ঘরের মাঠে ভালো উইকেটের বিকল্প দেখছেন না হাবিবুল বাশার

বাশার

মরুর বুকে চলছে চার ছক্কার ফুলঝুরি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসর জমে উঠেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। প্রতিটি দল প্রতিদিন লিখে চলেছে নতুন নতুন রেকর্ডের গল্প। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে একজন ছাপিয়ে যাচ্ছে আরেকজনকে। তবে টিম বাংলাদেশ হয়তো ভুলে যেতে চাইবে এই টুর্নামেন্টের ব্যর্থতার গল্পগুলোকে।

ওপেনাররা রান পাচ্ছেন না, নাইম শেখ রানের দেখা পেলেও তৈরি হচ্ছে না বড় কোনো জুটি। পাওয়ার প্লেতে রান না তুলতে পারায় শেষ পর্যন্ত ভালো স্কোর করতে ব্যর্থ টিম বাংলাদেশ। স্লগ ওভারও কাজে লাগাতে ব্যর্থ বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলছেন, ‘বাংলাদেশে কোনো পাওয়ার হিটার নেই।’ তবে কেন নেই কিংবা এ থেকে বের হওয়ার উপায় জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। ঘরের মাঠে ভালো উইকেটের বিকল্প নেই বলছেন সুমন।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৫ ম্যাচের টি টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজন করে বিসিবি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জয় লাভ করে টিম বাংলাদেশ।

তবে বিপত্তি বাধে মিরপুরের স্লো এন্ড লো উইকেট নিয়ে। এধরণের স্লো এন্ড লো উইকেটে কখনোই টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ভালো প্রস্তুতি হতে পারে না এ নিয়ে অনেক সমালোচনা হলেও বলা হয় জয়ের অভ্যাস দলকে উজ্জীবিত করবে। কেক কেটেও জয় উদযাপন করে টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে অদর্শ প্রস্তুতি যে হয় নি তা টিম বাংলাদেশ বুঝতে পারে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে।

গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচেই স্কটল্যান্ডের কাছে হেরে যায় টিম বাংলাদেশ। এই পরাজয়ের পর বিসিবি সভাপতি থেকে শুরু করে দর্শক তীব্র সমালোচনা করে খেলোয়াড়দের এপ্রোচ নিয়ে। তা ভালোভাবে নিতে পারে নি ক্রিকেটাররা। জন্ম নেয় নানা অভিমানের যা খেলোয়াড়দের পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনেই পরিষ্কার হয়ে যায়।

ওমান ও পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে জিতে সুপার টুয়েলভে উঠলেও শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিনটি ম্যাচ খেললেও জয়ের দেখা পায় নি বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয়ের কাছে থাকলেও ভুলের কারণে ম্যাচ হারে বাংলাদেশ।

স্লো এন্ড লো উইকেটে খেলতে খেলতে বড় শট খেলার প্রবনতায় হারিয়ে ফেলেছে টিম বাংলাদেশ। বারবারই আউট হচ্ছেন ভুল শট সিলেকশনে। বিলিয়ে দিয়ে আসছে নিজের উইকেট।

বাংলাদেশ ব্যাটারদের ব্যর্থতা নজরে এসেছে টিমের সাথে থাকা নির্বাচক হাবিবুল বাশারের। এ ব্যর্থতা থেকে মুক্তির উপায়ও বলে দিয়েছেন এই সাবেক অধিনায়ক। সুমনের মতে ঘরের মাঠে ভালো উইকেটের বিকল্প নেই। যেখানে নির্দ্বিধায় সাহসী শট খেলতে পারবেন ব্যাটাররা এতে করে দ্রুত রান তোলার চর্চাটা থাকবে।

তিনি বলেন, ‘যদি আমরা এই ফরম্যাটে ভালো করতে চাই, তাহলে ঘরের মাঠে ব্যাটিং সহায়ক উইকেট বানাতে হবে। আমাদের ঘরোয়া টুর্নামেন্টেগুলোতে এক উইকেট বারবার ব্যবহার হচ্ছে, তাই উইকেট ভালো থাকছে না। তাই আমরা পাওয়ার হিটার পাচ্ছি না। সেকারণে টুর্নামেন্টে ব্যাটিং সহায়ক উইকেট বানাতে হবে।’

টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ দলের সবচেয়ে ব্যর্থতার জায়গা হল পাওয়ার প্লে ও স্লগ ওভারের ব্যাটিং ব্যর্থতা। এনিয়ে বাশার বলেন, ‘আমাদের সবচেয়ে দুঃশ্চিন্তার জায়গা হল ব্যাটিং। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ বাদে ব্যাটাররা আশানুরূপ স্কোর করতে ব্যর্থ হয়েছে। বড় টুর্নামেন্টে ভালো করতে হলে পাওয়ার প্লেতে ভালো ব্যাটিং করতে হবে, আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘শেষের দিকে পাওয়ার হিটিংয়ে আমরা ব্যর্থ হচ্ছি ও লোয়ার অর্ডারে ভালো পাওয়ার হিটার দরকার। ডেথ ওভারে প্রতি ওভারে ১০ থেকে ১২ রান করে তুলতে পাওয়ার হিটিংয়ে জোর দিতে হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

কোহলির সব রেকর্ড নিজের দখলে নিচ্ছেন বাবর আজম

Read Next

বিশ্বকাপ মিশন শেষ সাকিব আল হাসানের

Total
1
Share