বিধ্বংসী পাওয়েলের সেঞ্চুরিতে উড়ে গেল ইংল্যান্ড

বিধ্বংসী পাওয়েলের সেঞ্চুরিতে উড়ে গেল ইংল্যান্ড
Vinkmag ad

রোভম্যান পাওয়েলের বিধ্বংসী সেঞ্চুরিতে সিরিজে এগিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অতিমানবীয় ব্যাটিংয়ে পাওয়েল দলের সংগ্রহটা নিয়ে যান ২২৪ রানে। এরপর ওপেনার টম ব্যান্টন ও অভিষিক্ত ফিল সল্ট লড়াই করেও দলের পরাজয় এড়াতে পারেনি। সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে এউইন মরগানের দলকে ২০ রানে হারাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

১০ ছক্কায় ৫৩ বলে ১০৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলা পাওয়েল জিতলেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কার। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তিনটি শেষে ক্যারিবিয়ানরা এগিয়ে ২-১ ব্যবধানে।

বার্বাডোসে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ব্যর্থ ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ওপেনার। ব্রেন্ডন কিংয়ের ব্যাট থেকে আসে ১০ রান। আর শাই হোপ করেন কেবল ৪। এরপরের গল্প পুরান-পাওয়েল জুটির। ৫১ বলে শতক হাঁকানো পাওয়েল ঝড়ো ব্যাটিং করেছেন ইনিংসের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত। তবে বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের শুরুটা করেছিলেন নিকোলাস পুরান।

নিকোলাস পুরান ব্যক্তিগত ৭০ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরলে ভাঙে ১২২ রানের জুটি। ৪৩ বলে ৫ ছক্কা ও ৪ চারে সাজানো তাঁর এই ইনিংস। অপরদিকে ব্যাটিং তান্ডব চালিয়ে দলের সংগ্রহ দুইশো ছাড়িয়ে নিয়ে যান পাওয়েল। ৪ চার ও ৯ ছক্কায় ৫১ বলে শতক পেয়েছেন পাওয়েল। ১৯তম ওভারের শেষ বলে তিনি আউট হন, তখন স্কোরবোর্ডে ২১০ রান। রোমারিও শেফার্ড ও কাইরন পোলার্ড শেষ ওভারে আরও ১৪ রান এনে দিয়েছেন। ফলে ৫ উইকেটে ২২৪ রানে থামে উইন্ডিজের ইনিংস।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সফরকারী ইংল্যান্ড দল শুরুটা দারুণ করলেও জেসন রয় উইকেট হারিয়ে ফেলে। বড় রান করতে পারেননি জেমস ভিন্স (১৬)। মইন আলি মেরেছেন ডাক। ব্যক্তিগত ১১ রানে বিদায় নেন লিয়াম লিভিংস্টোন। তবে ব্যাট হাতে লড়েছেন টম ব্যান্টন ও অভিষিক্ত ফিল সল্ট।

ওপেনার টম ব্যান্টন ৩৯ বলে ৬ ছয় ও ৩ চারে খেলেন ৭৩ রানের ইনিংস। তবে তাঁকে ফিরিয়ে ইংল্যান্ডের বিপদ আরও বাড়িয়ে দেন কাইরন পোলার্ড। ফিল সল্ট নিজের অভিষেক ম্যাচেই দেখালেন ব্যাটিং ঝড়। শেফার্ডের বলে বোল্ড হয়ে ফেরার আগে ২৪ বলে তাঁর ব্যাট থেকে আসে ৫৭ রান। শেষ ওভারের তৃতীয় বলে সল্ট আউট হলে আশার শেষ আলোটাও নিভে যায় ইংলিশদের।

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২০৪ রানের বেশি করতে পারেনি ইংল্যান্ড দল। ফলে ২০ রানের রোমাঞ্চকর জয়ে সিরিজে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ওয়েস্ট ইন্ডিজঃ ২২৪/৫ (২০ ওভার) কিং ১০, হোপ ৪, পুরান ৭০, পাওয়েল ১০৭, শেফার্ড ১১, পোলার্ড ৯*; টপলি ৪-০-৩০-১, গার্টন ৪-০-৫৭-১, মিলস ৪-০-৫২-১, লিভিংস্টোন ৩-০-৪২-১, রশিদ ৪-০-২৫-১

ইংল্যান্ডঃ ২০৪/৯ (২০ ওভার) রয় ১৯, ব্যান্টন ৭৩, ভিন্স ১৬, মইন ০, লিভিংস্টোন ১১, সল্ট ৫৭, ব্রুক ১০,  গার্টন ২, রশিদ ১, মিলস ১*, টপলি ২*; কটরেল ৪-০-২৮-১, হোল্ডার ৪-০-৪১-১, শেফার্ড ৪-০-৫৯-৩, আকিল ৩-০-৩৬-১, পোলার্ড ৪-০-৩১-২

ফলাফলঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২০ রানে জয়ী

সিরিজঃ ৫ ম্যাচ সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে

ম্যাচ সেরাঃ রোভম্যান পাওয়েল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ছয় বছর পর প্রোটিয়াদের টেস্ট দলে ৩২ বছর বয়সী হার্মার

Read Next

জয়ে ফিরতে মরিয়া সোহান বলছেন ‘রিদম’ গুরুত্বপূর্ণ

Total
1
Share