আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের সূচী প্রকাশ

অনূর্ধ্ব-১৯ বাংলাদেশ ভারত

আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ১৪তম সংস্করণের ম্যাচগুলোর সূচি ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী বছরের ১৪ জানুয়ারি থেকে ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজে এ টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে।

স্বাগতিক দেশ হিসেবে ৪টি দেশের নাম উল্লেখ আছে। এরা হচ্ছে অ্যান্টিগা ও বারবুডা, গায়ানা, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস এবং ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ এই প্রথমবার অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ আয়োজন করছে। ১৬টি দেশ অংশ নিবে, ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে মোট ৪৮টি।

এ গ্রুপে আছে বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, কানাডা এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত। বি গ্রুপে নব্য দেশ উগান্ডার সাথে আছে ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা ও আয়ারল্যান্ড। সি গ্রুপে আছে পাকিস্তান, আফগানিস্তান, জিম্বাবুয়ে এবং পাপুয়া নিউগিনি। ডি গ্রুপে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলঙ্কা ও স্কটল্যান্ড। অতিরিক্ত কোয়ারেন্টাইন বিধির জন্য নিউজিল্যান্ড নাম প্রত্যাহার করে নেওয়ায় স্কটিশদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

চার গ্রুপের সেরা দুইটি করে দল খেলবে সুপার লিগে, বাকি দুইটি করে দল যাবে প্লেট পর্বে। ৪৮ ম্যাচের সূচি শুরু হবে ১৪ জানুয়ারি, স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচের মধ্য দিয়ে। একইদিন মাঠে নামবে শ্রীলঙ্কা ও স্কটল্যান্ডের মধ্যে। গ্রুপ ম্যাচগুলো ১৪ থেকে ২২ জানুয়ারি গায়ানা, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস ও ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোতে অনুষ্ঠিত হবে।

২৫ থেকে ৩১ জানুয়ারি ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোতে প্লেট পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। অ্যান্টিগা ও বারবুডায় সুপার লিগ শুরু হবে ২৬ জানুয়ারি থেকে। ১ ফেব্রুয়ারি স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১ম সেমিফাইনাল এবং ২ ফেব্রুয়ারি কুলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ২য় সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। ৫ ফেব্রুয়ারি ফাইনাল হবে স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

আইসিসির ইভেন্টগুলোর প্রধান ক্রিস টেটলি বলেন,

‘আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট অনেক আকর্ষণীয় এবং বিশেষ টুর্নামেন্ট। আগামী ভবিষ্যৎ তারকাদের খুঁজে পাওয়া যায় এ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে।’

‘এ বিশ্বকাপের মধ্যে আমরা বর্তমান সময়ের অনেক মহান ক্রিকেটারদের পেয়েছি। ভিরাট কোহলি, বাবর আজম, জো রুট এবং শিমরন হেটমেয়াররা এখান থেকে এসেছে। ২০২০ সালের ইভেন্টে আমরা ভালো কিছু তারকা সন্ধানে আছি।’

‘ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ এ বিশ্বকাপ আয়োজন করায় আমরা আনন্দিত। আশা করি তারা এ টুর্নামেন্টের জন্য সেরা প্রস্তুতি সম্পাদন করে রাখবে।’

ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রেসিডেন্ট রিকি স্কেরিট বলেন,

‘অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট আয়োজনে আমরা প্রস্তুত। বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক ক্লাব, ক্রিকেট ক্লাব, ক্রীড়া মন্ত্রণালয় করোনা মহামারীর মধ্যেও বিগত কয়েক মাস ধরে আমাদের সাথে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’

‘একইসাথে অনূর্ধ্ব-১৯ এর প্রধান কোচ ফ্লয়েড রেইফার এবং তার কোচিং প্যানেল আমাদের।দলের সাথে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে। আমরা আশাবাদী ভ্রমণকারী আমাদের দেশ পরিদর্শন করে ভীষণ আনন্দিত হবে।’

স্বাগতিকরা এর আগে একবারই বিশ্বকাপ জেতে, ২০১৬ সালে। ভারত সর্বোচ্চ ৪ বার, অস্ট্রেলিয়া ৩ বার, পাকিস্তান ২ বার এবং ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশ ১ বার করে জিতেছে।

আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোঃ

সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসঃ ওয়ার্নার পার্ক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, কনারি ক্রিকেট সেন্টার (স্যান্ডি পয়েন্ট- ওয়ার্ম আপ ম্যাচের জন্য)

