ঢাকাকে ১৩০ এর লক্ষ্য ছুড়ে দিল বরিশাল

ঢাকাকে ১৩০ এর লক্ষ্য ছুড়ে দিল বরিশাল
Vinkmag ad

গতকাল (২৩ জানুয়ারি) বাংলাদেশে পৌঁছে করোনা নেগেটিভ হয়েই মাঠে নেমে পড়লেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল। তবে মিরপুরের রহস্য মোড়ানো পিচে অন্তত প্রথম ম্যাচে বিধ্বংসী হতে পারেননি দ্য ইউনিভার্স বস। যদিও তার ব্যাট থেকেই এসেছে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের ইনিংস।

গেইলের ৩৬ রানের সাথে আরেক ক্যারিবিয়ান ডোয়াইন ব্রাভোর অপরাজিত ৩৩ রানে ভর করে ৮ উইকেটে ১২৯ রানের পুঁজি পেলো ফরচুন বরিশাল। মিরপুরে দিনের প্রথম ম্যাচ বিবেচনায় জয়ের জন্য ভালো পুজিই বলতে হয়। আগের দুইদিনে এর চেয়ে কম রানের সংগ্রহ পেয়েই যে জিতেছে আগে ব্যাট করা দল।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মিরপুরে দিনের ম্যাচে অসহায় দলগুলো। আজও মিনিস্টার ঢাকার বিপক্ষে ফরচুন বরিশালের একই অবস্থা। পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে হারায় ৩ উইকেট, তুলতে পারেনি ২৪ রানের বেশি।

শুরুটা নাজমুল হোসেন শান্তরকে (৯ বলে ৫) দিয়ে, লং অফে নাইম শেখকে ক্যাচ দেন শুভাগত হোমের বলে ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে। একই ওভারে জীবন পেয়েছেন সৈকত আলি, কাভারে ব্যক্তিগত ১৩ রানে তার সহজ ক্যাচ মিস করেন তামিম।

জীবন পেয়েও তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ সৈকত (১৮ বলে ১৫), বাঁহাতি স্পিনার হাসান মুরাদের বলে ক্যাচ দেন তামিমকেই। নতুন ব্যাটার তৌহিদ হৃদয়কে খালি হাতেই ফেরান আন্দ্রে রাসেল।

৩ নম্বরে সাকিব আল হাসান ও গতকাল বাংলাদেশে এসে আজই মাঠে নামা ক্রিস গেইল ৫ নম্বরে নামেন। তবে তাতেও প্রথম ১০ ওভারে ফরচুন বরিশালের স্কোরবোর্ডে আসেনি ৪৯ রানের বেশি। সাকিব কিছুটা মেরে খেললেও, গেইল যথারীতি সময় নেন থিতু হতে। তার ব্যাটে প্রথম বাউন্ডারি আসে ১৭তম বলে, শুভাগত হোমকে মিড উইকেট দিয়ে হাঁকান ছক্কা।

রুবেল হোসেনের করা ১২তম ওভারেই ফিরতে হয় সাকিবকে (১৯ বলে ২৩), কাট করতে গিয়ে ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে। ভাঙে গেইলের সাথে ৩৭ রানের জুটি। ক্রিজে এসে ১ রানের বেশি করতে পারেননি নুরুল হাসান সোহান।

৬১ রানে ৫ উইকেটে হারানো ফরচুন বরিশাল শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১২৯ রান পর্যন্ত যেতে পারে ক্রিস গেইলের ৩০ বলে ৩৬ ও ডোয়াইন ব্রাভোর ২৬ বলে ৩৩ রানে ভর করে। মিনিস্টার ঢাকার হয়ে সর্বোচ্চ ২ উইকেট আন্দ্রে রাসেল ও ইসুরু উদানার। একটি করে নেন রুবেল হোসেন, শুভাগত হোম, হাসান মুরাদ ও মাহমুদউল্লাহ্র রিয়াদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে):

ফরচুন বরিশাল ১২৯/৮ (২০), সৈকত ১৫, শান্ত ৫, সাকিব ২৩, হৃদয় ০, গেইল ৩৬, নুরুল ১, ব্রাভো ৩৩, জিয়া ১, জোসেফ ৪, তাইজুল ৫*; রুবেল ৩-০-৮-১, শুভাগত ৪-০-১৯-১, মুরাদ ২-০-১২-১, রাসেল ৪-০-২৭-২, উদানা ৪-০-২৯-২, মাহমুদউল্লাহ ৩-০-৩১-১।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

৬ ম্যাচে খেলেই আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার বাবর আজম

Read Next

ব্রেন্ডন টেইলরের বিস্ফোরক দাবি, স্পট ফিক্সিংয়ের জন্য টাকা নিয়েছেন, তবে…

Total
18
Share