অনন্য নজির স্থাপন করলেন লোকেশ রাহুল

অনন্য নজির স্থাপন করলেন লোকেশ রাহুল
Vinkmag ad

অনন্য ঘটনার নজির স্থাপন করলেন ভারতের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লোকেশ রাহুল। রক্তের দুর্লভ এক ব্যধির জন্য বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টের প্রয়োজন ১১ বছর এক শিশুর। তার জন্য ৩১ লাখ রুপি প্রদান করেছেন রাহুল।

শিশুটির চিকিৎসাদি সংক্রান্ত খরচ পড়বে ৩৫ লাখ রুপি। ১১ বছরের শিশু ভারদের সেবা শুশ্রূষায় তার পরিবার পাশে আছে।

ভারদের বাবা শচীন নালাওয়াড়ে একজন ইন্স্যুরেন্স এজেন্ট এবং মা স্বপ্না ঝা একজন গৃহকর্মী। গত ডিসেম্বরে সন্তানের চিকিৎসার জন্য গিভ ইন্ডিয়ায় অর্থ সংগ্রহের একটি প্রচারণা চালান তারা। রাহুলের দল দ্রুতই গিভ ইন্ডিয়ার সংস্পর্শে এসে ভারদ ও তারা মা-বাবার সাথে যোগাযোগ করে।

গত সেপ্টেম্বর থেকে ৫ম শ্রেণীতে পড়ুয়া ভারদ মুম্বাইয়ের জাসলোক হাসপাতালের হেমালোজিস্টদের অধীনে চিকিৎসাধীন আছেন। অ্যাপ্লাস্টিক অ্যানেমিয়া নামে রক্তের দুর্লভ এক রোগে আক্রান্ত আছে সে। ভারদের রক্তে প্লাটিলেটের পরিমাণ খুবই কম। তার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এতই কম যে যেকোন ইনফেকশনে আক্রান্তের ঝুঁকি তার রয়েছে। এমনকি সাধারণ জ্বরেও মাসের পর মাস তাকে ভুগতে হয়। ভারদের এ অবস্থায় বোনম্যারো ট্রান্সপ্যান্টই সবচেয়ে কার্যকর চিকিৎসা।

‘যখন আমি ভারদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে পারলাম, আমার দল দ্রুতই গিভ ইন্ডিয়ার সাথে যোগাযোগ করে, যেন আমি তাদের যেকোনভাবে হোক সাহায্য করতে পারি। আমি অত্যন্ত খুশি যে অপারেশন সফল হয়েছে এবং সে এখন সুস্থ হচ্ছে। আশা করি সে দ্রুতই নিজের পায়ে দাড়াবে এবং নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে পারবে। আমি আশা করি আমার এ অবদান অন্য সবাইকে প্রয়োজনের তাগিদে এগিয়ে আসার সাহস যোগাবে,’ ইনসাইড স্পোর্টসকে জানান রাহুল।

‘ভারতের সার্জারিতে বিপুল অর্থ প্রদানের জন্য রাহুলের কাছে আমরা অনেক কৃতজ্ঞ। এত দ্রুত সময়ে আমাদের পরিবারের জন্য বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টের অর্থ বহন করা বেশ কঠিনই ছিল। রাহুলকে অনেক ধন্যবাদ,’ ভারদের মা বলেন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সতীর্থকে থাপ্পড় মেরে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হারিস রউফ

Read Next

বাংলাদেশের দাপট, অল্পতেই গুটিয়ে গেল আফগানিস্তান

Total
14
Share