বোর্ডকে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলে অনুতপ্ত মিরাজ-চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

মিরাজ-চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স দ্বন্দ্ব, দুই পক্ষকেই ডেকে নিচ্ছে বিসিবি
Vinkmag ad

এমনিতে নানা ইস্যুতে বিতর্কিত বিপিএল (বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ), এবার যেখানে বাড়তি মাত্রা যোগ করে মেহেদী হাসান মিরাজ ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের নাটকীয়তা। যার শেষ পরিণতি বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের উপস্থিতিতে দুই পক্ষকে নিয়ে শুনানি। শুনানিতে দুই পক্ষই নিজেদের আচরণের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে। তবে পুরো বিষয়টিকে বিসিবি ও বিপিএলের জন্য বিব্রতকর বলছেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় বিসিবি কার্যালয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স চিফ অপারেটিং অফিসার সৈয়দ ইয়াসির আলম, বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সদস্য সচিব ইসলামিল হায়দয়ার মল্লিক, নাইম ইসলাম, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেএম রিফাতুজ্জামান, বিসিবি প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন।

শুনানি শেষে কোনো পক্ষের খুব গুরুত্বর অপরাধ খুঁজে পায়নি বিপিএলে গভর্নিং কাউন্সিল। বিশেষ করে ফিক্সিং সহ কিছু স্পর্শকাতর ইস্যু নিয়ে ছিলো সন্দেহ, অন্তত এই শুনানির পর সেটি উড়িয়ে দেওয়া গেলো। শুনানি শেষে ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানান ঘটনা মূলত ভুল বোঝাবুঝি থেকে। কিন্তু পুরো ঘটনায় বিব্রত হয়েছে বিসিবি ও বিপিএল। যদিও নিজেদের ভুল স্বীকার করে অনুতপ্তও হয়েছে দুই পক্ষ।

সংবাদ মাধ্যমে তিনি বলেন, ‘মিরাজ ও ফ্র্যাঞ্চাইজি দুই পক্ষই স্বীকার করেছেন, তারা পরিণতি বিবেচনা না করেই এমন আচরণ করেছেন। দুই পক্ষের ভুল বোঝাবুঝি ছিল যা দলের মধ্যেই সমাধান করা যেত। বোর্ড ও টুর্নামেন্টকে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলায় তারা অনুতপ্ত।’

‘মিরাজকে অধিনায়কত্ব থেকে সরানো নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তাকে ম্যাচের আগেই বিষয়টি জানানো হয়েছিল। বোর্ড দুই পক্ষকেই তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে অবগত করেছে। বোর্ড শৃঙ্খলার বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছে।’

উল্লেখ্য, ম্যাচের কয়েক ঘন্টা আগে অধিনায়কত্ব থেকে মেহেদী হাসান মিরাজকে সরানো দিয়ে ঘটনার সূত্রপাত। যে সূত্র ধরে অসন্তুষ্ট মিরাজ বিপিএলই খেলতে চাননি, ছাড়তে ছেয়েছেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের টিম হোটেল, জানিয়েছেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল ও বিসিবি প্রধান নির্বাহীকেও।

তবে পরে দুই পক্ষ সমঝোতায় আসে, মিরাজও থেকে যান চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সাথে। যদিও জল অনেক দূর গড়িয়ে যায় বলেই বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল শুনানির আয়োজন করে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বুড়ো হাড়ের ভেলকি দেখালেন শোয়েব মালিক

Read Next

ঘরে খেলার রোমাঞ্চে বুঁদ হয়ে আছেন রাজা

Total
1
Share