মৃত্যুঞ্জয়ের হ্যাটট্রিকে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের জয়

মৃত্যুঞ্জয়ের হ্যাটট্রিকে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের জয়
Vinkmag ad

চট্টগ্রামের উইকেটে বিপিএল মানে রান বন্যা। তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না চলতি বিপিএলেও, প্রথম দিনের পর দ্বিতীয় দিনেও দর্শক বিনোদনে ভরপুর ম্যাচ উপহার দিলো জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম। আজ (২৯ জানুয়ারি) রাতের ম্যাচে সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স তুলে নিলো ১৬ রানের জয়। যেখানে বৃথা গেলো এনামুল হক বিজয়ের ৭৮ রানের দারুণ এক ইনিংস। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স পেসার মৃত্যুঞ্জয়ের হাত ধরে এলো এবারের বিপিএলের প্রথম হ্যাটট্রিক।

উইল জ্যাকসের ফিফটির সাথে শেষদিকে বেনি হাওয়েলের তান্ডব, মাঝে আফিফ হোসেন ও সাব্বির রহমানের কার্যকরী দুই ইনিংস। তাতে চট্টগ্রামের স্কোরবোর্ডে টুর্নামেন্ট সর্বোচ্চ ৫ উইকেটে ২০২ রান।

জবাবে কলিন ইনগ্রাম ও এনামুল হক বিজয়ের ১১২ রানের জুটিতেও পরাজিত দলেই সিলেট সানরাইজার্স। ইনগ্রামের ব্যাটে ৫০, আশা জাগিয়েও ৭৮ রানে থামেন বিজয়। ৬ উইকেটে ১৮৬ রানেই আটকে গেলো মোসাদ্দেক হোসেনের দল।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে প্রথম ওভারেই এলোমেলো আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকানো সিলেট সানরাইজার্স ওপেনার লেন্ডল সিমন্স। ওই ওভারে দুইটি বাউন্ডারি এলেও দুটোই ছিলো ব্যাটের কানায় লেগে। পরের ওভারেই অবশ্য ফিরতে হয়েছে তাকে, নাসুম আহমেদকে ডাউন দ্য উইকেটে মারতে এসে হয়েছেন স্টাম্পড।

সিমন্সের বিদায়ের পরই কলিন ইনগ্রামকে নিয়ে শতরানের জুটি আরেক ওপেনার এনামুল হক বিজয়ের। পাওয়ার প্লেতে আসে ৪৬ রান। তবে এরপর হাত খুলে খেলেন দুজনেই।

রেজাউর রহমান রাজার করা ১০ম ওভারে আসে ২১ রান। বিজয় হাঁকান একটি করে চার, ছক্কা, ইনগ্রামের ব্যাটে ২ চার। ১১ ওভারেই সিলেটের স্কোরবোর্ডে ১০০ রান, ৩২ বলে ফিফটি ছুঁয়েছেন বিজয়। ৩৬ বলে ফিফটিতে পৌঁছান ইনগ্রামও।

ফিফটির পরই অবশ্য থামেন ইনগ্রাম, মিরাজের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৫০ রানের ইনিংসটি সাজান ৫ চার ২ ছক্কায়। ভাঙে বিজয়ের সাথে ১১২ রানের জুটি। কিছুটা অবাক করা সিদ্ধান্তে ক্রিজে এসে ব্যর্থ আলাউদ্দিন বাবুও (১)।

তবে রবি বোপারাকে নিয়ে নিজের ছন্দ ধরে রাখেন বিজয়। নিজের জোনে পাওয়া বলকে পরিণত করেন বাউন্ডারিতে। শেষ ৩ ওভারে প্রয়োজন পড়ে ৪৯। মৃত্যুঞ্জয়ের করা ১৮তম ওভারের প্রথম দুই বলেই ১০ রান নেন এই সেট ব্যাটার। তবে তৃতীয় বলেই ফেরেন নাসুমকে ক্যাচ দিয়ে।

