শিষ্য সাকিব যখন সালাউদ্দিনের মাথা ব্যথার কারণ

সাকিব আল হাসান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন
Vinkmag ad

এমনিতে সাকিব আল হাসানের ক্রিকেট মস্তিষ্কের আলাদা গ্রহণযোগ্যতা আছে। অধিনায়ক হিসেবে এবারের বিপিএলে ফরচুন বরিশালকে যেভাবে ফাইনালে তুলেছেন তাতে বাড়তি বাহবা পেতেই পারেন। এখনো সাকিবের বিপদের বন্ধু কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন আবার ফাইনালে তার প্রতিপক্ষ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কোচ। সালাউদ্দিন নিজেও মুগ্ধ সাকিবের ক্রিকেট মস্তিষ্কে। তার মতে কুমিল্লার তৃতীয় শিরোপা জয়ে বড় বাধা সাকিবের মাথা।

ব্যাটে-বলে সাকিব দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন সামনে থেকে। ১০ ম্যাচে ব্যাট হাতে প্রায় ১৫০ স্ট্রাইক রেটে ২৭৭ রান নিয়ে আছেন সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় ৭ নম্বরে। বল হাতে আরও দুর্দান্ত, ১০ ম্যাচে ১৫ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় আছেন ৩ নম্বরে।

নিজের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে জিতেছেন টানা পাঁচ ম্যাচ সেরার পুরষ্কার। এর বাইরে অধিনায়কত্ব দিয়ে দেখিয়েছেন ঝলক। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বোলিং পরিবর্তনে সাফল্য পাওয়া, ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তন করেও জিতেছেন বাজি।

আর এতসব উপকরণে ফাইনালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিনে বড় মাথা ব্যথা সাকিবই।

আজ (১৮ ফেব্রুয়ারি) মিরপুরে অনুশীলন শেষে তিনি বলেন, ‘আমরা কাছে মনে হয় যে বরিশালের যে শক্তি সেটা হচ্ছে সাকিব আল হাসান। সাকিবের মাথার সাথে আমাদের খেলতে হবে। আমার মনে হয় যে খুবই ভালো অধিনায়কত্ব করতেছে এবং তার যতটুকু সোর্স আছে সেটা খুব ভালোভাবে ব্যবহার করতেছে। বিশেষ করে তার বোলিং বিভাগ নিয়ে, কারণ তারা ৪-৫ টা ম্যাচ খুব কম রানে ডিফেন্ড করেছে।’

‘এটায় কিন্তু একটা টিমের জন্য বুঝাই যায় যে তারা আসলে খুব পরিকল্পনা করে এগোচ্ছে। তো এ কারণেই বলবো যে সাকিবের মাথার সাথে আমাদের খেলতে হবে। কারণ ও অনেক সময় যে ট্রিকসগুলো করে সেটা আসলে অনেক সময় ব্যাটসম্যানরা বুঝতে পারে না, সেটা যদি আমরা ওভারকাম করতে পারি তাহলে আমার মনে হয় যে ব্যাটসম্যানরা ভালো করবে।’

এমনিতে গুরু-শিষ্য সম্পর্ক ছাড়িয়ে সাকিব-সালাউদ্দিন হয়ে উঠেন বন্ধুসুলভ। সাকিবের দুঃসময়ে সবার আগে পাশে দাঁড়ানো নামটি নিশ্চিতভাবে সালাউদ্দিন। ক্রিকেটীয় যে কোনো সমস্যায় তিনিই যে সাকিবকে চাঙ্গা করেন। তবে এবার বিপিএল পেশাদার জায়গা থেকে দুজনে কথাই বলেন নি। এমনটাই বলছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কোচ সালাউদ্দিন।

‘এই টুর্নামেন্টে আমি সাকিবের সঙ্গে কোন কথা বলি নাই। অবশ্যই পেশাদারিত্বের জায়গা থেকে।’

এদিকে ক্রিকেট মস্তিষ্কে সাকিব যেমন পাকা সালাউদ্দিনও তেমনই। বিশেষ করে ছোটবেলা থেকে সাকিবকে দেখভাল করেন বলে সাকিবের শক্তিমত্তা, দুর্বলতা জানেন ভালো করেই। তবে তিনি নিজে সাকিবের বিপক্ষে মাঠে নামতে পারছেন না বলে সেসব কতটা কাজে লাগবে এ নিয়ে প্রকাশ করেছেন সংশয়। পুরো দায়িত্ব নিতে হবে তার দলের খেলোয়াড়দের।

সালাউদ্দিন বলেন, ‘আমি তো আর মাঠে খেলতে পারব না। সাকিব মাঠে খেলবে, আমি বাইরে থাকব। মাঠের ভেতর আমাদের ছেলেরা যদি সেটা বুঝতে পারে, আমার মনে হয় সেটা অনেক কাজে লাগবে। ইমরুলও খুব ভাল ক্যাপ্টেন্সি করতেছে। ইমরুল যদি ঠিকমতো তার মাথা ঠান্ডা রাখে আমার মনে হয় যে আমরাও ভাল করার সুযোগ থাকবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শিরোপার বাইরে কিছু ভাবছেন না খালেদ মাহমুদ সুজন

Read Next

মোহাম্মদ হারিসে ম্লান আজম খানের দাপুটে ইনিংস

Total
6
Share