পিএসএলে নয়া বাণিজ্যিক মডেল, খুশি ফ্র্যাঞ্চাইজিরা

পিএসএল ৭: সাপ্লিমেন্টারি ও রিপ্লেসমেন্ট ড্রাফট
Vinkmag ad

পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ৭ম আসর শুরু হতে আর মাত্র ৩ সপ্তাহ বাকি। ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলো চূড়ান্ত কার্যক্রম নিয়ে ব্যস্ত। এরই মাঝে তাদের জন্য খুশির সংবাদ, পিএসএলের নতুন বাণিজ্যিক মডেলে ব্যাপক লাভবান হবেন তারা।

পিএসএল থেকে লভ্যাংশের প্রায় ৯৫ ভাগ ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলোকে দিতে রাজি হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এ চুক্তি চূড়ান্ত করতে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছেন পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। ২০১৬ সাল থেকে শুরু হওয়া পিএসএলে ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলো বারবার অভিযোগ জানিয়ে আসছিল প্রতিবার টুর্নামেন্ট শেষে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন তারা। তাদের জন্য এমন সিদ্ধান্ত নেয় পিসিবি।

সূত্র থেকে জানা যায়, পিসিবির এমন অভিনব উদ্যোগের ফলে ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলো অনেক বেশি সুবিধা পাবে এবং আগের ক্ষতিগ্রস্ত অবস্থা থেকে নিজেদের চাঙ্গা করে তুলতে পারবে।

একটি টেলিভিশন চুক্তিতে ৪,৩৫০,৭৮৬,৭৮৬ পাকিস্তান রুপিতে ভেঙেছে পিসিবি। যদিও তারা টাইটেল স্পন্সরশিপের জন্য ৩.৫ বিলিয়ন পাকিস্তানি রুপি দাবি করেছিল। এর ফলে লাইভ স্ট্রিমিং স্বত্বে শতকরা ১৭৫ ভাগ লাভবান হবে।

খেলোয়াড়দের যাতায়াত ও থাকা খাওয়ায় প্রচুর খরচ করার পরেও ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলোর অনেক বেশি পরিমাণ অর্থ বেচে যাবে। এছাড়া ব্র‍্যান্ড ভ্যালুর ক্ষেত্রে স্পন্সরদের কাছ থেকে আরও ২০০ মিলিয়ন পাকিস্তানি রুপি তারা পাবে।

ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলো মোট ৫০০ মিলিয়ন পাকিস্তানি রুপি মুনাফা পাবে এবং পিএসএলের ব্র‍্যান্ড ভ্যালুও আরও বাড়বে। আগে টুর্নামেন্টের শুরু থেকে ১ মিনিটের খরচ হতো ৭৫০০০ পাকিস্তানি রুপি, এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়ে হবে ১.৩ মিলিয়ন পাকিস্তানি রুপি।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সেরা ‘১৫’ তে লিটন দাস, র‍্যাংকিংয়ে মুমিনুল-শান্তদের উন্নতি

Read Next

জরিমানা দেবার একদিন বাদেই সুসংবাদ পেলেন কাইল জেমিসন

Total
16
Share