সিডনিতে জিতল না কেউ, কিন্তু দেখা গেল টেস্ট ক্রিকেটের সৌন্দর্য

featured photo updated v 8

শেষের রোমাঞ্চে ড্র হল অ্যাশেজের চতুর্থ টেস্ট। ব্রড-লিচের হার-না-মানা লড়াই; থ্রিলার ড্র’য়ে অ্যাশেজে হোয়াইটওয়াশের সম্ভাবনা এড়াল ইংল্যান্ড। শেষ উইকেটে অদম্য লড়াই ব্রড-অ্যান্ডারসন জুটির। অ্যান্ডারসন ব্যাট হাতে শেষ ওভারটা লড়ে দিলেন। সিডনি টেস্ট রুদ্ধশ্বাস ভাবে হল ড্র। দুই ইনিংসেই শতরান হাঁকানো অজি ব্যাটসম্যান উসমান খাজা জিতলেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কার।

জিততে হলে আজ শেষ দিন দু’দলকেই নিতে হত বড় চ্যালেঞ্জ। নিয়েছেও তারা, কিন্তু ব্রডের লড়াকু ব্যাটিংয়ে হার এড়ালো ইংলিশরা। আগের দিন কোন উইকেট না হারিয়ে ৩০ রান সংগ্রহ করা ইংল্যান্ডের আজ দরকার ছিল ৩৫৮ রান। আর অজিদের১০ উইকেট। নাটকীয়তা শুরু সকাল থেকেই…

ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনে শুরুতেই পরপর ধাক্কা। ৯ রানে আউট ওপেনার হাসিব হামিদ। ৪ রানে ফিরলেন তিনে নামা ডেভিড মালান। অজি পেসারদের সামনে একাই লড়াই চালাচ্ছিলেন ওপেনার জ্যাক ক্রাউলি। রুটের সঙ্গে জুটি জমতে না জমতেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয় ক্রাউলিকে (৭৭ রান)। ৯৬ রানে ইংল্যান্ড হারায় ৩ উইকেট।

অধিনায়ক জো রুট এদিনও ব্যাট হাতে বড় রান করতে ব্যর্থ। ব্যক্তিগত ২৪ রানে স্কট বোলান্ডের বলে আউট হন রুট। বিপদ আরও সামনে এসে দাঁড়ায় ইংল্যান্ডের। চা বিরতির পর ঘটে আরও বড় অঘটন। ৬০ রানের ইনিংস খেলে বিদায় নিতে হয় বেন স্টোকসকে। লোয়ার মিডল অর্ডার ভেঙে পড়তে থাকে তাসের ঘরের মত। বাটলারের ব্যাট থেকে ১১ রান আসলেও কোন রান করার সুযোগই পাননি মার্ক উড।

এর জনি বেয়ারস্টোর সঙ্গে জ্যাক লিচ কিছুটা লড়াই করলেও কামিন্স-স্মিথদের দাপটের সামনে সেই লড়াই বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। যে করেই হোক বাঁচাতে হবে ম্যাচ। বেয়ারস্টো যেন পণ করে মাঠে নেমেছিলেন। ১০৫ বলে ৪১ করে উইকেট কামড়ে থেকে বেয়ারস্টোর লড়াইকে কুর্নিশ ক্রিকেট দুনিয়ার। কিন্তু বোলান্ডের বলে পরাস্থ হয়ে ফিরে যেতে হয় তাঁকে।

বেয়ারস্টো আউট হলে ৮ উইকেট হারিয়ে চতুর্থ টেস্টেও তখন হারের প্রহর গুনছে ইংল্যান্ড৷ দিনের খেলা শেষ হতে তখনও বাকি ১০ ওভার৷ কিন্তু স্টার্ক-কামিন্স-লায়নদের রুখে ইংল্যান্ডের ত্রাতা হয়ে ওঠেন লিচ এবং ব্রড৷ তবে ম্যাচ শেষের ঠিক ১২ বল আগে লিচের প্রতিরোধ ভাঙে৷ লিচ আউট হওয়ার পর যখন প্রায় সবাই ধরে নিয়েছে সিডনি টেস্ট জয় শুধু কামিন্সদের কাছে সময়ের অপেক্ষা।

শেষ উইকেটে অদম্য লড়াই ব্রড-অ্যান্ডারসন জুটির। জেমস অ্যান্ডারসনকে সঙ্গে নিয়ে শেষ ১২ বল উতরে দেন ব্রড ৷ ৩৫ বলে ৮ রানে অপরাজিত থেকে দলকে বাঁচান স্টুয়ার্ট ব্রড।  শেষপর্যন্ত সিডনি টেস্ট ড্র করে প্যাভিলিয়নে পৌঁছালো ব্রড-অ্যান্ডারসন জুটি। চলতি অ্যাশেজে টানা তিন হারের পর জয় সমতুল্য ড্র’য়ের মুখ দেখল সফরকারী দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (৪র্থ অ্যাশেজ টেস্ট)

অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংসঃ ৪১৬/৮ ডিক্লে.

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংসঃ ২৯৪/১০

অস্ট্রেলিয়া ২য় ইনিংসঃ ২৬৫/৬ ডিক্লে.

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৩৮৮) ২৭০/৯ (১০২ ওভার) ক্রাউলি ৭৭, হামিদ ৯, মালান ৪, রুট ২৪, স্টোকস ৬০, বেয়ারস্টো ৪১, বাটলার ১১, উড ০, লিচ ২৬, ব্রড ৮*, অ্যান্ডারসন ০*; স্টার্ক ১৮-২-৬৮-০, কামিন্স ২২-৫-৮০-২, বোলান্ড ২৪-১১-৩০-৩, লায়ন ২২-১০-২৮-২, গ্রিন ১০-১-৩৮-১, স্মিথ ৪-১-১০-১

ফলাফলঃ ম্যাচ ড্র

সিরিজঃ ৫ ম্যাচের সিরিজে ৩-০ তে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া

ম্যাচ সেরাঃ উসমান খাজা (অস্ট্রেলিয়া)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সাকিবের মাঠে ফেরার দিনে জয় পেল ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন

Read Next

ক্রাইস্টচার্চে আজ বাংলাদেশের দারুণ সকাল

Total
12
Share