শোয়েব আখতারের কাছে ক্ষমা চাইলেন পিটিভির নিয়াজ

লাইভেই শোয়েব-নোমান ঝগড়া, তদন্ত কমিটি গঠন
Vinkmag ad

পাকিস্তান সাবেক তারকা পেসার রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস খ্যাত শোয়েব আখতার ও পাকিস্তান টেলিভিশনের (পিটিভি) উপস্থাপক ডঃ নোমান নিয়াজের মধ্যে অন স্ক্রিন বিবাদ ও শোয়েবের অনুষ্ঠান ত্যাগ করা নিয়ে ঝড় ওঠে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পাকিস্তানের জাতীয় নায়ক শোয়েব আখতারের সাথে এরূপ অভদ্র আচরণের জন্য নিয়াজকে বারবার বিভিন্ন মাধ্যম থেকে ক্ষমা চাইতে বলা হয়।

রউফ ক্লাসরার সাথে তার ইউটিউব চ্যানেলে আলাপকালে নিয়াজ শোয়েবের কাছে ক্ষমা চাইলেও তৈরি করেন নতুন বিতর্ক। অন এয়ারে তার এমন প্রতিক্রিয়া সম্পূর্ণ ন্যায্য বলেও মনে করছেন নিয়াজ।

তিনি বলেন, ‘আমার অন এয়ার এমন বিস্ফোরক প্রতিক্রিয়া সম্পূর্ণ ন্যায্য। ভুল করাটা মানুষের জন্য স্বাভাবিক। এমনটা হওয়া উচিত ছিল না, এজন্য আমি একবার না কোটি বারও ক্ষমা চাইতে পারি। আমি জানি আমি অনেকের অনুভূতিতে আঘাত দিয়েছি এর মধ্যে শোয়েব আখতার অন্যতম, তিনি দেশের তারকা।’

নোমানের মতে আখতারও বেশি পারিশ্রমিক চেয়েছিলেন এবং পিটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সাথে কথা বলে তা একটি নির্দিষ্ট অঙ্কে নেগোসিয়েট করা হয়।

তিনি বলেন, ‘শোয়েবের সাথে আমাদের(পিটিভি স্পোর্টস) চুক্তি হয়েছিল এক্সক্লুসিভ ভিত্তিতে। মানুষ মনে করছে আমি শুধুই একজন হোস্ট, তারা ভুলে গেছে যে আমিই শোয়েবের সম্মানী সাক্ষর করি কারণ আমি চ্যানেলের প্রধান। আমরা সারা বছর ধরে তাকে একটি রিটেইনার দেই বড় টুর্নামেন্ট হলে নগদ পেমেন্ট করা হয়। তবে চলতি টুর্নামেন্টে সে সম্মানীর বাইরে একটি নির্দিষ্ট অর্থ চেয়েছিলেন তা আমরা ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সাথে কথা বলে নেগোসিয়েট করে ঠিক করেছি।’

শোয়েব আখতার পিটিভির সাথে চুক্তি ভঙ্গ করেছেন কারণ তিনি বিশ্বকাপের সময় অন্যান্য অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এ নিয়ে নিয়াজ বলেন, ‘ ওর (শোয়েব) ১৭ অক্টোবর বিশ্বকাপ ট্রান্সমিশনে আমাদের সাথে যোগ দেওয়ার কথা ছিল কিন্তু তিনি অনুপস্থিত ছিলেন। তারপর আমাকে বলা হয়েছিল যে তিনি দুবাই গিয়েছিলেন, যেখানে হরভাজন সিং এর সাথে এক টিভি শোতে উপস্থিত ছিলেন। এটি আমার জন্য আরেকটি সমস্যা ছিল কারণ রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারক হিসেবে আমাদের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থার কারণে ভারতের সাথে ব্যবসায়িক সংযোগের জন্য ২০১৯ সালে বানিজ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিষেধাজ্ঞা জারি করে।’

শোয়েব পাকিস্তান টেলিভিশনকে হেয় করছে বলে অভিযোগ করেন নিয়াজ। তিনি বলেন, ‘আমি শোয়েবের উপর রাগ করি নি কিন্তু এটা পাকিস্তান টেলিভিশনকে হেয় করেছে। কারণ আমরা তাক্র আমাদের দলের দুর্দান্ত অংশ হিসেবে ঘোষণা করেছিলাম।আমার মতে এটি একটি ছোটখাট ভুলবোঝাবুঝি ও ওভারল্যাপিংয়ের থেকে ঘটনাটি ঘটেছে। এটা ছিল অমার্জনীয়, অযাচিত, অপরিকল্পিত এবং আমি কাউকে অসম্মান করতে চাই না। আমি এই অমার্জনীয় কাজের জন্য জাতির সামনে ক্ষমা চাইতে প্রস্তুত কারণ আমি এটিকে আমার দায়িত্ব বলে মনে করি।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

অলরাউন্ডার নিশামের দিনে নামিবিয়াকে হারাল নিউজিল্যান্ড

Read Next

স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে সেমির লড়াইয়ে টিকে রইল ভারত

Total
1
Share