ফজলে মাহমুদের সেঞ্চুরি হাঁকানোর দিনে মাহমুদুলের আক্ষেপ

1534302864754

এনসিএলের দ্বিতীয় স্তরের খেলায় সিলেটে রাজশাহীর বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাঁকালেন বরিশালের ফজলে রাব্বি মাহমুদ। শুরুতেই ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলা বরিশাল দিন শেষ করেছে স্বস্তিতে। দ্বিতীয় স্তরের আরেক ম্যাচে শতরান হাঁকানোর আক্ষেপ তরুণ ব্যাটসম্যান মাহমুদুল হাসানের।

লিগের ষষ্ঠ রাউন্ডে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে রাজশাহী বিভাগের বিপক্ষে বরিশাল বিভাগ প্রথম দিন শেষে করেছে ৭ উইকেটে ২২৫ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে। ১২২ রানে অপরাজিত আছেন ফজলে রাব্বি মাহমুদ।

এদিন টস হেরে ব্যাট করতে নেমে স্কোরবোর্ডে ৯৩ রান যোগ হতেই বরিশাল বিভাগের নেই ৭ উইকেট। এমন বিপর্যয়ের পরও তারা প্রথম দিন শেষে করেছে ৭ উইকেটে ২২৫ রান সংগ্রহ করে। ইনিংসের শুরুতেই ওপেনার আবু সায়েমকে (০) হারায়। আরেক ওপেনার মোহাম্মদ আশরাফুল আউট হন ৯ রান করেই। দুই ওপেনারকেই লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন পেসার শফিকুল ইসলাম।

এরপর দাপট দেখান সানজামুল ইসলাম ও সাকলাইন সজিব। বরিশালের ব্যাটসম্যান সালমান হোসেন (৮) ও সোহাগ গাজীকে (৫) বোল্ড করে প্যাভিলিয়নে ফেরান সানজামুল। একে একে শামসুল ইসলাম, মইন খান ও মনির হোসেনকে বিদায় করেন সাকলাইন সজিব। ৯৩ রান করতেই ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলে বরিশাল।

এরপরই ফজলে মাহমুদ ও ৯ নম্বরে নামা ইসলামুল আহসানের ব্যাটে চড়ে স্বস্তিতে ফেরে বরিশাল। জুটি হয় ১৩২ রানের। ৫০ রানে অপরাজিত আছেন ইসলামুল আহসান। এদিন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দশম সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ফজলে মাহমুদ ১২২ রানে থেকে দিন শেষ করেন।

বল হাতে প্রথম দিনেই রাজশাহীর সাকলাইন সজিব তুলে নেন ৩ উইকেট। এছাড়া দু’টি করে উইকেট দখলে নেন সানজামুল ও শফিকুল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (১ম দিন শেষে)

বরিশাল বিভাগ ১ম ইনিংসঃ ২২৫/৭ (৯০ ওভার) সায়েম ০, আশরাফুল ৯, ফজলে মাহমুদ ১২২*, সালমান ৮, শামসুল ৭, সোহাগ ৫, মইন ১৩, মনির ০, ইসলামুল ৫০*; শফিকুল ১৫-৩-৫২-২, সানজামুল ৯.৩-১-৩৯-২, সাকলাইন ৩০-৬-৫৯-৩

দ্বিতীয় স্তরের আরেক সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে চট্টগ্রামের সংগ্রহ ২২৩ রান। ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৮৩ রানের ইনিংস খেলেন মাহমুদুল হাসান। এছাড়া পিনাক ঘোষের ব্যাট থেকে আসে ৪৭ রানের ইনিংস। জসিমউদ্দিন খেলেন ৩১ রানের ইনিংস।

বল হাতে ৬২ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন ঢাকা মেট্রোর শরফুদ্দৌলা। স্পিনার শাহবাজের দখলে ৩টি উইকেট। এছাড়া আবু হায়দার রনি, মেহরাব ও ইফতেখার শিকার করেন যথাক্রমে ১টি করে।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারায় ঢাকা মেট্রো। মুনিম শাহরিয়ার পাননি কোন রান ও আজমির আহমেদ আউট হন ৪ রানে। শামসুর রহমান ১৭ ও মার্শাল আইয়ুব ২৪ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেন। পিছিয়ে আছে আরও ১৭১ রানে; হাতে ৮ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (১ম দিন শেষে)

চট্টগ্রাম বিভাগ ১ম ইনিংসঃ ২২৩/১০ (৭১.১ ওভার) পিনাক ৪৭, জসিমউদ্দিন ৩১, মাহমুদুল ৮৩, শাহাদাত ১, ইরফান ১২, সৈকত ৮, সাজ্জাদুল ২৮, মুরাদ ১, মেহেদি ২, সামাদ ৪, নোমান ৭*; আবু হায়দার ১১-২-৪৩-১, মেহরাব ১২-৪-৩৩-১, ইফতেখার ১৪-১-৪৫-১, শরফুদ্দৌলা ২২-৫-৬২-৪, শাহবাজ ১২.১-৩-৩৫-৩

ঢাকা মেট্রো ১ম ইনিংসঃ ৫২/২ (১৪ ওভার) মুনিম ০, আজমির ৪, শামসুর ১৭*, মার্শাল ২৪*; মেহেদি ৫-১-১৪-১, সামাদ ৬-১-১৭-১

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

যেভাবে চেয়েছেন সেভাবেই হয়েছে, পাকিস্তান বধের পর বলছেন জ্যোতি

Read Next

ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করল ভারত

Total
3
Share