মূল ম্যাচের ভেন্যুর পাশেই প্রস্তুতি ম্যাচ, কন্ডিশন বুঝতে কাজে দিবে বলছেন আব্দুর রাজ্জাক

তামিম অধিনায়ক হয়ে নিউজিল্যান্ড যাওয়াতে ভাগ্যবান বাংলাদেশ
Vinkmag ad

নিউজিল্যান্ড সফরের ২ ম্যাচ টেস্ট সিরিজের আগে ২ টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা ছিলো বাংলাদেশ দলের। তবে কোয়ারেন্টাইন সময়সীমা বাড়ায় নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলা সম্ভব হয়নি। অবশ্য আগামীকাল (২৮ ডিসেম্বর) থেকে নিউজিল্যান্ড একাদশের বিপক্ষে মাঠে গড়াচ্ছে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচটি। নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাক আশাবাদী এই ম্যাচ দিয়ে নিজেদের মানিয়ে নেওয়ার সুযোগ ভালোভাবেই কাজে লাগাবে ক্রিকেটাররা।

২ ম্যচ টেস্ট সিরিজ খেলতে গত ৮ ডিসেম্বর দেশ ছাড়ে টাইগাররা। নিউজিল্যান্ডে ১৪ দিনের বাধ্যতামুলক কোয়ারেন্টাইন হলেও বিশেষ সুপারিশে সেটি ৭ দিনে নামিয়ে নেয় বিসিবি।

কিন্ত যাত্রা পথে করোনা রোগীর সংস্পর্শে থাকায় বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্যের করোনা সময়সীমা বাড়িয়ে ১০ দিন করে।

কিন্তু ভিন্ন ফ্লাইটে শ্রীলঙ্কা থেকে নিউজিল্যান্ড যাওয়া স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ করোনা পজিটিভ হলে বাঁধে বাড়তি বিপত্তি, বেড়ে যায় পুরো দলের কোয়ারেন্টাইন। যদিও আরেক দফা কোভিড পরীক্ষায় নেগেটিভ হয়ে হেরাথ ছাড়া বাকিরা অনুশীলনের সুযোগ পান ২১ ডিসেম্বর থেকে।

যে কারণে ২২ ডিসেম্বর থেকে নিজেদের মাঝে ভাগ হয়ে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা থাকল সেটি সম্ভব হয়নি। ক্রাইস্ট চার্চ থেকে প্রথম ম্যাচের ভেন্যু মাউন্ট মঙ্গানুইত পৌঁছে এখন নিউজিল্যান্ড একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ। ম্যাচের ভেন্যু বে ওভালের পাশেই বে ওভাল ২ এ প্রস্তুতি ম্যাচটি খলব টাইগাররা।

পাশাপাশি মাঠ বলে কন্ডিশন সম্পর্কে আগেই ধারণা পাওয়া সম্ভব বলছন রাজ্জাক।

আজ (২৭ ডিসেম্বর) বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় দলের সাথে থাকা নির্বাচক তিনি বলেন,

‘কোয়ারেন্টিনের পরে আমাদের অনুশীলনটা বেশ ভালো হয়েছে। সবাইকে দেখে বেশ ইতিবাচক মনে হচ্ছে। সবাই খুব ভালোই মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। আমার কাছে মনে হচ্ছে আমরা মোটামুটি রিকভার করতে পেরেছি। মনে হচ্ছে কাল থেকে যে প্রস্তুতি ম্যাচটা হবে সেটা বেশ ভালোই হবে।’

‘আমরা যেখানে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলব এর পাশের মাঠেই প্রথম টেস্ট ম্যাচটা খেলব। সেক্ষেত্রে আমাদের পরিবেশের সঙ্গে পরিচিত হতে সুবিধা হবে। ছেলেরা ভালো করার জন্য খুব মুখিয়ে আছে। আমরাও দেখতে চাইব। যেহেতু কিছু ক্রিকেটার আছে নতুন, ওরাও নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে প্রথম খেলবে। আশা করি ওরা ভালোই করবে, অন্তত অনুশীলন দেখে এটাই মনে হয়েছে।’

উল্লেখ্য, ১ জানুয়ারি মাউন্ট মঙ্গানুইয়ের বে ওভালে শুরু হচ্ছে সিরিজের প্রথম টেস্ট। ৯ জানুয়ারি ক্রাইস্টচার্চের হাগলি ওভালে শুরু হবে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

যাকে ইচ্ছে তাকে তাকে নিতে পারা দল নিয়ে উপভোগের খোঁজে তামিমরা

Read Next

বিপিএল ২০২২- ৬ দলের চূড়ান্ত স্কোয়াড

Total
7
Share