মাহমুদউল্লাহর কাছ থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ধারণা নিলেন রাকিবুলরা

মাহমুদউল্লাহর কাছ থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ধারণা নিলেন রাকিবুলরা

যুব এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপ খেলার উদ্দেশে আগামীকাল (২১ ডিসেম্বর) সন্ধায় দেশ ছাড়বে টাইগার যুবারা। তার আগে আজ মিরপুরে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন অধিনায়ক রাকিবুল হাসান। বিশ্বকাপ যাত্রার আগে সিনিয়র ক্রিকেটারদের সাথে খুব একটা কথা হয়নি যুবাদের। তবে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সাথে আলাপে ধারণা দিয়েছেন বিশ্বকাপের আয়োজক ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেট সম্পর্কে।

২৩ ডিসেম্বর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হবে যুব এশিয়া কাপ। আর আগামী ১৪ জানুয়ারি ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে পর্দা উঠবে যুব বিশ্বকাপের। এবার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপ মিশনে যাচ্ছে বলে টাইগার যুবাদের কাছে প্রত্যাশাটাও থাকবে আকাশচুম্বি। আগের বারের দলের মতো এবার খুব বেশি ম্যাচ খেলা সম্ভব হয়নি করোনা প্রভাবে।

তবে অধিনায়ক রাকিবুল আত্মবিশ্বাসী নিজেদের নিয়ে, ‘গতবার তো এরকম কোভিড পরিস্থিতি ছিলো না। কোভিডের কারণে আমরা যেমন এবার প্রস্তুতি নিতে পারিনি তেমনি বাকি দলগুলো ওরকম। মরা গত ২-৩ মাসে কয়েকটা সিরিজ খেলেছি এবং আমি মনে করি এটাও খারাপ না। আমাদের ভালো প্রস্তুতিই হয়েছে এবং এশিয়া কাপের আগে যে ক্যাম্পটা করলাম সেটাও ভালো হয়েছে।’

‘কোভিডের জন্য সেভাবে প্রস্তুতি নিতে পারিনি। গত কয়েক মাসে আমরা চেষ্টা করেছি প্রস্তুতি নেওয়ার। সুতরাং আমরা যতটুকু পেরেছি চেষ্টা করবো ওটা নিয়েই ভালো কিছু করার।’

বিশ্বকাপ যাত্রার আগে জাতীয় দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের সাথে খুব একটা আলাপ হয়নি রাকিবুলদের। মিরপুরে ব্যক্তিগত অনুশীলনে আসা টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ২-১ দিনের দেখায় কেবল ধারণা পেয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেট সম্পর্কে।

রাকিবুল বলেন, ‘না তেমন কথা হয়নি। দুই একদিন রিয়াদ ভাইয়ের সাথে নেটে দেখা হয়েছিলো। উনি ওখানকার উইকেট সম্পর্কে ধারণা দিয়েছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজে রুইকেট কেমন হতে পারে সে ধারণা দিলো। এতটুকুই কথা হয়েছে।’

গতবারের দলের ৩ ক্রিকেটার আছেন এবারের দলে। অধিনায়ক রাকিবুল ছাড়া পেসার তানজিম হাসান সাকিব ও আগে থেকেই দলের সাথে থাকা প্রান্তিক নওরোজ নাবিল। অধিনায়ক রাকিবুল জানালেন এবারের দলের সাথে বিশ্বকাপ জেতা দলের পার্থক্য সম্পর্কে।

তিনি বলেন, ‘গতবার যখন আমরা গিয়েছিলাম তখন ভালো প্রস্তুতি নিয়ে গিয়েছি। খেলোয়াড় হিসেবে আমি নতুন ছিলাম এবার পুরোনো। গতবার যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি সেটাই দলের ক্রিকেটারদের সাথে ভাগাভাগি করার চেষ্টা করেছি। আর আমাদের দলটাও ভালো আছে, আশা করি আমরা ভালো করবো।’

এদিকে বিশ্বকাপ যাত্রার আগে ত্রিদলীয় সিরিজে ভারতের দুইটি দলকে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন রাকিবুলের দল। গতবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছেও ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে। ভারতকে সর্বশেষ কয়েকবারের দেখাতে হারানোয় দারুণ আত্মবিশ্বাসী রাকিবুলরা।

তবে বিশ্বকাপে ভারতকে মূল প্রতিপক্ষ হিসেবে দেখতে নারাজ টাইগার যুবাদের অধিনায়ক, ‘এটা আসলেই ভালো লাগে ভারতের মতো দলকে গত সিরিজে তাদের মাটিতে গিয়ে হারিয়ে আসছি। আমাদের আত্মবিশ্বাস ছিলো, ভালো প্রস্তুতি নিয়ে সেখানে গিয়েছি। আর বিশ্বাকপে শুধু ভারত না, অন্যান্য আরও ভালো ভালো দল আছে। আমরা চেষ্টা করবো আমাদের সেরা খেলাটা খেলে ভালো পারফর্ম করার।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাবর আজমকে ফ্যাব ফোরে রাখছেন ওয়াসিম আকরাম

Read Next

দলকে উদ্ধার করে আক্ষেপে পুড়লেন জাকের-তাইবুর

Total
14
Share