বাংলাদেশ বোলারদের কাছ থেকে শেখার আছে বলছেন ল্যাথাম

বাংলাদেশ বোলারদের কাছ থেকে শেখার আছে বলছেন ল্যাথাম
Vinkmag ad

ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং তিন বিভাগেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্ট জিতেছিলো বাংলাদেশ। বিশেষ করে বোলিং বিভাগ ছিলো অসাধারণ। ক্রাইস্টচার্চে আগামীকাল (৯ জানুয়ারি) থেকে দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর আগে কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথামতো বলেই দিলেন বাংলাদেশ বোলারদের কাছ থেকে শেখার আছে তাদের।

মাউন্ট মঙ্গানুইতে বাংলাদেশ পেসাররা দেখিয়েছে দাপট। তবে কম যায়নি স্পিনাররাও, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম ও এবাদত হোসেনদের সাথে কার্যকর ছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও পার্টটাইম মুমিনুল হকও।

বাংলাদেশের বোলাররা জুটি বেঁধে বল করার সময় ছিলেন বেশ ইতিবাচক। দুই পাশ থেকে চেপে ধরেই চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলেছেন কিউই ব্যাটারদের। যা করতে পারেননি প্রতিপক্ষের টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট, কাইল জেমিসন, নেইল ওয়াগনাররা।

আজ (৮ জানুয়ারি) ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের আগেরদিন সংবাদ সম্মেলনে কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথাম বলছেন বাংলাদেশের বোলারদের কাছ থেকে শেখার আছে তাদের।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ পারফেক্ট টেস্ট খেলছে। বোলিংয়ের দিক দিয়ে তারা দুই পাশ দিয়েই দারুণ বল করে ব্যাটারদের ওপর চাপ সৃষ্টি করেছে। তারা আমাদের জুটি গড়তে দেয়নি। এটা আমাদের বোলারদের জন্য শিক্ষণীয় একটা ব্যাপার। আর তারা উইকেটের সঙ্গে নিজেদের দারুণভাবে মানিয়ে নিয়েছে এবং বড় জুটিও গড়েছে।’

‘যেটা আমরা করতে পারিনি। আর ওমন উইকেটে প্রথম ইনিংসের স্কোর খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। যেটা বাংলাদেশ করতে পেরেছে কিন্তু আমরা পারিনি।’

মাউন্ট মঙ্গানুইতে স্পোর্টিং উইকেট হলেও ক্রাইস্টচার্চে ঘাসের আধিপত্য থাকবে উইকেটে। ফলে আত্মবিশ্বাস নিয়ে আসা বাংলাদেশ দলের জন্য চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে বলেও আভাস দেন ল্যাথাম।

নিউজিল্যান্ড দলপতি বলেন, ‘আমরা জানি তারা আত্মবিশ্বাসী হয়ে হ্যাগলিতে খেলতে আসবে। তবে এখানকার উইকেট মাউন্ট মঙ্গানুই থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। আমরা শেষ কয়েক বছর ধরে এখানে দারুণ ক্রিকেট খেলে আসছি।’

‘আর আমরা আমাদের ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলতে চাই এখানে। সবাই নিজেদের সেরাটা দিতে মুখিয়ে আছে। আমরা প্রস্তুত দারুণ একটা পারফরম্যান্স দিতে।’

ক্রাইস্টচার্চের অতীত ইতিহাস জানান দেয় টস জেতা খুব গুরুত্বপূর্ণ। তবে টস জিতে প্রতিপক্ষকে ব্যাটিং পাঠানোর মানেই যে ম্যাচ জিতে যাওয়া সেটা মানতে নারাজ ল্যাথাম।

তার মতে, ‘আমরা দেখেছি যারা এখানে টস জিতে তারা প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু আমি মনে করি না যে টস জিতলেই ম্যাচ জয় হয়ে যায়। আমরা যদি এর আগেও এখানে আগে ব্যাট করে বড় স্কোর গড়ে ম্যাচ জিতেছি। আমরা যদি সেটার পুনরাবৃত্তি করতে পারি তাহলে ম্যাচের শেষ দিকে হয়তো আমাদের দিকে ফলাফল আসতেও পারে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ফুরফুরে মেজাজে থাকা তাসকিনরা নিজেদের নিয়ে আশাবাদী

Read Next

আবার হাসিমুখ? হাসিমুখে বহুদূর যেতে চায়…

Total
18
Share