বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ হতে চান শন টেইট

বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ হতে চান শন টেইট
Vinkmag ad

ইদানিংকালে বাংলাদেশের সঙ্গে শন টেইটের সম্পর্ক বেশ দারুণ বলতেই হচ্ছে। আবুধাবি টি-টেন লিগে বাংলাদেশের মালিকানাধীন দল বাংলা টাইগার্সের বোলিং কোচ ছিলেন। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ২০২২ এ শন টেইট এসেছেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বোলিং কোচ হয়ে। ঢাকায় অবস্থানরত সাবেক এই অজি গতিতারকা জানালেন সুযোগ পেলে হতে চান বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ।

বাংলাদেশ দলের সর্বশেষ নিউজিল্যান্ড সফর শেষেই পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের চেয়ার ফাকা হয়েছে। সেই চেয়ারেই বসতে আগ্রহী শন টেইট।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সঙ্গে এক প্রশ্নোত্তর পর্বে শন টেইট নিজের এই ইচ্ছার কথা জানান।

বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ হতে চান কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে টেইট বলেন, ‘হ্যা, আমি নিশ্চিতভাবেই আগ্রহী, অবশ্যই। তাদের (বিসিবি) হাতে কিছু সময় আছে যে তারা কার দিকে ছুটবে। তবে হ্যা, আমি সুযোগ পেলে দারুণ হবে।’

বাংলাদেশ দলে প্রতিভার কোন অভাব নেই বলে মনে করেন শন টেইট। সাবেক এই অজি গতি তারকা মনে করেন আগামী ৫-৬ বা ৬ বছর বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য এক্সাইটিং হবে। 

টেইট বলেন, ‘এই মুহূর্তে বাংলাদেশ ক্রিকেট যেখানে আছে সেখানে তাদের হাতে বেশ কিছু ভালো তরুণ ক্রিকেটার আছে। যারা কিনা গ্রেট ক্রিকেটার হয়ে উঠতে পারে। পরবর্তী ৫-৬ বা ৭ বছর বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য এক্সাইটিং হবে।’

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে শন টেইট শীষ্য হিসাবে পাচ্ছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার শরিফুল ইসলামকে। দূর থেকে দেখেই শরিফুলে মুগ্ধ হয়েছেন টেইট। 

শরিফুল সম্পর্কে টেইট বলেন, ‘শরিফুল অ্যাগ্রেসিভ বাহাতি বোলার। সে আমাদের দলেও গুরুত্বপূর্ণ হবে, সে পর্যাপ্ত ক্রিকেটও খেলেছে। নিউজিল্যান্ডে তাকে দেখেছি, সে স্টাম্পে অ্যাটাক করে। দূর থেকে দেখে যেটা মনে হয়েছে যে তার ফাস্ট বোলিংয়ের প্যাটিটিউড আছে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

এবারও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়ক ইমরুল কায়েস

Read Next

ফাফ ডু প্লেসিসকে কন্ডিশন সম্পর্কে ধারণা দিলেন ইমরুল

Total
1
Share