টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবার ‘ডিআরএস’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবার 'ডিআরএস'

পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথমবারের মত যুক্ত হতে যাচ্ছে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস)। সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপে এ মাসেই দেখা মিলবে ডিআরএসের।

১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হবে বিশ্বকাপ। প্রতিটি দল প্রতি ইনিংসে ২টি করে রিভিউ নেওয়ার সুযোগ পাবে। আইসিসির কার্যনির্বাহী পরিষদ জানায়, গত বছরের জুন থেকে একটি করে রিভিউ যোগ করা হয়। কোভিড-১৯ এর প্রভাবের জন্য অনেক জায়গায় অপরিপক্ক আম্পায়ার রাখা হয়। এ চিন্তাভাবনা থেকে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ২টি ও টেস্টে ৩টি করে রিভিউ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

দেরিতে ম্যাচ শুরু হওয়া ও বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচের ক্ষেত্রে কম ওভারের পরিবর্তে ওভার বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলোতে ডাক ওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে সর্বনিম্ন ৫ ওভার থাকবে, যা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সাধারণ নিয়মের মত থাকবে।

তবে সেমিফাইনাল থেকে তা ১০ ওভার করে হবে। গত বছর নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ভারত বনাম ইংল্যান্ডের ম্যাচ বৃষ্টিতে নস্যাৎ হয়ে যায়। রিজার্ভ ডে না থাকার কারণে ইংল্যান্ড বাদ পড়ে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পুরুষদের ক্রিকেটে এর আগের সংস্করণগুলোতে ডিআরএস ছিল না। সর্বশেষ ২০১৬ বিশ্বকাপেও দেখা মেলেনি। ২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজে নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবারের ডিআরএস অন্তর্ভুক্ত করা হয়। সেবার অবশ্য একটি করে রিভিউ নেওয়া যেত। ২০২০ সালে অস্ট্রেলিয়াতেও একটি করে রিভিউ বিদ্যমান ছিল। কোভিড ১৯- এর প্রভাবের আগে সেটি ছিল আইসিসির সবচেয়ে বড় ইভেন্ট।

অন ফিল্ড আম্পায়ারের ভুলত্রুটি কমানোর জন্য ডিআরএসের উৎপত্তি। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি, ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ এবং নারীদের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে ডিআরএস ব্যবহৃত হয়েছিল।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও বিশ্রামে থাকছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ

Read Next

সুপারস্টার সাকিবের প্রশংসায় মুখরিত টুইটার

Total
6
Share