গায়ানাঃ গায়ানা জাতীয় স্টেডিয়াম (এভারেস্ট ক্রিকেট ক্লাব- ওয়ার্ম আপ ম্যাচের জন্য)

ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোঃ ব্রায়ান লারা ক্রিকেট একাডেমি, কুইন্স পার্ক ওভাল, ডিয়েগো মার্টিন স্পোর্টিং কমপ্লেক্স

অ্যান্টিগা অ্যান্ড বারবুডাঃ স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড, কুলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ড।

আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ম্যাচের তালিকাঃ

১৪ জানুয়ারি- ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম অস্ট্রেলিয়া, গায়ানা জাতীয় স্টেডিয়াম, গায়ানা; শ্রীলঙ্কা বনাম স্কটল্যান্ড, এভারেস্ট ক্রিকেট ক্লাব, গায়ানা।

১৫ জানুয়ারি- কানাডা বনাম সংযুক্ত আরব আমিরাত, কনারি ক্রিকেট সেন্টার, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস; ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা, গায়ানা জাতীয় স্টেডিয়াম, গায়ানা; আয়ারল্যান্ড বনাম উগান্ডা, এভারেস্ট ক্রিকেট ক্লাব, গায়ানা; পাকিস্তান বনাম পাপুয়া নিউগিনি, কুইন্স পার্ক ওভাল, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

১৬ জানুয়ারি- বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড, ওয়ার্নার পার্ক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস;
আফগানিস্তান বনাম জিম্বাবুয়ে, ডিয়েগো মার্টিন স্পোর্টিং কমপ্লেক্স, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

১৭ জানুয়ারি- ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম স্কটল্যান্ড, ওয়ার্নার পার্ক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস; অস্ট্রেলিয়া বনাম শ্রীলঙ্কা, কনারি ক্রিকেট সেন্টার, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস।

১৮ জানুয়ারি- ইংল্যান্ড বনাম কানাডা, ওয়ার্নার পার্ক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস; দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম উগান্ডা, কুইন্স পার্ক ওভাল, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো; আফগানিস্তান বনাম পাপুয়া নিউগিনি, ডিয়েগো মার্টিন স্পোর্টিং কমপ্লেক্স, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

১৯ জানুয়ারি- অস্ট্রেলিয়া বনাম স্কটল্যান্ড, কনারি ক্রিকেট সেন্টার, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস; ভারত বনাম আয়ারল্যান্ড, ব্রায়ান লারা ক্রিকেট একাডেমি, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

২০ জানুয়ারি- ইংল্যান্ড বনাম সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওয়ার্নার পার্ক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস; বাংলাদেশ বনাম কানাডা, কনারি ক্রিকেট সেন্টার, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস; পাকিস্তান বনাম আফগানিস্তান, ব্রায়ান লারা ক্রিকেট একাডেমি, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো; জিম্বাবুয়ে বনাম পাপুয়া নিউগিনি, ডিয়েগো মার্টিন স্পোর্টিং কমপ্লেক্স, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

২১ জানুয়ারি- ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম শ্রীলঙ্কা, কনারি ক্রিকেট সেন্টার, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস ; দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম আয়ারল্যান্ড, ব্রায়ান লারা ক্রিকেট একাডেমি, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

২২ জানুয়ারি- বাংলাদেশ বনাম সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওয়ার্নার পার্ক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস; ভারত বনাম উগান্ডা, ব্রায়ান লারা ক্রিকেট একাডেমি, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো; পাকিস্তান বনাম জিম্বাবুয়ে, কুইন্স পার্ক ওভাল, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

প্লেট ও সুপার লিগের ম্যাচগুলো ২৫ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড ও কুলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ড এবং ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর ব্রায়ান লারা ক্রিকেট একাডেমি, কুইন্স পার্ক ওভাল এবং ডিয়েগো মার্টিন স্পোর্টিং কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হবে।

১ ফেব্রুয়ারি- ১ম সেমিফাইনাল, স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড, অ্যান্টিগা অ্যান্ড বারবুডা

২ ফেব্রুয়ারি- ২য় সেমিফাইনাল, কুলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ড, অ্যান্টিগা অ্যান্ড বারবুডা

৫ ফেব্রুয়ারি- ফাইনাল, স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড, অ্যান্টিগা অ্যান্ড বারবুডা

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বাংলাদেশে খেলে যাওয়ার পুরোনো গল্প শোনালেন হায়দার-নেওয়াজরা

Read Next

বাংলাদেশি থাকলে ভাল হত বলছেন ফাফ ডু প্লেসিস

Total
1
Share