এমন দল নিয়েও শানাকার কাছে শ্রীলঙ্কা ‘লম্বা রেসের ঘোড়া’

এমন দল নিয়েও শানাকার কাছে শ্রীলঙ্কা 'লম্বা রেসের ঘোড়া'
Vinkmag ad

শ্রীলঙ্কার এবারের দলটি একদমই আনকোরা। অনভিজ্ঞ এই দলই কীনা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে লম্বা রেসের ঘোড়া, এমনটাই অভিমত লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকার। দলের গভীরতা এবং বৈচিত্র্যময় সমন্বয় শানাকার মনে আত্নবিশ্বাস বাড়িয়েছে।

১৮ অক্টোবর নামিবিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করবে লঙ্কানরা। এ-গ্রুপে অন্য দুইটি দল হচ্ছে নেদারল্যান্ডস এবং আয়ারল্যান্ড।

২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতা শ্রীলঙ্কা দলের অধিনায়কের মতে, তাদের বর্তমান স্কোয়াডে কিছু শক্তিশালী দিক রয়েছে, যা তাকে অনুপ্রাণিত করছে।

‘আপনি যদি দেখেন, আমাদের দলে অনেক বৈচিত্র্য এবং গভীরতা আছে। তরুণ ক্রিকেটারদের মাঝে আমি কিছু কার্যকরী দিক দেখতে পাই। একটাই সমস্যা, অনভিজ্ঞতা,’ ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে জানান শানাকা।

‘যদি আমাদের খেলোয়াড়রা সামর্থ্য অনুযায়ী সেরাটা দিতে পারি, তবে আমাদের দল টুর্নামেন্টে বহুদূর পথ যাবে। দীর্ঘসময় ধরে আমাদের সমর্থকেরা চাচ্ছে, শ্রীলঙ্কা যেন সফল হয়। আশা করি, আমরা তাদের গর্বিত করবো।’

গত কয়েক বছরে শ্রীলঙ্কার সীমিত ওভারের ক্রিকেটে জনপ্রিয় মুখ ছিলেন কুশল মেন্ডিস, ধানুশকা গুনাথিলাকা এবং নিরোশান ডিকওয়েলা। তবে জৈব সুরক্ষা বলয় অমান্য করায় নিষিদ্ধ আছেন তারা। তাদের পরিবর্তে মিডল অর্ডারে যারাই খেলেছেন, খুব কমই সফল হয়েছে শ্রীলঙ্কা।

এদিকে, গত মাসে ট্রেনিং ক্যাম্পে নিজেদের খেলোয়াড়দের নিয়ে কয়েকটি ম্যাচ খেলেছিল শ্রীলঙ্কা। মিডল অর্ডারে আভিষ্কা ফার্নান্ডো সফল হওয়ার পাশাপাশি লোয়ার অর্ডারে ফিনিশার হিসেবে স্বয়ং অধিনায়ক শানাকা ও চামিকা করুণারত্নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন।

‘গত কয়েক বছরে আমাদের পারফরম্যান্স উচ্চমার্গীয় ছিল না। তবে আমাদের স্কোয়াড বেশ শক্তিশালী। আইপিএল থেকে দুশমান্থ চামিরা ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ফিরে এসেছে। টপ অর্ডারে আছে কুশল পেরেরা। আভিষ্কা ফার্নান্ডো ৪ নাম্বারে ভালো করছে,’ বলেন শানাকা।

‘ব্যাটিং লাইনআপ আমরা ঠিক করেছি। কিছুটা পরিবর্তন এনেছি তাতে। আশা করি, ভালো ব্যালেন্স হয়েছে।’

এছাড়া কনসাল্টেন্ট কোচ হিসেবে দলে আছেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার মাহেলা জয়াবর্ধনে। তাকে এ পদে পাওয়ায় বেশ উৎফুল্ল শানাকা।

‘কয়েক বছরে কোচ হিসেবে জয়াবর্ধনে দারুণ ভূমিকা রাখছে। কৌশলগত দিক দিয়েও সে অসাধারণ। মাঠে সবসময় সে সমর্থন দিয়ে থাকে। সে এক্ষেত্রে সেরা। আমাদের জন্য তাকে পাওয়াটা অনেক উপকারী হয়েছে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দিনটি আমার ছিল: ক্রিস গ্রেভস

Read Next

অস্ট্রেলিয়ার নয়া নির্বাচক টনি ডোডেমেইড

Total
25
Share