নিজ শহরেই অভিষেক হলো রাব্বির, ঘুচলো আড়াই বছরের আক্ষেপ

নিজ শহরেই অভিষেক হলো রাব্বির, ঘুচলো আড়াই বছরের আক্ষেপ

অবশেষে ঘরের মাঠেই আড়াই বছরের বেশি সময়ের অপেক্ষা ঘুচিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হলো ইয়াসির আলি রাব্বির। ডানহাতি এই ব্যাটারের হোম ভেন্যু চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ থেকে শুরু হওয়া পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্টের একাদশে সুযোগ মিলল তার।

২০১৯ সালে আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডে প্রথমবার ডাক পান রাব্বি। ঘরোয়া ক্রিকেটে তিন ফরম্যাটেই নিজের সামর্থ্যের জানান দিয়ে নজরে আসেন। তবে সেবার অভিষেক হয়নি, যে অপেক্ষা বেড়েছে আরও আড়াই বছরের বেশি সময়ের জন্য।

ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের পর রাব্বি মূলত টেস্টের জন্যই বিবেচিত হয়ে আসেন। ২০২০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট দিয়ে রাব্বির ডাক পড়ে টেস্ট দলে। কিন্তু সেই একই পরিণতি, অভিষেক আর হলোনা।

এরপর করোনা প্রভাবে সব ধরণের ক্রিকেটই থমকে যায়। চলতি বছর জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন করে বাংলাদেশ। ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও যথারীতি স্কোয়াডে রাব্বি। কিন্তু ২ ম্যাচ সিরিজে অভিষেকের অপেক্ষা নিয়েই কেটেছে তার।

এরপর এপ্রিলে ২ ম্যাচ টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কায় যায় বাংলাদেশ। সেখানেও স্কোয়াডে থাকা রাব্বি কোনো সুযোগ পাননি। জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ে সফরের টেস্ট দলেও জায়গা মিলে।

এরপর পাকিস্তানের বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত ৩ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে প্রথমবার টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডেও জায়গা পেয়ে যান। কিন্তু ফলাফল ঐ একই, সুযোগ মিলেনি এক ম্যাচেও। ফলে জাতীয় দলের ড্রেসিং রুমে তার ঘুরে বেড়ানো সময় পেরিয়ে যায় আড়াই বছরের বেশি।

যথারীতি স্কোয়াডে ছিলেন পাকিস্তানের বিপক্ষে ২ ম্যাচ টেস্ট সিরিজেও। আর এই সিরিজ দিয়েই তার অভিষেক বাঁধার শেকল ছিঁড়বে এ আশার পালে হাওয়া বাড়ে। মুলত সাকিব আল হাসান চোটের কারণে চট্টগ্রাম টেস্টের দল থেকে ছিটকে যাওয়ায় বাড়তি একজন ব্যাটার খেলাতে হতো। সে বিবেচনায় মিডল অর্ডারে রাব্বিই অন্যতম বিকল্প।

শেষ পর্যন্ত সেটিই হয়েছে, চট্টগ্রামের এই ব্যাটারের আন্তর্জাতিক অভিষেকটা হলো রাজকীয় ফরম্যাট টেস্ট দিয়ে। আর এর মাধ্যমে ঘুচলো তার দীর্ঘ অপেক্ষা। বলে রাখা ভালো ২৫ বছর বয়সী এই ব্যাটারের প্রথম শ্রেণির পরিসংখ্যান বেশ দারুণ।

এখনো পর্যন্ত ৫৭ টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলে রাব্বির রান ৫০.৩৭ গড়ে প্রায় ৪ হাজার (৩৯৮০)। ৯ সেঞ্চুরির সাথে আছে ২৪ ফিফটি।

এর বাইরে ৭৭ টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে ৩৪.৭৭ গড়ে রান ১৮৭৮। ৫৪ স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে ১২৩.৫৮ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ১১৫৮ রান।

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

টস জিতলেন মুমিনুল, ইয়াসির রাব্বির অভিষেক

Read Next

বিসিবির অসচেতনতা চলছেই, এবার বাংলাদেশ বানানেই ভুল!

Total
1
Share