হারের হ্যাটট্রিক দেখল বাংলাদেশ

featured updated 1

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে এসে জয়ের দেখা পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশকে ৩ রানে হারিয়ে স্বস্তির জয় কাইরন পোলার্ডদের। রোমাঞ্চকর জয়ে সেমি ফাইনালের আশা টিকে রইল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। অপরদিকে হারের হ্যাটট্রিক দেখল বাংলাদেশ।

টস হেরে আগে ব্যাট করে ১৪২ রানের বেশি করত পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে ১৩৯ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস। শেষ ওভারের নাটকীয়তায় ৩ রানের অবিশ্বাস্য জয় পেল উইন্ডিজ।

১৪৩ রানের সহজ টার্গেটে ওপেন করতে আসেন সাকিব আল হাসান। যা তাঁর আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে প্রথম ওপেন। কিন্তু ওপেনিংয়ে অভিষেকটা খুব একটা সুখকর হয়নি সাকিবের। আন্দ্রে রাসেলের শিকার হয়ে ফেরার আগে ৯ রান করেন সাকিব। থিতু হয়েও ব্যর্থ মোহাম্মদ নাইম (১৭)। পাওয়ার প্লে-তেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বসে বাংলাদেশ।

এরপর লিটন-সৌম্যর ব্যাটে এগিয়ে যেতে থাকে বাংলাদেশ। সৌম্য মারমুখী হলেও লিটন খেলেন দেখে-শুনে। তবে ব্যক্তিগত ১৭ রানে সৌম্য সরকার আকিল হোসেনের শিকার হলে ভাঙে ৩১ রানের জুটি। ফের আরও একবার ব্যর্থ মুশফিকুর রহিম। রবি রামপলের বলে উইকেট বিলিয়ে আসেন ৮ রানে থাকা মুশফিক। ১৯তম ওভারের শেষ বলে লিটন দাস ফেরেন প্যাভিলিয়নে। ৪৩ বলে ৪৪ রানের ইনিংস খেলেন লিটন।

শেষ ওভারে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ১৩ রান। কোন বাউন্ডারিই হাঁকাতে পারেননি উইকেটে থাকা অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আন্দ্রে রাসেলের করা ওভারে কেবল ৯ রান নেয় বাংলাদেশ। ৩ রানের পরাজয় বাংলাদেশের। ২৪ বলে ৩১ করে অপরাজিত থাকেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

এর আগে শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সেরা একাদশে দুই পরিবর্তন। ফিরলেন সৌম্য, তাসকিন। অধিনায়কের সিদ্ধান্তের সঠিক ব্যবহার করলেন মুস্তাফিজ, মেহেদী। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে মুস্তাফিজ বল হাতে এসেই দেখালেন ঝলক। এভিন লুইসকে (৬) মুশফিকের হাতে ক্যাচ বানিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম ব্রেকথ্রু এনে দিলেন দ্য ফিজ। ক্রিস গেইলকে মাত্র ৪ রানে রেখে বোল্ড করেন মেহেদী হাসান। ১৮ রান স্কোরবোর্ডে তুলতেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বসে উইন্ডিজ।

শিমরন হেটমায়েরকেও বড় ইনিংস খেলতে দেননি মেহেদী হাসান। ব্যক্তিগত ৯ রানে মেহেদীর বলে লং অফে সৌম্যর হাতে ক্যাচ তুলেন হেটমায়ের। ইনিংসের ১৩তম ওভারে রিটায়ার্ড আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেন কাইরন পোলার্ড। ১৬ বল খেলে ৮ রানের বেশি পাননি পোলার্ড। কোন বল খেলার আগেই তাসকিনের জুতার স্পর্শে রান আউট হয়ে ফিরতে হয় আন্দ্রে রাসেলকে।

১৯তম ওভারের প্রথম দুই বলে দুই সেট ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দেন শরিফুল ইসলাম। নিকোলাস পুরান ২২ বলে করেন ৪০ রান। অভিষিক্ত রোস্টন চেজ ৪৬ বলে ৩৯ রানের ইনিংস খেলে ফিরেন। ওভারের পঞ্চম বলে জেসন হোল্ডারের সহজ ক্যাচ ছেড়ে দেন আফিফ হোসেন। ডোয়াইন ব্রাভোকে (১) ১৯তম ওভারের প্রথম বলেই আউট করেন মুস্তাফিজ। কিন্তু এই ওভারে ১৯ রান খরচ করেন মুস্তাফিজ। পোলার্ড আবার ব্যাট হাতে নেমে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন। জেসন হোল্ডার ৫ বলে ১৫ রানে অপরাজিত। ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রানে থামে উইন্ডিজের ইনিংস।

বল হাতে বাংলাদেশের হয়ে দুটি করে উইকেট নেন মুস্তাফিজ, মেহেদী ও শরিফুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ওয়েস্ট ইন্ডিজঃ ১৪২/৭ (২০ ওভার) গেইল ৪, লুইস ৬, হেটমায়ের ৯, চেজ ৩৯, পোলার্ড ১৪*, পুরান ৪০, হোল্ডার ১৫*; মেহেদী ৪-০-২৭-২, শরিফুল ৪-০-২০-২, মুস্তাফিজ ৪-০-৪৩-২

বাংলাদেশঃ ১৩৯/৫ (২০ ওভার) নাইম ১৭, সাকিব ৯, লিটন ৪৪, সৌম্য ১৭, মুশফিক ৮, মাহমুদউল্লাহ ৩১*; রামপল ৪-০-২৫-১, হোল্ডার ৪-০-২২-১, রাসেল ৪-০-২৯-১, আকিল ৪-০-২৪-১, ব্রাভো ৪-০-৩৬-১

ফলাফলঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩ রানে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ নিকোলাস পুরান (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

পাকিস্তানের বিপক্ষে হোম সিরিজেও খেলা হচ্ছে না সাইফউদ্দিনের

Read Next

ইশান কিশানকে ভারতের একাদশে দেখতে চান সালমান বাট

Total
5
Share