দেশের সাথে তামিমের অভিমান, পাপন বলছেন এমন আবেগের জায়গা নেই

দেশের সাথে তামিমের অভিমান, পাপন বলছেন এমন আবেগের জায়গা নেই

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল ঘোষণার আগেই নিজেকে সরিয়ে নেন তামিম ইকবাল। এক ভিডিও বার্তায় তামিম নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করেছেন। মূলত চোট ও বিশ্রামের কারণে অনেকদিন দলের সাথে না থাকা তামিম বিশ্বকাপ স্কোয়াডে সুযোগ পেলে বাদ পড়তে হত নিয়মিত কাউকে। সে দিক বিবেচনায় তামিম নিজেই প্রশ্নের জায়গা রাখেননি। তবে অন্দর মহলের কানাঘুষা অভিমানেই দেশ সেরা ওপেনারের এমন কান্ড। আর সেটি সত্যি হলে বিসিবি সভাপতি বলছেন এমন আবেগের জায়গায় নেই।

গত বছর মার্চে মিরপুরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন তামিম। এরপর টানা ১৭ টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে খেলেননি এই বাঁহাতি ওপেনার। চলতি বছর জিম্বাবুয়ের পর অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজ মিস করেন চোটের কারণে।

তবে বিশ্বকাপ দল ঘোষণার আগে টিম ম্যানেজমেন্টের সভায় তাকে নিয়ে টানাটানি হয় বলে গুঞ্জন। কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো সহ অনেকেই চাননি তামিম এত ম্যাচ না খেলে সরাসরি বিশ্বকাপ দলে থাকেন। যা এ কান ও কান হয়ে তামিমের কানেও নাকি গিয়েছে।

আর সে কারণেই অভিমানে নিজেকে সরিয়ে নেন বলে জোর গুঞ্জন। যদিও নিজের ফেসবুক পেইজ থেকে দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় তামিম জানিয়েছেন তার কারণে নিয়মিত কোনো সদস্যের বাদ পড়াটা অন্যায় হবে বলেই নিজেকে সরিয়ে নিচ্ছেন।

এতদিন পর তামিম ইস্যুতে এসে আবারও কথা বলতে হল বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে। তামিম যে অভিমানে সরে দাঁড়িয়েছেন অনেকটা ঘুরিয়ে সেটাই বোঝানোর চেষ্টা ছিল পাপনের কণ্ঠে।

বিশ্বকাপ খেলতে বাংলাদেশ দল এখন ওমানে। বোর্ড কররাদের অনেকেই আছেন সেখানে। আজ (১৮ অক্টোবর) সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ওমানের রাজধানী মাসকাটে কথা বলেন বিসিবি সভাপতি পাপন। তিনি জানান শুধু তামিম নয়, অভিমানে আরও এক ক্রিকেটার খেলবেন না বলেও আগেই শুনেছেন।

তামিম ইস্যুতে তিনি বলেন, ‘একটা জিনিস আপনাদের বলতে পারি, তামিমের না খেলার ব্যাপারটা আপনারা জানার অনেক আগেই আমি জানি। এমনকি আমি ভেবেছিলাম আরও একজন খেলবে না। এরকম তথ্যও আমার কাছে ছিল। কিন্তু খেলছে। আমার কথা হচ্ছে এগুলা মনের মধ্যে রাখার তো কিছু নাই। খেললে খেলবে, না খেললে নাই। সোজা বলে দেবে।’

‘কিন্তু অভিমান করে বলে দেবে আমি খেলব না এটা আমার কাছে গ্রহণ যোগ্য না। কার সাথে অভিমান দেশের সাথে? এদেশেই তো থাকছে সে। এই ধরণের ইমোশনের আমার কাছে কোন জায়গা নেই। আমার কথা হচ্ছে কেউ খেলতে চাইলে খেলবে, না চাইলে খেলবে না। তবে একটা জিনিস সর্বশেষ বলে দিচ্ছি, যত ওপেনারই খেলুক না কেন তামিমের চেয়ে ভঅলো ওপেনার একটাও নাই।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ডাম্বুলায় শেষ ওভারের থ্রিলারে হারল টাইগার যুবারা

Read Next

জয়ের অপেক্ষায় ঢাকা, খুলনার হয়ে বাজিমাত বিজয়-মিরাজের

Total
65
Share