টুইটারে বিস্ফোরক ফকনার, কড়া জবাব দিল পিসিবি

টুইটারে বিস্ফোরক ফকনার, কড়া জবাব দিল পিসিবি
Vinkmag ad

পিএসএল (পাকিস্তান সুপার লিগ) এর মাঝপথে অস্ট্রেলিয়া ফিরে জেমস ফকনার টুইটারে বিস্ফোরক। বেতনাদি না পাওয়া নিয়ে পিসিবির মিথ্যাচারের অভিযোগ আনেন এই অজি ক্রিকেটার। পরবর্তীতে পিসিবি (দ্য পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড) ও কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স এই ইস্যুতে বিবৃতি দেয়।

জেমস ফকনারের টুইট-

পিসিবি ও ফ্র্যাঞ্চাইজির দাবি জেমস ফকনার যেসব অভিযোগ এনেছেন তার কোন ভিত্তিই নেই। এবং তারা ফকনারের এমন ভিত্তিহীন অভিযোগে হতাশ। এর আগে ২০২১ সালেও আবু ধাবি লেগে পিএসএল খেলা ফকনারকে তো বটেই, সব ওভারসিজ ক্রিকেটারদের যোগ্য সম্মান দেওয়া হয় বলে দাবি পিসিবির।

বিবৃতিতে পিসিবি লেখে যে ৭ বছরে পিএসএলের চুক্তি নিয়ে কোন ক্রিকেটারই অভিযোগ করে নি। বরং সব ক্রিকেটার পিসিবিকে সাধুবাদই জানিয়েছে।

লম্বা বিবৃতিতে পিসিবি জানায় এর আগে একাধিকবার জেমস ফকনার অসদাচরণ করেছেন। ২০২১ সালের ডিসেম্বরে জেমস ফকনারের এজেন্ট সংযুক্ত আরব আমিরাতের এক ব্যাংক ডিটেইলস দেয় যেখানে পিসিবি টাকা পাঠায়।

পরবর্তীতে ২০২২ এর জানুয়ারিতে ফকনারের এজেন্ট আর একটি ব্যাংক একাউন্ট (অস্ট্রেলিয়ার) পাঠায় এবং সেখানে টাকা পাঠাতে বলে। এর আগেই ৭০ শতাংশ টাকা আগের অ্যাকাউন্টে দিয়ে দেওয়ায় পিসিবি সঙ্গত কারণেই আর টাকা দেয়নি। আগের প্রদত্ত অর্থের প্রাপ্তি স্বীকার করেছিলেন ফকনার।

এরপর ফকনার হুমকি দেয় যে তার কথা মত নতুন অ্যাকাউন্টে টাকা না দিলে তিনি মুলতান সুলতান্সের বিপক্ষে ম্যাচে খেলবেন না। এই বিষয়ে পিসিবি তার সঙ্গে আলোচনায় বসলে ফকনার বাজে ব্যবহার করেন।

এমনকি ফকনার হোটেলে ইচ্ছাকৃত ভাবে ক্ষতি করেন, যার ক্ষতিপুরণ দিতে হয় পিসিবিকে। এমনকি ইমিগ্রেশন কর্তার সঙ্গেও দুর্ব্যবহার করেন ফকনার।

এসব কিছু আমলে নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড জেমস ফকনারকে পিএসএল থেকে ব্যান করে। পরবর্তীতে আর পিএসএল ড্রাফটে থাকবে না জেমস ফকনারের নাম।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

হেরাথের পর বাংলাদেশে পৌঁছেছেন ডোমিঙ্গোও

Read Next

নিউজিল্যান্ডের সামনে দক্ষিণ আফ্রিকার অসহায় আত্মসমর্পণ

Total
1
Share