শেষদিকে এমন হতেই পারে বলছেন রিয়াদ

শেষদিকে এমন হতেই পারে বলছেন রিয়াদ

বিশ্বকাপে ব্যর্থ হয়েছে দল, কিন্তু ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স বিবেচনায় তাসকিন আহমেদ ও শেখ মেহেদী হাসান খারাপ করেনি। আজ (১৯ নভেম্বর) পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে হারা ম্যাচেও দুজনে ছিলেন উজ্জ্বল। ম্যাচ শেষে প্রশংসা কুড়িয়েছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। এদিকে শুরুতে দারুণ বল করা মুস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম শেষদিকে খেই হারালেও অধিনায়ক দিয়েছেন পিঠ চাপড়ে।

ব্যাট হাতে মেহেদীর মান বাঁচানো অপরাজিত ৩০, বল হাতে ৪ ওভারে ১৭ রান খরচায় ১ উইকেট। তাসকিন ৪ ওভারে ৩১ রান দিলেও নিয়েছেন বাবর আজম ও ফখর জামানের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট।

তাসকিন-মেহেদীর সাথে ম্যাচ শেষে অধিনায়ক প্রশংসা করেন দলের সর্বোচ্চ (৩৬) রান সংগ্রাহক ব্যাটার আফিফ হোসেন ও ২৮ রান করা নুরুল হাসান সোহানের।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘মেহেদী দারুণ পারফর্ম করছে। দলের জন্য ব্যাট ও বল হাতে অবদান রাখছে। তাসকিনও দুর্দান্ত পারফর্ম করছে। সবাই ভালো পারফর্ম করছে। আফিফ আজকে খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। সোহান খুব ভালো করেছে।’

১২৭ রানের পুঁজি নিয়েও বাংলাদেশকে পথে রেখেছিল বোলাররা। ৯৬ রানেই পাকিস্তান হারায় ৬ উইকেট। শেষ ৫ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৪৬, শেষ ৩ ওভারে ৩২। কিন্তু নিজের প্রথম ৩ ওভারে ১১ রান খরচ করা মুস্তাফিজ ১৮তম ওভারে দেন ১৫, প্রথম ৩ ওভারে ১৬ রান দেওয়া শরিফুল ইসলামও ১৯তম ওভারে দেন ১৫ রান। কার্যত এই দুই ওভারেই বাংলাদেশের হার নির্ধারণ হয়।

ম্যাচ শেষে অধিনায়ক রিয়াদ বলছেন শেষদিকে বোলারদের এমনটা হতেই পারে, ‘আজকে ওরা (পাকিস্তান) শেষের দিকে ভালো ব্যাটিং করেছে, এ কারণে হয়নি। হতাশাজনক না (বোলারদের শেষদিকে খেই হারানো)। সব বোলারই ভালো বোলিং করেছে। উইকেটও এনে দিয়েছে। শেষদিকে এমন হতেই পারে।’

‘একটা ওভারে একটা বেশি রান আসতে পারে। ব্যাটাররা ঐ সময় রানের চেষ্টা করছিল। কয়েকটা ভালো শটও খেলেছে। আমার মনে হয় মুস্তাফিজ ভালো বোলিং করেছে। পরে ওরা ভালো পার্টনারশিপ করেছে তাই।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নিগারের সেঞ্চুরি মিসের দিন বাঘিনীদের বড় জয়

Read Next

গেইল-স্টারলিং ঝড়ের দিনে হার দেখল বাংলা টাইগার্স

Total
5
Share