পিংক বলেও পাত্তা পেল না ইংল্যান্ড, অ্যাডিলেডে স্মিথদের বড় জয়

featured photo updated v 15

পিংক বলের অ্যাশেজেও দাপট দেখিয়ে ২৭৫ রানের বড় ব্যবধানে জিতল স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। ইংলিশদের বিপক্ষে টানা দুই জয়ে অজিদের লিড দাঁড়াল ২-০ তে। ৪৬৮ রানের বিশাল লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে ১৯২ রানেই থমকে যায় জো রুটদের ব্যাটিং। ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো টেস্টে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন ঝাই রিচার্ডসন। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন লাবুশেইন।

আগের দিন (চতুর্থ দিন শেষে) ৪ উইকেটে ৮২ রান সংগ্রহ করে ইংলিশরা। সেদিনই স্বাগতিকদের জয়ের পথ অনেকটাই সহজ করে রেখেছিলেন রিচার্ডসন, স্টার্করা। শেষ দিন ৬ উইকেট নিয়ে স্টোকসদের করতে হত আরও ৩৮৬ রান; যা অ্যাডিলেডে ইংল্যান্ডের জন্য ছিল দুঃস্বপ্নের মতোই। ঝাই রিচার্ডসনের বোলিং তোপে ইংলিশরা হলও বিপর্যস্ত। জস বাটলারের প্রতিরোধ ভেঙে রিচার্ডসন অস্ট্রেলিয়াকে এনে দিলেন বড় জয়।

বেন স্টোকসের সঙ্গে জুটি গড়ার আগেই ওলি পোপকে (৪) বিদায় জানান মিচেল স্টার্ক। তবে বেশি দূর এগিয়ে যেতে পারেননি স্টোকসও। রিভিউ নিয়ে স্টোকসকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন নাথান লায়ন। ৭৭ বল মোকাবিলায় ব্যক্তিগত ১২ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন বেন স্টোকস।

এরপর ইংলিশরা এগোয় জস বাটলার ও ক্রিস ওকসের জুটিতে। তবে ডিনারের পরই ওকসকে বোল্ড করেন রিচার্ডসন। আউট হওয়ার আগে ৪৪ রান আসে ওকসের ব্যাট থেকে। তবে লড়াই থামেনি জস বাটলারের। একা হাতে টানতে থাকেন দলকে। চা বিরতির আগেই বিদায় নেন ওলি রবিনসন (৮)।

তবে প্রতিরোধ গড়েও হিট উইকেট হয়ে ফিরতে হল জস বাটলারকে। এমন দুর্ভাগ্যজনক উইকেটের আগে ২০৭ বলে ২৬ রান করেন বাটলার। দলীয় ১৯২ রানে জেমস অ্যান্ডারসনকে শেষ উইকেট হিসেবে আউট করে নিজের পাঁচ উইকেট তুলে নেন ঝাই রিচার্ডসন। সঙ্গে নিশ্চিত হয় দলের জয়ও।

ব্রিসবেনের গ্যাবায় ১ম টেস্টে জেতার পর অ্যাডিলেড ওভালে পিংক বল টেস্টেও জিতল অজিরা। অস্ট্রেলিয়া নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে ৯ উইকেটে ৪৭৩ রানে। এর ইংল্যান্ডকে ১ম ইনিংসে অল্পতে গুটিয়ে দিয়ে বড় লিড নিয়েছে স্টিভ স্মিথের দল। লিডের সঙ্গে ২য় ইনিংসে অজিরা ইনিংস ঘোষণা করে ৯ উইকেটে ২৩০ রানে। আর তাতেই ইংলিশদের সামনে পড়ে ৪৬৮ রানের বড় টার্গেট।

আগের দিন শেষ সেশনে রিচার্ডসন, স্টার্কদের তোপে জয়ের আরও কাছে চলে গেছে অস্ট্রেলিয়া। আজ জ্বলে উঠলেন ঝাই রিচার্ডসন। একে একে দখলে নেন পাঁচ উইকেট। আর তাতেই অস্ট্রেলিয়ার নিশ্চিত হয় ২৭৫ রানের বড় জয়।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংসঃ ৪৭৩/৯ ইনিংস ঘোষণা

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংসঃ ২৩৬/১০

অস্ট্রেলিয়া ২য় ইনিংসঃ ২৩০/৯ ইনিংস ঘোষণা

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংসঃ ১৯২/১০ (১১৩.১ ওভার) বার্নস ৩৪, মালান ২০, রোট ২৪, স্টোকস ১২, বাটলার ২৬, ওকস ৪৪, ব্রড ৯*; রিচার্ডসন ১৯.১-৯-৪২-৫, স্টার্ক ২৭-১০-৪৩-২, লায়ন ৩৯-১৬-৫৫-২, নেসের ১৩-৫-২৮-১

ফলাফলঃ অস্ট্রেলিয়া ২৭৫ রানে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ মারনাস লাবুশেইন (অস্ট্রেলিয়া)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপ যাত্রা, চাপ নয় সুবিধা বলছেন টাইগার কোচ

Read Next

লাহোর কালান্দার্সের অধিনায়ক হলেন শাহীন শাহ আফ্রিদি

Total
1
Share