আফিফকে বল ছোড়ায় আফ্রিদিকে শাস্তি দিল আইসিসি

আফিফকে বল ছোড়ায় আফ্রিদিকে শাস্তি দিল আইসিসি

বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মেজাজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারান পাক পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদি। অহেতুক ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন ধ্রুবর দিকে বল ছোড়েন। আইসিসির লেভেল-১ আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে আফ্রিদিকে ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। সাথে পেয়েছেন ১টি ডিমেরিট পয়েন্ট।

এক বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি এই খবর নিশ্চিত করেছে। আচরণবিধির লেভেল-১ ভঙ্গ করায় ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। সঙ্গে তাঁর নামের পাশে যোগ হয়েছে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট। দোষ স্বীকার করে নেওয়ায় এ ব্যাপারে আর শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।

বাংলাদেশ ইনিংসের তৃতীয় ওভারের ঘটনা। নিজের দ্বিতীয় বলে আফিফ হোসেনের কাছে ছক্কা হজম করেন পাকিস্তানি বাঁহাতি পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদি। তৃতীয় বলে রান নিতে গেলে আফ্রিদি বল থ্রো করেন অনেকটা আফিফকে লক্ষ্য করেই। বল আফিফের প্যাড পরা অংশে নয় লাগে পেছনের অংশে। আর এতে তীব্র ব্যথায় মাটিতে লুটিয়েও পড়েন।

প্রাথমিক সেবা নিয়ে আফিফ পরের বল থেকেই ব্যাট করেন। মাঠেই আফিফকে শরীরি ভঙ্গিতে দুঃখ প্রকাশ করেন আফ্রিদি। পরে ম্যাচ শেষে আলাদা করে আফিফের কাছে যান আফ্রিদি, সরি বলে পিঠও চাপড়ে দেন। তবে তাতেও আইসিসির হাত থেকে মুক্তি পাননি; আচরণবিধি অনুযায়ী পেয়েছেন শাস্তি।

আইসিসির কোড অব কন্ডাক্টের ২.৯ ধারা অনুযায়ী অপ্রয়োজনে কিংবা বিপজ্জনকভাবে অন্য খেলোয়াড়ের দিকে বল ছুঁড়ে মারলে সেটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এই অপরাধের জন্য আফ্রিদিকে তাঁর মোট ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। সেই সাথে শাহীন শাহ আফ্রিদির নামের সঙ্গে যোগ হয়েছে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট।

এটাই আফ্রিদির পাওয়া প্রথম ডিমেরিট পয়েন্ট। আগামী ২ বছরের ভেতরে ৪টি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে একজন ক্রিকেটারকে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নিষিদ্ধ করা হবে।

উল্লেখ্য ম্যাচে কেউ যদি আইসিসির আচরণবিধির লেভেল-১ ভঙ্গ করে তাহলে তাকে ন্যুনতম ভর্ৎসনা ও সর্বোচ্চ ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা ও এক বা একাধিক ডিমেরিট পয়েন্টের বিধান রয়েছে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

প্রথম ম্যাচ রেফারি হিসাবে রঞ্জন মাদুগালের ‘২০০’

Read Next

টেস্ট খেলতে বাংলাদেশে পৌঁছেছে আজহার আলিরা

Total
1
Share