শচীন-আফ্রিদিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ স্বপ্নের মতো লাগে রাশিদ খানের

শচীন-আফ্রিদিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ স্বপ্নের মতো লাগে রাশিদ খানের

শচীন টেন্ডুলকার, অনিল কুম্বলে, শহীদ আফ্রিদিকে ক্রিকেটে নিজের হিরো হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন আফগানিস্তানের লেগ স্পিনার রাশিদ খান। আফগানিস্তান যখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের অস্তিত্ব অর্জনের চেষ্টা করছিল, তখন থেকে এমন কিংবদন্তি ক্রিকেটারদের মনে প্রাণে ধারণ করে আসছেন তিনি।

রাশিদ আরও জানান, তিনি টিভিতে শচীন, কুম্বলে ও আফ্রিদিদের খেলা দেখতে বড্ড ভালোবাসতেন। এ তিন ক্রিকেটারদের সাথে খেলার স্বপ্নও দেখতেন।

লেগ স্পিনের জন্য সুপ্রসিদ্ধ হলেও ব্যাটিংয়ে বড় ছক্কা হাঁকাতে জানেন রাশিদ। টেন্ডুলকারের ব্যাটিং দেখেই পাওয়ার হিটিংয়ের প্রতি আকৃষ্ট হয়েছেন তিনি।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে রাশিদ বলেন, ‘ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রে আমি সবসময় শচীন টেন্ডুলকারের ব্যাটিং দেখতে ভালোবাসতাম। তখনকার সময় আমার মধ্যে ছক্কা মারার প্রবণতা ছিল না। সামনে এসে খেলতে, সিংগেলস এবং বাউন্ডারি মারতে পছন্দ করতাম। আমি জানিনা কেন ও কীভাবে আমার ব্যাটিংয়ের ধারা পরিবর্তিত হয়েছে এবং এখন আমি ওভার বাউন্ডারির দিকে বেশি নজর দিচ্ছি।’

‘বোলিংয়ের দিক দিয়ে অনিল কুম্বলে ও শহীদ আফ্রিদি আমার পছন্দের খেলোয়াড়। নিজের ঘরে ভাইদের সাথে খেলার সময়ও কুম্বলে ও আফ্রিদির মত জোরে লেগ স্পিন করতাম। তাদের খেলা টিভিতে দেখতে ভালো লাগতো। এখনও ইউটিউবে তাদের বোলিং দেখি। অনেক কিছু জানতে পেরেছি এবং এখনও শিখছি।’

রাশিদ আরও জানান, তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার হওয়ার আশা ছিল না, কেননা তখন আফগানিস্তানে ক্রিকেটীয় পরিবেশ উন্নত ছিল না। তবে এ তিন ক্রিকেটার সাক্ষাৎ তার কাছে স্বপ্নের মত ছিল।

‘আমি সবসময় তাদের সাথে খেলার স্বপ্ন দেখতাম। আফগানিস্তানে কোন ভালো দল ছিল না তখন এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার হওয়ার আশাও ছিল না। কিন্তু কুম্বলে, শচীন ও আফ্রিদিদের খেলা দেখে মনোরঞ্জন পেতাম। সময়টাও দারুণ ছিল। এখন তাদের সাথে সাক্ষাত করতে পারি। আমার কাছে স্বপ্নের মত মনে হয়,’ বলে শেষ করেন রাশিদ।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার টুয়েলভে স্কটল্যান্ড

Read Next

আইপিএলের দল পাবার দৌড়ে রনবীর-দীপিকাও

Total
35
Share