কুমিল্লাকে ১৫৮ তে আটকে রাখল বরিশাল

কুমিল্লাকে ১৫৮ তে আটকে রাখল বরিশাল
Vinkmag ad

প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচেও হাসেনি ফাফ ডু প্লেসিসের ব্যাট, ক্যামেরুন ডেলপোর্ট দারূন শুরু পেয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি। তবে তরুণ তুর্কি মাহমুদুল হাসান জয় টুর্নামেন্টে নিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমে দারুণ এক ইনিংস খেলেন। যদিও মিডল অর্ডারে যোগ্য সমর্থন না পাওয়ায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স বড় সংগ্রহের আভাস দিয়েও থেমেছে ৭ উইকেটে ১৫৮ রানে।

জয়ের ৪৮ রানের সাথে, শেষদিকে করিম জানাতের অপরাজিত ২৯ রানের ক্যামিও।

ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে আজ (২৫ জানুয়ারি) মিরপুরে টস হেরে ব্যাট করতে নামে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। লিটন দাস এখনো দলের সাথে যোগ না দেওয়াতে ওপেনিং জুটিতে আসে অদল বদল।

আগের ম্যাচে ফাফ ডূ প্লেসিস ও ক্যামেরুন ডেলপোর্ট ওপেন করলেও আজ ডেলপোর্টের সাথে নামেন মাহমুদুল হাসান জয়। দুজনে মিলে ৩.২ ওভার স্থায়ী জুটিতে তোলেন ৩৩ রান। যেখানে নাইম হাসানের করা ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই জয় হাঁকান ২ চার ১ ছক্কা। ইনিংসের প্রথম ওভারে মাত্র ১ রান দেওয়া সাকিব তৃতীয় ওভারে দেন ১৩ রান, ডেলপোর্ট হাঁকান ৩ চার।

নাইম হাসানের করা চতুর্থ ওভারও চার মেরে শুরু করেন ডেলপোর্ট। তবে পরের বলেই হন স্টাম্পড (১৩ বলে ১৯)। ওই ওভারেই চার মেরে রানের খাতা খোলেন ডু প্লেসিস। সাকিবের করা পাওয়ার প্লের শেষ ওভারেই অবশ্য ধরতে হয় সাঝঘরের পথ, থেমেছেন ১১ বলে ৪ রানে।

অধিনায়ক ইমরুল কায়েস ব্যক্তিগত ৯ রানে জীবন পেয়েও অবশ্য ইনিংস বড় করতে পারেননি, ফিরেছেন ১১ বলে ১৫ রান করে। মুমিনুল হককে নিয়ে পঞ্চম উইকেট জুটিতে জয় যোগ করেন ৪৪ রান। জুটি ভাঙে ৩৫ বলে ৬ চার ১ ছক্কায় জয় ৪৮ রান করে ফিরলে। জ্যাক লিনটটের বলে শর্ট থার্ডম্যানে ক্যাচে পরিণত হওয়ার আগে ছিলেন বেশ সাবলীল।

মাঝে মুমিনুল ২৩ বলে ১৭ রানের ইনিংস খেলে রানকে কিছুটা গতিহীন করেন। ১৮তম ওভারে পরপর দুই বলে মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন (৮) ও নাহিদুল ইসলামকে (০) ফিরিয়ে হ্যাটট্রিক সম্ভাবনা জাগান ডোয়াইন ব্রাভো।

তবে শেষদিকে করিম জানাতের ব্যাটে ১৫০ পার করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এই আফগান খেলেন ১৬ বলে ১ চার ৩ ছক্কায় অপরাজিত ২৯ রানের ক্যামিও। ৩০ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ব্রাভোই ফরচুন বরিশালের সেরা বোলার। ২৫ রান খরচায় সাকিবের শিকার ২ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে):

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ১৫৮/৭ (২০), ডেলপোর্ট ১৯, জয় ৪৮, ফাফ ৬, কায়েস ১৫, মুমিনুল ১৭, করিম ২৯*, অঙ্কন ৮, নাহিদুল ০, শহিদুল ৫*; সাকিব ৪-০-২৫-২, নাইম ৩-০-৩১-১, লিনটট ৪-০-১৮-১, ব্রাভো ৪-০-৩০-৩।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ভাগ্যের জোরেই একমাত্র জয়টি পেয়েছে ঢাকাঃ তামিম

Read Next

ওটিস গিবসনের জায়গা নেওয়ার দৌড়ে শন টেইট ও চামিন্দা ভাস

Total
1
Share