ভুল চিকিৎসায় মোশাররফ রুবেলের অবস্থার অবনতি

ভুল চিকিৎসায় মোশাররফ রুবেলের অবস্থার অবনতি

ক্রিকেটার মোশাররফ রুবেল দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছেন ব্রেইন টিউমারে। দফায় দফায় চিকিৎসা করিয়ে উন্নতির পথে থাকলেও সম্প্রতি আবার মাথা চাড়া দিয়েছে। আর সে কারণে হাসপাতালে ভর্তি হলে উল্টো ভুল চিকিৎসায় অবস্থার হয়েছে অবনতি। গতকাল আইসিইউতে নিয়ে যাওয়ার পর এখনো সেখানেই আছেন।

২০১৯ সালে প্রথম ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে জাতীয় দলের হয়ে খেলা এই বাঁহাতি স্পিনারের। পরে চিকিৎসা, সার্জারি ও কেমো থেরাপীতে প্রায় সুস্থই হয়ে উঠেন। তবে চলতি বছর জানুয়ারিতে আবারও তার ব্রেইনে টিউমারের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়। এরপর শুরু হয় পুনরায় কেমোথেরাপী দেওয়া।

গতকাল (১৩ অক্টোবর) তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের আইসিইউতে নেওয়া হয়। এখনো আইসিইউতেই আছেন ৩৯ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। পরিবারের দাবি ভুল চিকিৎসার কারণেই এ দফায় রুবেলের অবস্থার অবনতি হয়েছে।

তার স্ত্রী ফারহানা চৈতি আজ (১৪ অক্টোবর) এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘এখনও আইসিইউতেই আছেন। তবে আগের চেয়ে কিছুটা স্ট্যাবল অবস্থায় রয়েছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ভুল চিকিৎসার বিষয়টা স্বীকার করছে না। উনি যেই চিকিৎসকের অধীনে ছিলেন, তিনি গতকাল ছুটিতে ছিলেন। হাসপাতালে যাওয়ার পর ট্রিটমেন্ট শুরু হতে দেরি করেছিলো তারা। সে সময় কোনো খাবার বা স্যলাইন কিছুই দেয়া হয়নি। অনেকক্ষণ ধরে কিছু না খাওয়ায় ডিহাইড্রেশন হয়ে দুর্বল হয়ে গিয়েছিলেন।’

এখন জ্ঞান ফিরলে বাসায় নিতে অন্তত আরও একদিন অপেক্ষা করতে হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি যোগ করেন, ‘একটা কেমোও নিয়েছিলেন আগেরদিনই, সেটার জন্য শরীরে এমনিতেই কিছু কমপ্লিকেশন ছিল। জুনিয়র চিকিৎসক যিনি ছিলেন, তিনি ঘুমের ঔষধ দিয়েছিলেন। এমনিতেই দুর্বল শরীর, কেমো নিয়েছিলেন, তার ওপর ঘুমের ঔষধ দেয়া হয়েছিল, সে কারণেই জ্ঞান ফিরছিল না। এখন জ্ঞান ফিরেছে। আরও একদিন আইসিইউতে থাকা লাগবে। এরপর আশা করছি বাসায় নিয়ে যেতে পারবো।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাংলাদেশ সিরিজের জন্য শ্রীলঙ্কার অনূর্ধ্ব-১৯ দল ঘোষণা

Read Next

আর্চারের চোখে ‘সেরা ৬’ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার যারা

Total
1
Share