ভারতের শক্তিমত্তা সম্পর্কে জানা রাকিবুলদের নজর ভয়ডরহীন ক্রিকেটে

ভারতের শক্তিমত্তা সম্পর্কে জানা রাকিবুলদের নজর ভয়ডরহীন ক্রিকেটে
Vinkmag ad

যুব বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ যুব দল আগামীকাল (২৯ জানুয়ারি) এবারের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত যুবাদের। গত আসরে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জেতা টাইগার যুবাদের সামনে মোটামুটি কঠিন চ্যালেঞ্জই অপেক্ষা করছে। তবে অধিনায়ক রাকিবুল হাসান বলছেন সাম্প্রতিক সময়ে ভারত যুবাদের বিপক্ষে কিছু ম্যাচ খেলায় দলটির শক্তিমত্তা, দুর্বলতা সম্পর্কে ভালোই জানা আছে।

যুব এশিয়া কাপের সেমিফাইনালে ভারতের কাছে হারতে হয়েছে রাকিবুলদের। তবে তার আগে ভারতের তিন দলের টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ যুব দল। যেখানে ভারতের যুবারা খেলে ‘এ’ ও ‘বি’ নামের দুইটি দলে ভাগ হয়ে।

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজে চলমান যুবাদের এবারের বিশ্বকাপে প্রস্তুতি অনুসারে বাংলাদেশ নেই ফেভারিটের তালিকায়। এমনকি গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারতে হয়েছে ইংলিশ যুবাদের কাছেও। যদিও পরের দুই ম্যাচে সহজ প্রতিপক্ষ সংযুক্ত আরব আমিরাত ও কানাডাকে হারিয়ে নিশ্চিত করে কোয়ার্টার ফাইনাল।

কোয়ার্টার ফাইনালের আগে বাংলাদেশ যুব দল পেয়েছে ৬ দিনের বিরতি। আর তাতে নিজেদের মানসিক ও শারীরিভাবে ফিট বলছেন দলের অধিনায়ক রাকিবুল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘আসসালামু আলাইকুম, ২৯ তারিখ আমাদের কোয়ার্টার ফাইনাল। কোয়ার্টার ফাইনালের আগে আমরা প্রায় ৫-৬ দিনের একটা বিরতি পেয়েছি। এই বিরতিতে আমরা ভালো প্রস্তুতি নিয়েছি। একদিন ম্যাচের আবহেও অনুশীলন করেছি। মানসিক ও শারীরিকভাবে আমরা ভালো একটা অবস্থায় আছি। আর গত দুইটা ম্যাচ জিতে আমরা ভালো আত্মবিশ্বাসও পেয়েছি। আমাদের ব্যাটাররা রান করেছে, বোলাররা ভালো বোলিং করেছে।’

কোয়ার্টার ফাইনালে রাকিবুলদের লক্ষ্য ভয়ডরহীন ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলা, ‘আমরা ভালোই আত্মবিশ্বাসী আছি আমাদের স্কিলের উপর। আমরা চেষ্টা করবো আমাদের যে পরিকল্পনাটা আছে সেটা মাঠে শতভাগ প্রয়োগ করার। আমরা ওদের সাথে ভয়ডরহীন ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলবো। যাতে আমরা ভালো একটা ফল নিয়ে বের হতে পারি। ওদের সাথে আমাদের আগেও খেলা হয়েছে কিছু ম্যাচ।’

ভারতের শক্তিমত্তা, দুর্বলতা সম্পর্কে ধারণা আছে উল্লেখ করে টাইগার যুব দলের কাপ্তান জানান ম্যাচের ফলাফল নিয়ে অবশ্য ভাবছেন না তারা।

তার মতে, ‘এশিয়া কাপের সেমিফাইনাল ও তার আগে একটা সিরিজ খেলেছি ভারতে গিয়ে। তাই তাদের শক্তিমত্তা, দুর্বলতা সম্পর্কে আমাদের ভালো জানা আছে।’

‘যে পরিকল্পনা করে আমরা যাবো সেটা যদি প্রয়োগ করতে পারি এবং ছোট ছোট ভুলগুলো যদি আমরা কম করি তাহলে দিনশেষে আমরা ভালো একটা ফল নিয়ে বের হতে পারবো।’

‘আসল কথা হলো দিন শেষে আমরা ফলাফলের চিন্তা করছিনা, আমরা ভালো ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করবো, ভয়ডরহীন ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলবো ইন শা আল্লাহ।’

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে নিশ্চিত হয়ে আছে প্রথম সেমিফাইনালের দুই দল, যেখানে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড ও আফগানিস্তান যুব দল। দ্বিতীয় সেমিফাইনালের একটি প্রতিপক্ষ নির্ধারিত হবে আজ (২৮ জানুয়ারি) তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে মাঠে নামা পাকিস্তান ও অস্ট্রেলিয়া যুব দলের ম্যাচ থেকে। বিজয়ী দল খেলবে ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচের বিজয়ী দলের সাথে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মুশফিকের ব্যাটে রান, হেসেখেলে জিতল খুলনা টাইগার্স

Read Next

ব্যথা আছে, তবুও দলকে জিতিয়ে খুশি ফ্লেচার

Total
8
Share