দিনটি আমার ছিল: ক্রিস গ্রেভস

টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসরের গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের মুখোমুখি হয় স্কটল্যান্ড। মাঠের খেলায় দারুণ পারফর্ম করে বাংলাদেশের থেকে জয় ছিনিয়ে নিয়ে যায় স্কটল্যান্ড। শুরুতে টসে জিতে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ স্কটিশদেরকে ব্যাটিং এ আমন্ত্রণ জানান। বোলিং এ দারুণ শুরু পায় বাংলাদেশ ৫২ রানের মাথায় স্কটল্যান্ড তাদের ৬ ব্যাটারকে হারায় তবে এর পরের গল্পটা স্কটিশদের, গল্পটা ক্রিস গ্রেভসের। বিপর্যয় কাটিয়ে দলকে লড়াই করার মতো স্কোর এনে দেন তিনি। শেষ ৪ ওভারে স্কটল্যান্ড স্কোর বোর্ডে যোগ করে ৪০ রান। ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ দল শুধু হতাশার গল্পই লিখে রেখে যায়। শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বিপাকে পড়ে টিম বাংলাদেশ। সাকিব মুশফিক প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা চালালেও মন্থর ব্যাটিং এ আর শেষ রক্ষা হয় নি৷ ক্রিস গ্রেভসের মতো কেউ ঘুরে দাড়াতে পারে নি। ম্যাচ শেষে ক্রিস গ্রেভস বলেন, “আমরা একটি কঠিন পরিস্থিতিতে ছিলাম। চিন্তা ছিল পরিস্থিতি সামলে নিয়ে সেখান থেকে আমরা কতটা ভালো অবস্থানে যেতে পারি তা দেখা। এটা ভালো লাগছে যে আমিই সেই ব্যক্তি যে এটা করতে পেরেছি, অবদান রাখতে পেরেছি। বোর্ডে স্কোরের সাথে সাথে আমরা কিছু বল পেয়েছি যেগুলোতে দারুণভাবে পাওয়ার হিটিং করতে পেরেছি। বাড়ায় আমরা বোলিং এর জন্য পুজি পেয়েছি। এতে আমরা আমাদের বোলিং লাইন আপ নিয়ে লড়াই করার মতো স্কোর পেয়ে যায়, এবং আমরা এটি করতে পেরেছি।দুর্দান্ত খেলে হয়েছে। আজকের দিনটি আমার দিন ছিলো”। আগামী ম্যাচ গুলোতেও ভালো করার প্রত্যয় ছিল গ্রেভসের কন্ঠে। তিনি বলেন, “সামনে আমাদের মধ্যে থেকে যে কেউ ভালো করতে পারে। আমি অনেক খুশি যে আজ আমি অবদান রাখতে পেরেছি।স্কটিশ ক্রিকেটার হিসেবে অবিশ্বাস্য। আমি আরও অনেক শব্দ যোগ করতে পারি, উপভোগ্য। আমরা একটি করে দিন নিয়ে চিন্তা করবো এবং আশা করি সামনে আরও অনেক জয় আসবে”। ফেভারিট বাংলাদেশকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের শুভ সূচনায় করলো স্কটল্যান্ড।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসরের গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের মুখোমুখি হয় স্কটল্যান্ড। মাঠের খেলায় দারুণ পারফর্ম করে বাংলাদেশের থেকে জয় ছিনিয়ে নিয়ে যায় স্কটল্যান্ড।

শুরুতে টসে জিতে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ স্কটিশদেরকে ব্যাটিং এ আমন্ত্রণ জানান। বোলিং এ দারুণ শুরু পায় বাংলাদেশ ৫২ রানের মাথায় স্কটল্যান্ড তাদের ৬ ব্যাটারকে হারায় তবে এর পরের গল্পটা স্কটিশদের, গল্পটা ক্রিস গ্রেভসের। বিপর্যয় কাটিয়ে দলকে লড়াই করার মতো স্কোর এনে দেন তিনি। শেষ ৪ ওভারে স্কটল্যান্ড স্কোর বোর্ডে যোগ করে ৪০ রান।

ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ দল শুধু হতাশার গল্পই লিখে রেখে যায়। শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বিপাকে পড়ে টিম বাংলাদেশ। সাকিব মুশফিক প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা চালালেও মন্থর ব্যাটিং এ আর শেষ রক্ষা হয় নি৷ ক্রিস গ্রেভসের মতো কেউ ঘুরে দাড়াতে পারে নি।

ম্যাচ শেষে ক্রিস গ্রেভস বলেন, ‘আমরা একটি কঠিন পরিস্থিতিতে ছিলাম। চিন্তা ছিল পরিস্থিতি সামলে নিয়ে সেখান থেকে আমরা কতটা ভালো অবস্থানে যেতে পারি তা দেখা। এটা ভালো লাগছে যে আমিই সেই ব্যক্তি যে এটা করতে পেরেছি, অবদান রাখতে পেরেছি। বোর্ডে স্কোরের সাথে সাথে আমরা কিছু বল পেয়েছি যেগুলোতে দারুণভাবে পাওয়ার হিটিং করতে পেরেছি। বাড়ায় আমরা বোলিং এর জন্য পুজি পেয়েছি। এতে আমরা আমাদের বোলিং লাইন আপ নিয়ে লড়াই করার মতো স্কোর পেয়ে যাই, এবং আমরা এটি করতে পেরেছি।দুর্দান্ত খেলা হয়েছে। আজকের দিনটি আমার দিন ছিলো।’

আগামী ম্যাচ গুলোতেও ভালো করার প্রত্যয় ছিল গ্রেভসের কন্ঠে। তিনি বলেন, ‘সামনে আমাদের মধ্যে থেকে যে কেউ ভালো করতে পারে। আমি অনেক খুশি যে আজ আমি অবদান রাখতে পেরেছি।স্কটিশ ক্রিকেটার হিসেবে অবিশ্বাস্য। আমি আরও অনেক শব্দ যোগ করতে পারি, উপভোগ্য। আমরা একটি করে দিন নিয়ে চিন্তা করবো এবং আশা করি সামনে আরও অনেক জয় আসবে।’

ফেভারিট বাংলাদেশকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের শুভ সূচনায় করলো স্কটল্যান্ড।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের চোখে ‘টার্নিং পয়েন্ট’ যা

Read Next

এমন দল নিয়েও শানাকার কাছে শ্রীলঙ্কা ‘লম্বা রেসের ঘোড়া’

Total
1
Share