টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত ফাইনালে নিউজিল্যান্ড

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত ফাইনালে নিউজিল্যান্ড

ড্যারিল মিচেলের অনবদ্য ব্যাটিংয়ের সুবাদে প্রথমবারের মত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে চলে গেল নিউজিল্যান্ড। আবু ধাবিতে টানটান উত্তেজনাপূর্ণ প্রথম সেমিফাইনালে গতবারের রানার আপ ইংল্যান্ডকে তারা হারিয়েছে ৫ উইকেটের ব্যবধানে।

ম্যাচের পরতে পরতে উত্তেজনা ছড়িয়েছে। তবে শেষ হাসি হেসেছে ব্ল্যাকক্যাপসরাই। তৃতীয়বারের মত সেমিফাইনাল খেলে প্রথমবারের মত ফাইনালে ওঠার স্বাদ পেলো কিউইরা।

১৬৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি নিউজিল্যান্ডের। ক্রিস ওকসের চমৎকার বোলিংয়ে পরাস্ত হন দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মার্টিন গাপটিল এবং অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

১৩ রানে ২ উইকেট হারানো ব্ল্যাকক্যাপসদের পথ দেখান আরেক ওপেনার মিচেল ও চারে নামা ডেভন কনওয়ে। শুরু থেকে মিচেল দেখেশুনে খেললেও কনওয়ে ব্যাটিং করছিলেন সাবলীলভাবে। দুইজনের মধ্যকার ৮২ রানের জুটিতে কনওয়ের অবদান ছিল ৪৬ রান। তবে লিয়াম লিভিংস্টোনের ঘুর্ণিতে কনওয়ের পর দ্রুত বিদায় নেন গ্লেন ফিলিপসও।

ম্যাচ যখন ইংল্যান্ডের হাতের মুঠোয় যাচ্ছিল, তখনই পর্দায় আবির্ভূত হন জেমস নিশাম। ১১ বলে ২৭ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি, যেখানে ছিল ১টি চার ও ৩ ছয়ের মার। ক্রিস জর্ডানের করা ১৭তম ওভারে ২৩ রান নেন নিশাম ও মিচেল। তাতেই নিউজিল্যান্ড জয়ের পথ পেয়ে যায়। নিশামের বিদায়ের পর মিচেল স্যান্টনারকে নিয়ে বাকি কাজটুকু সেরে নেন আস্থার সঙ্গে খেলতে থাকা ড্যারিল মিচেল। ১ ওভার হাতে রেখে জয় পেয়ে যায় নিউজিল্যান্ড।

৪৭ বলে ৪টি করে চার ও ছয়ের মারে ৭২ রানের দাপুটে ইনিংস খেলে দলকে জয়ের বন্দরে নেওয়ার পাশাপাশি ম্যাচ সেরার পুরস্কারও পান ড্যারিল মিচেল।

ইংলিশদের পক্ষে ওকস ও লিভিংস্টোন ২টি করে উইকেট পান।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে এ বিশ্বকাপে মইন আলির ১ম হাফ সেঞ্চুরির সুবাদে ৪ উইকেটে ১৬৬ রান করে ইংলিশরা। ৩৭ বলে ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন মইন। এছাড়া ডেভিড মালান ৪১ ও জস বাটলার ২৯ রান করেন।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে টিম সাউদি, অ্যাডাম মিলনে, জেমস নিশাম ও ইশ সোধি ১টি করে উইকেট পান।

বৃহস্পতিবার ২য় সেমিফাইনালে দুবাইয়ে মুখোমুখি হবে পাকিস্তান ও অস্ট্রেলিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ইংল্যান্ডঃ ১৬৬/৪ (২০), বাটলার ২৯, বেয়ারস্টো ১৩, মালান ৪১, মইন ৫১*, লিভিংস্টোন ১৭, মরগান ৪*; সাউদি ৪-০-২৪-১, মিলনে ৪-০-৩১-১, সোধি ৪-০-৩২-১, নিশাম ২-০-১৮-১

নিউজিল্যান্ডঃ ১৬৭/৫ (১৯), গাপটিল ৪, মিচেল ৭২*, উইলিয়ামসন ৫, কনওয়ে ৪৬, ফিলিপস ২, নিশাম ২৭, স্যান্টনার ১* ; ওকস ৪-১-৩৬-২, লিভিংস্টোন ৪-০-২২-২, আদিল ৪-০-৩৯-১

ফলাফলঃ নিউজিল্যান্ড ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ ড্যারিল মিচেল (নিউজিল্যান্ড)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোয়াড ঘোষণা

Read Next

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান হলেন সাবেক অলরাউন্ডার আশরাফ

Total
1
Share