চট্টগ্রামের স্মৃতি শারজাতে, খালি হাতে বাড়ি ফিরছে নেদারল্যান্ডস

Screenshot 20211022 220801

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচটি কোনো দিক থেকেই অর্থবহ ছিলো না। নিয়ম রক্ষার ম্যাচটিতে শ্রীলঙ্কান বোলারদের বিপক্ষে দাঁড়াতেই পারেনি নেদারল্যান্ডস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন সংগ্রহের রেকর্ড গড়ে ডাচরা ম্যাচ হেরেছে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে নিশ্চিত হয় ‘এ’ গ্রুপ থেকে সুপার টুয়েলভে যাচ্ছে প্রথম বার বিশ্বকাপ খেলতে আসা নামিবিয়া। ঐ ম্যাচের ফল যাই হতো তাতে শ্রীলঙ্কা-নেদারল্যান্ডস ম্যাচে প্রভাব পড়তো না একটুও।

কারণ প্রথম দুই ম্যাচ জিতে আগেই সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত ছিলো শ্রীলঙ্কার। অন্যদিকে প্রথম দুই ম্যাচ হেরে আগেই বিদায় নেয় নেদারল্যান্ডস।

এমন নিষ্প্রাণ ম্যাচে ২০১৪ সালের চট্টগ্রাম স্মৃতি ফিরিয়ে আনে লঙ্কান ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, লাহিরু কুমারা, মাহিশ থিকশানারা। আগে ব্যাট করা নেদারল্যান্ডস অলআউট ৪৪ রানে। লক্ষ্য তাড়ায় ২ উইকেট হারালেও শ্রীলঙ্কার লাগেনি ৭.১ ওভারের বেশি।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কার পেস, স্পিনে অসহায় আত্মসমর্পণ নেদারল্যান্ডস। শুরুটা অবশ্য রান আউটে, আগের দুই ম্যাচে দারুণ ব্যাট করা ওপেনার ম্যাক্স ও’ডাউড (২) আজ ব্যর্থ। এরপর শুরু মাহিশ থিকশানা ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার স্পিন জাদু।

আর তাতেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে ডাচরা। হাসারাঙ্গা-থিকশানার সাথে পেসার লাহিরু কুমারা ও দুশমান্থ চামিরা যোগ দিলে অলআউট হতে হয় মাত্র ৪৪ রানে। মাত্র একজন ব্যাটসম্যান ছুঁয়েছেন দুই অঙ্ক, ৯ বলে সর্বোচ্চ ১১ রান কলিন অ্যাকারম্যানের ব্যাটে।

শ্রীলঙ্কার হয়ে সর্বোচ্চ ৩ টি করে উইকেট পেসার লাহিরু কুমারা ও লেগ স্পিনার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার। দুইটি উইকেট নেন ডানহাতি অফ স্পিনার মাহিশ থিকশানা, একটি শিকার পেসার দুশমান্থ চামিরার।

নেদারল্যান্ডসের ৪৪ রান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহ। ২০১৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই তাদের করা ৩৯ রান আছে তালিকার শীর্ষে। ঐ ম্যাচে ১০.৩ ওভার টিকলেও আজ গুটিয়ে গেছে মাত্র ১০ ওভারে।

৪৫ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ৭ রানেই ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কাকে (০) হারায় শ্রীলঙ্কা। তিন নম্বরে নামা চারিথ আশালঙ্কাকে (৬) নিয়ে বাকি পথ অনায়েসেই পাড়ি দিচ্ছিলেন কুশল পেরেরা। কিন্তু জয় থেকে ১৪ রান দূরে থাকতেই আউট হন আশালঙ্কা।

তবে তাতেও লঙ্কানদের বড় জয়ে প্রভাব পড়েনি। ৭.১ ওভারে লক্ষ্যে পৌঁছানোর পথে ২৪ বলে ৬ চারে ৩৩ রানে অপরাজিত পেরেরা। ১০ বলে ৬ রানে অপরাজিত অভিষ্কা ফার্নান্দো।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

নেদারল্যান্ডসঃ ৪৪/১০ (১০ ওভার) মাইবার্গ ৫, ও’ডাউড ২, কুপার ৯, অ্যাকারম্যান ১১, লেডে ০, এডওয়ার্ড ৮, মেরেও ০, সিলার ২, ক্ল্যাসেন ১*, গ্লোভার ০, মেকেরেন ০; করুণারত্নে ১-০-৭-০, চামিরা ২-০-১৩-১, থিকশানা ১-০-৩-২, লাহিরু ৩-১-৭-৩, হাসারাঙ্গা ৩-০-৯-৩।

শ্রীলঙ্কাঃ ৪৫/২ (৭.১ ওভার), নিশাঙ্কা ০, পেরেরা ৩৩*, আশালঙ্কা ৬, অভিষ্কা ২*;ক্ল্যাসেন ২.১-০-১২-০, গ্লোভার ৩-০-১২-১, মেকেরেন ২-০-২০-১।

ফলাফলঃ শ্রীলঙ্কা ৮ উইকেটে জয়ী।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে সুপার টুয়েলভে নামিবিয়া

Read Next

ভারত ও ইংল্যান্ডকে ফেভারিট বলছেন শেন ওয়ার্ন

Total
8
Share