রাশিদ খানের চোখে সেরা ‘পাঁচ’ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার যারা

রাশিদ খান

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে, আফগানিস্তানের স্পিন উইজার্ড রাশিদ খান বিশ্বের শীর্ষ পাঁচ টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড়ের নাম বলেছেন। যেখানে রয়েছে দুই ভারতীয় ক্রিকেটার। একজন করে দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

আইসিসির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে রাশিদ খান তাঁর চোখে সেরা পাঁচ ক্রিকেটারের নাম বললেন। যেখানে রয়েছেন, ভিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, কেন উইলিয়ামসন, কাইরন পোলার্ড ও হার্দিক পান্ডিয়া। তবে টি-টোয়েন্টির সেরা পাঁচ ক্রিকেটারের মধ্যে নিজের নাম রাখেননি রশিদ খান। সামগ্রিক টি-টোয়েন্টি রেকর্ড সত্ত্বেও নিজেকে অন্তর্ভুক্ত করেননি এই অলরাউন্ডার।

রাশিদ খানের চোখে সেরা পাঁচ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটারঃ

ভিরাট কোহলিঃ

রাশিদ খানের তালিকার শীর্ষে আছেন ভারতীয় অধিনায়ক ভিরাট কোহলি। নিঃসন্দেহে টি-টোয়েন্টির অন্যতম সেরা অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান কোহলি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে কোহলির ৩১৫৯ -এর চেয়ে বেশি রান কেউ পায়নি।

রাশিদ খান ভিরাট কোহলির সামর্থ্য সুন্দরভাবে তুলে ধরেছেন। আইসিসির লাইভ দ্য গেম এর অ্যাম্বাসেডর রাশিদ খান বলেন,

‘আসলে উইকেটের উপর নির্ভর করে না, উইকেট যেটাই হোক না কেন, সে এমন একজন যে এগিয়ে যাবে এবং পারফর্ম করবে।’

কোহলি তাঁর চতুর্থ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অভিযানে ভারতের হয়ে যাওয়ার আগে গত দুটো ইভেন্টের প্রতিটিতে প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্টের মুকুট পেয়েছেন।

কেন উইলিয়ামসনঃ

নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন হলেন এই মুহূর্তে একমাত্র পরিণত ব্যাটসম্যান যিনি এক হাতে ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা রাখেন।

টেস্ট ও ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেও সমৃদ্ধ উইলিয়ামসন। ২১২টি টি-টোয়েন্টি খেলা কেন উইলিয়ামসনের সংগ্রহে আছে ৫৪২৯ রান। ৩৯টি ফিফটির সঙ্গে তিনি পেয়েছেন ১টি শতরানের ইনিংসও। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ড খেলবে নেতৃত্বে।

এবি ডি ভিলিয়ার্সঃ

এবি ডি ভিলিয়ার্স হলেন ক্রিকেট বিশ্বের ‘মি. ৩৬০’ ক্রিকেটার যিনি খেলার রং যেকোনো মুহূর্তে পাল্টাতে পারেন।

এখন পর্যন্ত ৩৪০টি টি-টোয়েন্টি খেলা ভিলিয়ার্স ৩৭.২৪ গড়ে সংগ্রহ করেছেন মোট ৯৪২৪ রান। ৪টি শতরানের ইনিংসের সঙ্গে তার ঝুলিতে আছে ৬৯টি ফিফটি। এক ইনিংসে সর্বোচ্চ সংগ্রহ ১৩৩* রান।

কাইরন পোলার্ডঃ

কাইরন পোলার্ড টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বিশ্বনন্দিত ক্রিকেটার। পোলার্ড মাঠে নামা মানেই ব্যাটে রানের ফুলঝুরি। বিশাল বিশাল ছক্কা গ্যালারিতে আছড়ে পড়া। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রাহক পোলার্ড। সঙ্গে বল হাতেও বেশ কার্যকরী। রয়েছে তাঁর দখলে অনন্য এক রেকর্ডও।

টি-টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে মোট ৫৬৮ ম্যাচ খেলেছেন এই ক্রিকেটার। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে পোলার্ডের নামের পাশে ১১ হাজারেরও (১১,২৩৬) বেশি রান রয়েছে। রানের হিসাবে তাঁর আগে কেবলই ক্রিস গেইলের নাম (১৪,২৭৬)। অনবদ্য ব্যাটিংয়ের সঙ্গে বল হাতে পোলার্ড শিকার করেছেন ৩০০। ব্যাট হাতে ১টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি হাঁকিয়েছেন ৫৬টি হাফ সেঞ্চুরি। স্ট্রাইকরেট ১৫২.৬২।

আসন্ন বিশ্বকাপে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক হিসেবেও দেখা যাবে পোলার্ডকে।

হার্দিক পান্ডিয়াঃ

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের বর্তমান সময়ে ভারতীয় দলের অন্যতম সেরা ফিনিশার হার্দিক পান্ডিয়া। আগ্রাসী অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া বিশ্বকাপে ভরসা জোগাচ্ছেন ভিরাট কোহালির ভারতকে।

হার্দিক হলেন সুপার স্ট্রাইকার যিনি যেকোনো বলকে অনায়াসে মাঠের বাইরে পাঠাতে সক্ষম। মোট ১৭০টি টি-টোয়েন্টি খেলা হার্দিক পান্ডিয়া সংগ্রহ করেন ২৭২৮ রান। এছাড়া বল হাতে শিকার করেছেন ১১০টি উইকেট।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বিশ্বকাপে ভারত দলের সঙ্গী আবেশ-ভেঙ্কটেশও

Read Next

বিনা পারিশ্রমিকে কোহলিদের সঙ্গী ধোনি, বিসিসিআইয়ের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

Total
13
Share