সুযোগ তৈরি করা ম্যাচটি জেতা উচিৎ ছিলো বলছেন সাকিব

সুযোগ তৈরি করা ম্যাচটি জেতা উচিৎ ছিলো বলছেন সাকিব
Vinkmag ad

ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে খাদের কিনারা থেকে উঠে দাঁড়িয়ে ৪ উইকেটের জয় পেলো মিনিস্টার ঢাকা। টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম জয় পাওয়ার পথে অধিনায়কোচিত ইনিংস খেলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। যোগ্য সঙ্গ পেয়েছেন শুভাগত হোমের কাছ থেকে। শেষের কাজটা করেছেন আন্দ্রে রাসেল। ১০ রানে মিনিস্টার ঢাকার ৪ উইকেট তুলে নিয়েও ম্যাচ হেরে আক্ষেপ করছেন ফরচুন বরিশাল অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

দিনের ম্যাচে মিরপুরে লো-স্কোরিং হওয়াটা নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেখানে টস হেরে আগে ব্যাট করা ফরচুন বরিশাল ৮ উইকেটে তোলে ১২৯ রান। যেখানে বড় অবদান ক্রিস গেইলের ৩৬ ও ডোয়াইন ব্রাভোর অপরাজিত ৩৩ রান।

জবাবে ২.৫ ওভারেই ৪ উইকেট নেই মিনিস্টার ঢাকার। তামিম ইকবাল, নাইম শেখ, মোহাম্মদ শেহজাদ ও জহরুল ইসলামকে সাজঘরের পথ দেখানোতে আগুন ঝরানো বোলিং দুই পেসার আলঝারি জোসেফ ও শফিকুল ইসলাম।

তবে সেখান থেকে রিয়াদ-শুভাগতর ৬৯ রানের জুটি। যেখানে রিয়াদ খেলেন ৪৭ বলে ৪৭ রানের ইনিংস। শুভাগত থেমেছেন ২৯ রানে। শেষদিকে আন্দ্রে রাসেলের ১৫ বলে অপরাজিত ৩১ রানে ১৫ বল ও ৪ উইকেট হাতে রেখেই জিতেছে মিনিস্টার ঢাকা।

শুরুতে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরা ম্যাচ জেতা উচিৎ ছিলো পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বলছেন ফরচুন বরিশাল অধিনায়ক সাকিব, ‘আমি মনে করি আমরা ব্যাটিংয়ে বেশ ভালো করেছি। বল কিছুটা থেমে আসছিলো আর দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেট বেশ ভালো ছিলো। কিন্তু তাদের ৪ উইকেটে ১০ রান থেকে আমাদের ম্যাচটা জিতেছিলাম।’

‘দিনে হওয়া তিনটি ম্যাচেই দেখতে পেয়েছি লো স্কোরিং। এজন্য আমরা আমাদের ব্যাটারদের দিকে আঙুল তুলতে পারি না। রাতের খেলাগুলোতে বড় স্কোর হচ্ছে। আগামীকাল রাতে আমাদের ম্যাচ আছে। আশাকরি আমাদের ব্যাটাররা বড় রান করতে পারবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

প্রথম বাঁহাতি বোলার হিসাবে সাকিবের ‘৪০০’

Read Next

খুলনার বিপক্ষে চট্টগ্রামের রানের পাহাড়

Total
1
Share