অবশেষে বিশ্বকাপে অভিষেক হচ্ছে শামীম হোসেনের

অবশেষে বিশ্বকাপে অভিষেক হচ্ছে শামীম হোসেনের

আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য ছিলেন শামীম হোসেন পাটোয়ারী। দ্রুত সুযোগ পান বাংলাদেশ জাতীয় দলেও, হয়েছে অভিষেকও। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ১৫ সদস্যের মূল দলে থাকলেও এখন অব্দি সেরা একাদশে থাকা হয়নি তার। শামীমের সেই অপেক্ষার পালা অবশ্য ফুরাচ্ছে।

সাকিব আল হাসানের ছিটকে যাওয়া, নুরুল হাসান সোহানের ফিট না হওয়া- দুইয়ে মিলে বাংলাদেশের স্কোয়াড এখন ১৩ জনের। সেখান থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আগামীকালের ম্যাচে বাদ পড়বেন দুইজন। বাকি ১১ জন নামবেন খেলতে।

আজ (১ নভেম্বর) ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো জানিয়েছেন স্কোয়াডে ক্রিকেটার সংখ্যা কমে গেলেও চিন্তিত নন তিনি। বরং তিনি জানিয়েছেন তাদের ভান্ডারে পর্যাপ্ত ক্রিকেটার আছে।

আরও ব্যাক আপ ক্রিকেটার নেওয়া যেতো কিনা এই প্রশ্নের উত্তরে ডোমিঙ্গো বলেন, ‘আমি যেমনটি আগে বলেছি ঘটনা ঘটার পর যেকোন কিছু ভালোভাবে দেখা যায়। আমরা এখানে দুই বাড়তি ব্যাটসম্যান ও দুই বাড়তি ফাস্ট বোলার নিয়ে এসেছি। আমাদের বাড়তি অফ স্পিনার ছিল, দুজন উইকেটরক্ষকও ছিল।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের মত দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচেও খেলা হচ্ছে না নুরুল হাসান সোহানের। সাকিব আল হাসান তো থাকছেন না ই। সেক্ষেত্রে সৌম্য সরকার ও শামীম হোসেনের একাদশে থাকার নিশ্চয়তা দিয়ে রাখলেন রাসেল ডোমিঙ্গো।

রাসেল ডোমিঙ্গো বলেন, ‘আমি এখনো মনে করি শেষ দুই ম্যাচের জন্য আমাদের ভান্ডারে পর্যাপ্ত খেলোয়াড় আছে। আগামীকালের ম্যাচের জন্য সোহান ফিট হবে না। আমাদের সাথে ব্যাক আপ ব্যাটসম্যান হিসাবে শামীম হোসেন ও সৌম্য সরকার আছেন।’

‘আগামীকালের প্লেইং ইলেভেনে এই দুইজন অবশ্যই থাকবেন। সুতরাং আমি মনে করি না আমাদের আরও ব্যাক আপ প্লেয়ার আনার দরকার ছিল। আমাদের সবরকম ক্রিকেটার আছে যাদের দিয়ে শেষ দুই ম্যাচ আমরা খেলতে পারব।’

আগামীকাল বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪ টায় আবু ধাবিতে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ব্যর্থতার দায় আইপিএলের কাঁধে দিলেন বুমরাহ!

Read Next

ভারতের ব্যর্থতায় হতাশ আজহার, শোয়েব, ইনজামাম

Total
26
Share