আফ্রিদির স্পেলকে ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট বলছেন রিজওয়ান

আফ্রিদির স্পেলকে ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট বলছেন রিজওয়ান

গতকাল রবিবার (২৪ অক্টোবর) সুপার টুয়েলভের গ্রুপ ২ এর হাই ভোল্টেজ ম্যাচে ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে টুর্নামেন্টের উড়ন্ত সূচনা করলো পাকিস্তান। এই জয় ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের বিশ্বকাপের প্রথম জয় ও টি টোয়েন্টিতে ভারতের প্রথম ১০ উইকেটের পরাজয়। ম্যাচ শেষে এই জয়ে শাহীন শাহ আফ্রিদির বোলিং স্পেলকে টার্নিং পয়েন্ট বলেছেন পাকিস্তান উইকেট কিপার ব্যাটার মোহাম্মদ রিজওয়ান।

পাকিস্তান পেসার আফ্রিদি ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মাকে শূন্য রানে নিজের চতুর্থ বলেই ফেরান। এরপর তিনি লোকেশ রাহুল ও ভারত অধিনায়ক কোহলিকে সাজঘরে ফেরার পথ দেখান। চার ওভারে ৩১ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচসেরা হয় শাহীন আফ্রিদি। তার নিয়ন্ত্রিত বোলিং এ ভারতকে ১৫১ রানে থামাতে সক্ষম হয় পাকিস্তান।

ম্যাচশেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে শাহীন শাহ আফ্রিদিকে পাশে রেখে তার প্রশংসায় মাতেন ম্যাচে ৭৮* রান করা রিজওয়ান।

রিজওয়ান বলেন, ‘ শাহীন আমাদের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উইকেট পেয়েছে এবং এটিই আমাদের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে ধরা দেয়।’

ব্যাটিং এ জবাব দিতে নেমে পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম ৫২ বলে ছয়টি ৪ ও ২ ছক্কায় ৬৮ রান করে অপরাজিত থাকেন ও মোহাম্মদ রিজওয়ান ৫৫ বল খেলে ছয়টি ৪ ও ৩ ছক্কায় ৭৮ রান করে অপরাজিত থাকেন।

জয় নিয়ে রিজওয়ান বলেন, ‘এই বিজয় আমাদের জাতির জন্য উপহার। সমগ্র পাকিস্তান ও আমাদের সকল মানুষকে অভিনন্দন। কারণ আমরা এই জয়ের জন্য অপেক্ষা করছিলাম।’

তিনি আরও বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে এটিই ছিল আমার প্রথম খেলা। আমি টেলিভিশনে সব ভারত পাকিস্তান ম্যাচ দেখতাম এবং আমাদের ভুল গুলো চিহ্নিত করে রাখতাম। তবে আজকের খেলাটি দুর্দান্ত ছিল এবং শাহীনের উইকেট পাওয়ার পর আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম যে আমরা জিতব।’

ম্যাচ জয়ের নায়ক শাহীন বলেন, জয়টি টুর্নামেন্টে আমাদের দারুণ সূচনা এনে দিয়েছে যেখানে সুপার টুয়েলভের গ্রুপের শীর্ষ দুই দল সেমিফাইনালে যাবে। আমরা জানতাম যে আমাদের এই ম্যাচটি জিততে হবে কারণ আমরা ভারতের বিপক্ষে বিশ্বকাপে কোনও ম্যাচ জিততে পারি নি। তাই এই জয়ে আমরা খুবই আনন্দদায়ক।

শাহীন আরও বলেন, ‘ড্রাই পিচে সুইং পাওয়ায় অধিনায়ক আমাকে বোলিং এ আনার পরিকল্পনা করেন। রোহিতের বিপক্ষে আমার পরিকল্পনা ছিল এবং আমি তাকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলি এটি ছিল আমাদের শুরু’

ম্যাচের ১৯ তম ওভারে কোহলির ব্যক্তিগত ৫৭ রানের সময় আউট করেন। কোহলিকে নিয়ে শাহীন বলেন, ‘কোহলি একজন বিশ্বমানের ব্যাটার। কিন্তু আমি জানি যে সে বাবরের মতো ব্যাট করে এবং আমি তাকে সেভাবেই বল করি যেমনটা আমি বাবরকে নেটে বল করি। এতেই সক্ষম হই।’

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ২৬ অক্টোবর শারজাহতে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান এবং ৩১ অক্টোবর দুবাইয়ে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ভারত।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ভারতকে উড়িয়ে দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করল পাকিস্তান

Read Next

বড় জয়ের পর হরভজনকে শোয়েবের খোঁচা

Total
1
Share