লিটনের ব্যাটিং দেখে উইকেটের আচরণ নিয়ে বিভ্রান্ত মুমিনুল

লিটনের ব্যাটিং দেখে উইকেটের আচরণ নিয়ে বিভ্রান্ত মুমিনুল
Vinkmag ad

ঐতিহাসিক মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্ট জিতে ক্রাইস্টচার্চে এসে মুখ থুবড়ে পড়ে বাংলাদেশ। তবে স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়ে সিরিজে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন লিটন দাস। ইনিংস ও ১১৭ রানের ব্যবধানে হারা ম্যাচেও খেলেছেন নিজের চেনা ছন্দে, টেনে এনেছেন সাদা পোশাকে সাম্প্রতিক সময়ে দুর্দান্ত ফর্মকে। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক মুমিনুল হক জানালেন লিটনের ব্যাটিং দেখে মনেই হয়নি উইকেট কঠিন ছিলো।

এমনিতেই ক্রাইস্টচার্চের উইকেট ধীরে ধীরে ব্যাটিং সহায়ক হয়ে পড়ে। শেষ দুইদিনে যা আরও বেশি সহজ ছিলো। তবে তাতে বদয়াল্যনি বাংলাদেশের হতশ্রী ব্যাটিংয়ের দৃশ্য। প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের ৫২১ (ইনিংস ঘোষণা) রানের জবাবে টাইগারা গুটিয়ে যায় মাত্র ১২৬ রানে। ফলো অনে পড়ে তৃতীয় দিন দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে অলআউট ২৭৮ রানে।

১২৮ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারানো বাংলাদেশকে এতো দূর নেন লিটন দাস। তার সেঞ্চুরির সাথে অবশ্য সহায়ক ভূমিকা ছিলো ৩৬ রান করা নুরুল হাসান সোহানের। তবে কিউই পেসারদের তোপের মুখে যেভাবে লিটন সেঞ্চুরি তুলে নিলেন তাতে প্রশংসা পেতেই পারেন।

খেলেছেন পরিস্থিতি বিরুদ্ধ আক্রমণাত্মক মানসিকতায়। ৬৯ বলে ফিফটি তুলে সেঞ্চুরি ছুঁয়েছেন ১০৬ বলে। ৪৮ থেকে ৬৮ রানে পৌঁছান ট্রেন্ট বোল্টকে এক ওভারে ৪ চার মেরে। সাদা পোশাকে গত বছর দুর্দান্ত সময় পার করা লিটন নিউজল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টেও খেলেন ৮৬ রানের একটি ইনিংস।

ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে দলের পারফরম্যান্স ও লিটনের ব্যাটিং নিয়ে অধিনায়ক মুমিনুল হক বলেন, ‘প্রথম ম্যাচ নিয়ে আমরা খুশি ছিলাম কিন্তু এখানে হতাশ হয়েছি। আমি মনে করি আমাদের জন্য মোমেন্টাম ধরে রাখাটা বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিলো। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমরা সেটা পারিনি। সবসময় বিদেশের মাটিতে খেলার সময় ভালো মাইন্ডসেট রাখতে হবে। দ্বিতীয় টেস্টে হারের পরও আমরা কিছু ইতিবাচক জিনিস খুঁজে পাচ্ছি। যখন লিটন ব্যাটিং করছিলো, মনেই হয়নি এটি কঠিন উইকেট।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের প্রাপ্তি কেবল লিটন দাসের সেঞ্চুরি

Read Next

নিউজিল্যান্ডে সিরিজ ড্র, মুমিনুলের মতে এখন বাড়তি সতর্ক থাকবে প্রতিপক্ষ

Total
1
Share