‘বিশ্বকাপের আয়োজক নির্ধারণ করা খুবই প্রতিযোগিতামূলক’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ- প্রিয় দলের অফিশিয়াল হ্যাশট্যাগ

ইউনাইটেড স্টেটস অফ আমেরিকাতে (ইউএসএ) এবার ক্রিকেট বিশ্বকাপ আয়োজনে মনস্থির হয়েছে আইসিসি। ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সেখানে হবে, তাদের সাথে থাকবে ওয়েস্ট ইন্ডিজও। মঙ্গলবার আইসিসি এ সিদ্ধান্ত দেয়।

২০২৭ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজনে দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ের সাথে সহযোগী দেশ হিসেবে থাকবে নামিবিয়া। এছাড়া লস অ্যাঞ্জেলস অলিম্পিক গেমস ২০২৮ সালে দেখা মিলবে ক্রিকেটের।

২৯ বছর পর আইসিসির কোন বড় ইভেন্ট আয়োজন করবে পাকিস্তান। ২০২৫ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি তাদের দেশে হবে। নিরাপত্তার স্বার্থে তাদের দেশ থেকে ২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকায়।

২০১৬ ও ২০১৯ সালে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার কয়েকটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ইউএসএ-এর লডারডেইলে। ২০২৪ সালের বিশ্বকাপ আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপে সরাসরি অংশ নিবে তাদের জাতীয় দল। তবে ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য বাছাইপর্ব পার হয়ে আসতে হবে নামিবিয়াকে।

‘বিশ্বকাপের আয়োজক নির্ধারণ করা খুবই প্রতিযোগিতামূলক ব্যাপার। বোর্ডের সাব কমিটির সদস্য হিসেবে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের চেয়ারম্যান মার্টিন স্নেডেন, বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি এবং ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের চেয়ারম্যান রিকি স্কেরিটের অধীনে আয়োজকদের নির্ধারণ করা হয়,’

আইসিসি এক বিবৃতিতে জানায়।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ব্যাটসম্যানদের র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি কনওয়ে-রিজওয়ানের, অলরাউন্ডারে তিনে লিভিংস্টোন

Read Next

বিশ্বকাপ আয়োজন করে বড় ক্ষতি থেকে বাঁচবে বিসিসিআই

Total
1
Share