পরিকল্পনা মতো না এগোলেও দেশের ক্রিকেটে অর্জনের খাতা ভারী বলছেন আকরাম

আকরাম খান
Vinkmag ad

স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তি পালন করছে বাংলাদেশ। ৫০ বছরে দেশের ক্রীড়াঙ্গনে ক্রিকেটের অবদান অসামান্য। সাবেক অধিনায়ক ও দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম রূপকার আকরাম খান অবশ্য বলছেন পরিকল্পনা মতো না এগোলেও অর্জনের খাতাটা ভারীই। দেশের ক্রিকেট ভবিষ্যতে অনেক দূর যাবে বলেও স্বপ্ন দেখেন।

১৯৯৭ সালে আইসিসি ট্রফি জয়ের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটের অগ্রযাত্রা শুরু। যে টুর্নামেন্টে অধিনায়ক ছিলেন আকরাম খান, ব্যাট হাতে তার অবদান তো স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে টাইগার ক্রিকেটের ইতিহাসে।

তাদের হাত ধরে গড়ে ওঠা ক্রিকেটে বাংলাদেশ এখন বিশ্ব দরবারে সমাদৃত। তবে এখনো অর্জনের বাকি অনেক কিছু। আকরাম খান অবশ্য বলছেন অন্যান্য দেশের সাথে তুলনা করলে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের বয়স কম। সে ক্ষেত্রে ভালো অবস্থানেই আছে টাইগাররা।

বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বরাবরের মতো আজ (১৬ ডিসেম্বর) মিরপুরে আয়োজন হয় শহীদ জুয়েল ও শহীদ মুশতাকের নামে দুই দলে ভাগ হয়ে প্রীতি ম্যাচ। সাবেক ক্রিকেটারদের মিলনমেলার ফাঁকে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলেন আকরাম।

৩০ লাখ শহীদের রক্তে অর্জিত বাংলাদেশ। তাদের ত্যাগ স্বীকারকে শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম। দেশের জন্য জীবন না দিলে যে আজকের সাকিব, তামিম, মুশফিকদের পেতো না বাংলাদেশ।

আকরাম বলেন, ‘ক্রিকেটে অনেক অর্জন হয়েছে আমাদের। বাংলাদেশকে সারা বিশ্ব এখন ভালো একটা ক্রিকেট দল হিসেবে চেনে। এটা আমাদের কাছে অনেক বড় ব্যাপার এবং প্রাপ্তি, এটার সাথে সাথে আরও অনেক কিছু আছে। তারপরেও আমি মনে করি আজকে যাদের কারণে আমরা দেশটা পেয়েছি। কারণ তারা না থাকলে আমরা আজকে মাশরাফি, তামিম, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ, মুস্তাফিজ এদের মতো ভালো খেলোয়াড় পেতাম না। তাদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করি।’

‘ক্রিকেট টা আমরা আস্তে আস্তে এগোচ্ছি। যেভাবে পরিকল্পনা করেছি সেভাবে না হলেও যখন খেলতাম সে অবস্থা থেকে বেশ ভালো এগিয়েছে। আর আমার বিশ্বাস ভবিষ্যতে আরও ভালো হবে।’

ভবিষ্যতে দেশের ক্রিকেটকে আরও সমৃদ্ধ করতে এখনই সেরা সময় বলছেন আকরাম। সে ক্ষেত্রে নিজেদের খেলোয়াড়ি জীবনের সাথে এখনকার সময়ের পার্থক্যও তুলে ধরেন।

বর্তমানে বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান বলেন, ‘এটা সেরা সময়। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমরা যখন খেলতাম তখন জেলায় ভালো করা একটা ছেলের জন্য ঢাকায় এসে পারফরম্যান্স দেখানোর সুযোগ ছিলো না। আমরা খবরও পেতাম না। এখন কিন্তু আমরা সে সুযোগটা দিয়েছি।’

‘প্রত্যেকটা জেলায় আমাদের কোচ আছে, নির্বাচক আছে। আশা করছি বাংলাদেশ দল একদিন অনেক দূর যাবে। এখন ভালো হয়েছে, সামনে আরও ভালো হবে। অন্য দলগুলোর সাথে যদি তুলনা করেন দেখবেন আমাদের খেলার বয়স কিন্তু কম। সেদিক থেকে চিন্তা করলে আমারা ঠিকই আছি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সালমা-জাহানারাদের মাথায় আগেই বিজয় দিবস গেঁথে দিয়েছিলো বিসিবি

Read Next

আরও সাকিব-তামিম-মাশরাফি পেতে আতহারের চোখ রাকিবুলদের দিকে

Total
2
Share