কোভিড-১৯ নিয়মে বাদ পড়ল পার্থ

কোভিড-১৯ নিয়মে বাদ পড়ল পার্থ
Vinkmag ad

অ্যাশেজের ৫ম টেস্টের ভেন্যু পার্থ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। করোনার প্রকোপের কারণে সেখানে খেলোয়াড়দের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বিধায় এ সিদ্ধান্ত নেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)।

নতুন ভেন্যু শীঘ্রই জানিয়ে দিবে তারা। আগামী বছরের ১৪ জানুয়ারি থেকে ৫ম টেস্ট শুরু হবে। হোবার্ট, মেলবোর্ন ও সিডনিতে এ টেস্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

গত বছরও করোনার কারণে পার্থে টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়নি। সেবার অস্ট্রেলিয়া ও আফগানিস্তানের মধ্যকার ঐতিহাসিক টেস্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ফলে টানা ২ বছর কোন আন্তর্জাতিক টেস্ট থেকে বঞ্চিত হলো পার্থ।

‘পার্থে ৫ম টেস্ট আয়োজন করতে পারবো না দেখে আমরা ভীষণ হতাশ,’ ব্রিসবেনে প্রথম টেস্টের আগে জানান ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নিক হকলি।

‘ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার সাথে আমরা পার্থে টেস্ট আয়োজনের সর্বাত্নক চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে, তা আর হচ্ছে না।’

পার্থে করোনার কঠিন বিধিতে অবশ্য ক্রিকেটারদের জন্য আরামদায়ক হতো। তবে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট অমিক্রনের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় পার্থকে টেস্ট আয়োজন থেকে বিরত রাখা হয়।

গত সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়ার স্টেট প্রিমিয়ার মার্ক ম্যাকগোয়ান জানান, সিডনিতে ৪র্থ টেস্টের পর পার্থে ৫ম টেস্টের আগে খেলোয়াড় ও সমর্থকদের ২ সপ্তাহের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

ব্রিসবেনের পর পার্থে ২য় টেস্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে পরবর্তীতে অ্যাডিলেডকে ২য় টেস্টের ভেন্যু দিয়ে পার্থকে ৫ম টেস্ট ভেন্যুর সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়। এ কার্যক্রমকে সরকারের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা মস্তিষ্কহীন বলেন। এখন পার্থকে ৫ম টেস্টের ভেন্যু হিসেবে বাতিল করায় হতাশ ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ভারতের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা

Read Next

জয়ের দুঃস্বপ্নের অভিষেক, বাংলাদেশের ব্যাটিং বিপর্যয়

Total
1
Share