সুপার লিগের যে স্বপ্নে তামিমের হৃদয় ভেঙেছে আফগানদের বিপক্ষে হার

সুপার লিগের যে স্বপ্নে তামিমের হৃদয় ভেঙেছে আফগানদের বিপক্ষে হার
Vinkmag ad

আফগানিস্তানের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডেতে হারের পর বেশ হতাশা ঝরছে বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবালের কণ্ঠে। আগের দুই ম্যাচ জিতে সিরিজ নিশ্চিতের পরও তামিম খুব করে এই ম্যাচটাই জিততে চেয়েছেন। মূলত ওয়ানডে সুপার লিগের সেরা চারে থাকার যে লক্ষ্য ঠিক করেছেন টাইগার কাপ্তান সে পথে আজকের জয় ছিল পয়েন্ট বাড়ানোর দারুণ সুযোগ।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ বাংলাদেশ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে। তবে প্রথম ম্যাচ স্রেফ ভাগ্যের কারণে নিজেদের হয়েছে, দ্বিতীয় ম্যাচে দাপুটে জয় তুলে নিলেও আজ (২৮ ফেব্রুয়ারি) হারতে হয়েছে খুবই বাজেভাবে।

লিটন দাসের ৮৬ রানের ইনিংসের পরও চট্টগ্রামে বাংলাদেশ আজ আগে বায়ট করে গুটিয়ে গেছে ১৯২ রানে। জবাবে রহমনাউল্লাহ গুরবাজের ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে ভর করে ৫৯ বল ও ৭ উইকেট হাতে রেখে জয় নিশ্চিত করে আফগানরা।

ওয়ানডে সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলে বর্তমানে শীর্ষে অবস্থান বাংলাদেশের (১৫ ম্যাচে ১০০ পয়েন্ট)। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ইংল্যান্ডের যা ১৫ ম্যাচে ৯৫। আজকের ম্যাচে জয় পেলে ১১০ পয়েন্ট নিয়ে ইংলিশদের সাথে ব্যবধানটা বাড়ানো যেত আরও। কারণ এর পরের সিরিজগুলোর বেশিরভাগই খেলতে হবে দেশের বাইরে।

ফলে ১০ পয়েন্ট অর্জনের দারুণ সুযোগ হারাতে হলো বাংলাদেশকে। এর আগে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৩ ম্যাচ সিরিজের একটি হেরে ১০ পয়েন্ট হারায় টাইগাররা।

সেরা চারে থেকে ওয়ানডে সুপার লিগ শেষ করার লক্ষ্য ঠিক করা তামিম নিজের হতাশার কথা তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘খুবই হতাশ, আজকে খেলা শুরুর আগেও বলেছি এই ম্যাচটা সম্ভবত খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা সিরিজ জিতে গেছি তবুও এটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ কারণ এখন আর সে পরিস্থিতি নাই যে আপনি একটা ম্যাচ নাও জেতেন সমস্যা নাই। প্রত্যেক ম্যাচেই পয়েন্ট আছে, প্রত্যেক ম্যাচেরই আলাদা মূল্য আছে এখন।’

‘আমি আসলে হতাশ পয়েন্ট হারিয়ে, কারণ আপনি কখনো ভবিষ্যত বলতে পারেন না। আমাদের দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলতে হবে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে হবে, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে খেলতে হবে। কোনো কিছুই গ্যারান্টেড না যা আপনি করবেন। যখন আপনার এ ধরণের সুযোগ থাকবে (ঘরের মাঠে) তখন সেটার সর্বোচ্চ সুবিধাটা তুলে নিতে হবে।’

ওয়ানডে সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলে ৮ নম্বরে থাকলেই মিলবে বিশ্বকাপের টিকিট। কিন্তু ৭, ৮ নম্বরে থেকে বিশ্বকাপ খেলতে চান না তামিম ইকবাল। লক্ষ্য কেবলই সেরা চারে থাকা। তামিম মনে করেন সেরা চারে থেকে বিশ্বকাপ খেলতে পারাটা হবে বড় ব্যাপার, ৭ ও ৮ নম্বর হলে যা কোনো পার্থক্যই গড়বে না।

তামিম যোগ করেন, ‘যদি একটা-দুইটা ম্যাচও জিতি আর, হয়তো আমরা বিশ্বকাপের জন্য কোয়ালিফাই করবো। কিন্তু এটা আমার লক্ষ্য না, আমার ব্যক্তিগত লক্ষ্য হল বাংলাদেশ সেরা চারে থেকে শেষ করবে। আপনি যদি ৭ বা ৮ নম্বর হয়ে বিশ্বকাপের জন্য কোয়ালিফাই করেন তাহলে সেটা কোনো পার্থক্য তৈরি করে না। যদি আমরা সেরা চারে থেকে যেতে পারি সেটাই একটা ব্যাপার হবে। অধিনায়ক হিসেবে চারে থেকে শেষ করাই আমার লক্ষ্য।’

‘এই একটা ম্যাচ ছিল যেটা আমি খুব করে চেয়েছি জিততে। কারণ আপনি যদি দেখেন প্রথম ম্যাচে আমরা বেশ ভাগ্যবান ছিলাম। ওরা দুজন যে ব্যাটিং করেছে তা অসাধারণ, এরকম ব্যাটিং প্রতিদিন পাওয়া যাবে না। আমাকে বলতেই হবে আমরা খুবই ভাগ্যবান। পরের ম্যাচেই আমরা খুব সলিড গেম খেলেছি। সুতরাং আমাই ভেবেছি আজকের ম্যাচটায় আমরা খুব দাপটের সাথে শেষ করতে পারবো। সে দিক থেকে আমি বলবো খুবই হতাশ।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলবে সাকিব, নিশ্চয়তা দিলেন পাপন

Read Next

হতাশ তামিম নিজের ব্যাটিং নিয়ে গর্বিত

Total
9
Share