অ‍্যাডভান্টেজ হচ্ছে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

একই ঘটনা একাধিকবার, এবারও পাপন বলছেন তিনি জানতেন না

Read Next

জাতীয় দলকে কোচিং করানোর স্বপ্ন দেখছেন আফতাব আহমেদ

Total
26
Share