৪৭ বলে ৯ চার ৩ ছক্কায় ৭৮ রানের ইনিংস আগের ম্যাচেও ফিফটি পাওয়া বিজয়ের। তবে তার বিদায়েই সিলেটের জয়ের স্বপ্ন ফিকে হয়ে যায়। বিজয়ের পর টানা ২ বলে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (০) ও রবি বোপারাকে (১৬) ফিরিয়ে এবারের বিপিএলের প্রথম হ্যাটট্রিক বাঁহাতি পেসার মৃত্যুঞ্জয়ের।

এটি বিপিএল ইতিহাসের ৬ষ্ঠ হ্যাটট্রিক, বাংলাদেশীদের মধ্যে এর আগে এ কীর্তি গড়েন আল আমিন হোসেন, আলিস আল ইসলাম। বিদেশীদের মধ্যে মোহাম্মদ সামি, ওয়াহাব রিয়াজ ও আন্দ্রে রাসেল তুলে নেন হ্যাটট্রিক। কার্যত ওই ওভারেই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় সিলেট সানরাইজার্স।

৬ উইকেটে ১৮৬ রানেই আটকে যায় মোসাদ্দেক হোসেনের দল, মোহাম্মদ মিঠুন ৭ ও মুক্তার আলি ৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। ৪ ওভারে ৩৩ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়ে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সেরা বোলার মৃত্যুঞ্জয়ই।

আগে ব্যাট করা চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ইনিংসের শুরুটা উইল জ্যাকস ঝড়ে মাঝে আফিফ হোসেন ও সাব্বির রহমানের ইনিংস মেরামত এবং শেষদিকে বেনি হাওয়েলের তান্ডব। উদ্বোধনী জুটিতে কেনার লুইসকে নিয়ে উইল জ্যাকসের ৬২ রানের জুটি। যেখানে ৫২ রানই এসেছে জ্যাকসের ব্যাট থেকে, ১৯ বলে ৭ চার ৩ ছক্কায় ইনিংস সাজান এই ইংলিশ।

তাসকিন আহমেদের বলে শর্ট ফাইন লেগে লেন্ডল সিমন্সের হাতে ধরা পড়লে ভাঙে জুটি। জ্যাকস এক পাশে ঝড় তুললেও ক্যারিবিয়ান লুইস আরেক দফা হলেন ব্যর্থ, ফেরেন ১২ বলে ৮ রান করে।

এরপর আফিফ-সাব্বিরের ৪৭ রানের জুটি। সাব্বির ফিরেছেন ২৯ বলে ৩১ রান করে, আফিফের ব্যাটে ২৮ বলে ৩৮ রান। এই দুজনের বিদায় নিলে পরের গল্পজুড়ে কেবলই বেনি হাওয়েল। ২১ বলে ২ চার ৩ ছক্কায় অপরাজিত ছিলেন ৪১ রানে। ৪ বলে ১৩ রানে অপরাজিত মেহেদী হাসান মিরাজ। আর তাতেই শেষ ৫ ওভারে ৬১ রান তোলে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। স্কোরবোর্ডে ৫ উইকেটে ২০২ রানের বড় সংগ্রহ।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ২০২/৫ (২০), লুইস ৮, জ্যাকস ৫২, আফিফ ৩৮, সাব্বির ৩১, হাওয়েল ৪১*, নাইম ৮, মিরাজ ১৩*; তাসকিন ৪-০-৫৩-১, গাজী ২-০-১৮-১, মোসাদ্দেক ৪-০-২৫-১, বোপারা ৪-০-২৩-১, মুক্তার ২-০-২৬-১

সিলেট সানরাইজার্স ১৮৬/৬ (২০), সিমন্স ৯, বিজয় ৭৮, ইনগ্রাম ৫০, বাবু ১, বোপারা ১৬, মোসাদ্দেক ০, মিঠুন ৭*, মুক্তার ৮*; নাসুম ৪-১-১৮-২, মিরাজ ৩-০-৩১-১, মৃত্যুঞ্জয় ৪-০-৩৩-৩

ফলাফলঃ চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ১৬ রানে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী (চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স)।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

চ্যালেঞ্জার্সদের বিদায় বললেন নিক্সন, অধিনায়ক বদল

Read Next

শান-রিজওয়ানের ব্যাটে চড়ে মুলতানের ২য় জয়

Total
1
Share