টাইগারদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ করা ম্যাচই যখন আফগানদের অনুপ্রেরণা

টাইগারদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ করা ম্যাচই যখন আফগানদের অনুপ্রেরণা
Vinkmag ad

২০১৯ সালে চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে আফগানিস্তানের ঐতিহাসিক টেস্ট জয় এখনো বাংলাদেশ ক্রিকেটে অন্যতম হতাশার নাম। আড়াই বছরের বেশি সময় পর একই ভেন্যুতে আবারও দুই দল মুখোমুখি হচ্ছে। তবে এবার টেস্ট নয় ওয়ানডে, আর সে ক্ষেত্রেও আফগানিস্তান অনুপ্রেরণা খুঁজে পাচ্ছে টেস্ট জয় থেকেই।

এবারের বাংলাদেশ সফরে আফগানিস্তান খেলছে ৩ ওয়ানডে ও ২ টি-টোয়েন্টি। ওয়ানডে সিরিজের সবকটি ম্যাচই মাঠে গড়াবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। নিজেদের টেস্ট বিজয়ের দুর্দান্ত স্মৃতি মোড়ানো মাঠে আরেক দফা টাইগারদের বিপক্ষে নামার আগে রোমাঞ্চিত দলটি।

আগামীকাল (২৩ ফেব্রুয়ারি) প্রথম ওয়ানডের আগে আজ আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক হাশমতউল্লাহ শহিদী বলেন, ‘হ্যাঁ, অবশ্যই আমি সেখান থেকে শুরু করতে চাই। এখানে আমাদের দারুণ স্মৃতি আছে, সেসব থেকে ইতিবাচক বিষয়গুলো নিতে চাই। আমাদের চেষ্টা থাকবে আগামীকাল থেকে সেসব আবার শুরু করতে।’

রাশিদ খান, মোহাম্মদ নবি ও মুজিবুর রহমানের স্পিন ঘূর্ণি বিশ্বের যেকোনো ব্যাটিং লাইনআপের জন্য হুমকি। বাংলাদেশের স্পিন নির্ভর পিচ বলে টাইগারদের জন্য হতে পারে বড় হুমকির কারণ।

এ নিয়ে উচ্ছ্বসিত আফগান কাপ্তান বলেন, ‘আমাদের বেশ ভালো স্পিন আক্রমণ আছে। বাংলাদেশের পিচে স্পিন বোলিং করা দারুণ ব্যাপার। সুতরাং আমি এটা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী এবং আশাবাদী। এটা আমাদের জন্য বেশ ইতিবাচক ব্যাপার।’

এদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের আগেই অন্তবর্তীকালীন কোচ হিসেবে আফগানরা নিয়োগ দেয় বাংলাদেশেরই সাবেক কোচ স্ট্রুয়ার্ট ল কে। তার নিয়োগে সর্বোচ্চ ফায়দা পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী হাশমতউল্লাহ। এমনকি স্ট্রুয়ার্ট ল পার্থক্য গড়ে দিতে পারে বলেও মনে করে আফগান দলপতি।

এ প্রসঙ্গে , ‘হ্যাঁ সে (স্ট্রুয়ার্ট ল) সবই জানে এখানকার। মাঠ ও পিচ সম্পর্কে সে যা জানে তাই আমাদের জানাচ্ছে আর আমরাও সেটা অনুসরণ করতে চাই। সম্ভবত হ্যাঁ (পার্থক্য গড়ে দেওয়া), কারণ সে এখানকার সবই জানে।’

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সব থেকেও কিছুই নাই এর দিন রাসেল ডোমিঙ্গোর

Read Next

রাশিদ-নবিদের বিপক্ষে তামিমের আরেক দফা সফল হওয়ার মিশন শুরু আগামীকাল

Total
1
Share