প্রথমবার ভোটে জিতে বিসিবিতে পাপন, বলছেন ভোটাররা আস্থা রেখেছেন

প্রথমবার ভোটে জিতে বিসিবিতে পাপন, বলছেন ভোটাররা আস্থা রেখেছেন

আজ (৬ অক্টোবর) সম্পন্ন হল বহুল আলোচিত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নির্বাচন। এর আগের দুই মেয়াদে নাজমুল হাসান পাপন নির্বাচিত হয়েছেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়। তবে এবার কোনো প্যানেল না থাকায় পরিচালক পদে নির্বাচন করেই জিততে হয়েছে পাপনকে, তার সভাপতি হওয়াটাও অনেকটা নিশ্চিত। সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়ে তিনি জানান ভোটাররা আস্থার প্রতিফলন ঘটিয়েছেন।

ক্যাটাগরি-২ (ক্লাব) থেকে সর্বোচ্চ ৫৩ ভোট পেয়েছেন আবাহনী ক্লাবের নাজমুল হাসান পাপন। সমান ৫৩ ভোট পেয়েছেন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের গাজী গোলাম মর্তুজাও। মোট ১৭ (দুইজন নাম প্রত্যার করলেও ব্যালটে নাম ছিল) প্রার্থীর মধ্যে ১২ জন পরিচালক পদে জিতেছেন।

ভোট গণনা শেষে মিরপুরে সন্ধ্যায় বিসিবি কার্যালয়ে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলেন পাপন। তৃতীয় মেয়াদে সভাপতি হতে যাওয়া পাপন জানান প্রথমবার নির্বাচন জিতে বোর্ডে এসে তিনি উচ্ছ্বসিত, এর আগে দেখেননি নির্বাচন কি জিনিস।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কাকে বলে? ….আসলে আমি ক্রিকেট বোর্ডে এর আগে দেখি নাই। গত দুবার নির্বাচন হয়নি, আজকে দেখলাম মোটামুটি নির্বাচন প্রক্রিয়া সুষ্ঠ ছিল এটা তে কোন সন্দেহ নেই, শান্তিপূর্ণ ছিল। মানুষ ভোট দিয়েছে এটাই হল বড় কথা।’

তবে আরও বেশি প্রার্থী থাকলে খুশি হতেন বলেও উল্লেখ করেন, ‘আরো খুশি হতাম যদি আরো অনেক অংশগ্রহণ থাকতো, আরো অনেক ভাল ভাল ক্রিকেটের সঙ্গে সম্পৃক্ত লোক আছে। যাদেরকে আমি ব্যাক্তিগত ভাবে মনে করি তারাও ক্রিকেটে অনেক অবদান রাখতে পারত।’

আরও পড়ুনঃ

‘৩’ ভোট পাওয়া ফাহিম বলছেন ‘বিব্রত নই’

সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে নির্বাচিত নাজমুল হাসান পাপন

বড় ব্যবধানে নির্বাচন হেরে যা বললেন পাইলট

‘এরকম অনেকেই আসে নাই (নির্বাচনে) আসতে পারত কিন্তু আসে নাই। এটা আমার মনে হয়। হতে পারে এটা প্রথম নির্বাচন বলে তারা একটু সন্দিহান ছিল কিন্তু সামনের নির্বাচনে তারা সকলেই অংশগ্রহণ করবে, আরো বেশি বেশি অংশগ্রহণ করবে এটাই আমি চাই।’

ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়ে পাপন বলছেন পুরনোদের উপর আস্থা রেখেছে কাউন্সিলররা, ‘এটা অত্যন্ত ভালো অভিজ্ঞতা কারণ সত্যি কথা বলতে যে পরিমাণ ভোট ছিল, কিছু আন্দাজ করা যায়, ৩০ ভাগ আন্দাজ করা যায় যে কে কোথায় দিবে বাকি ৭০ ভাগ ভোটারের ওপর। এবারের ভোটে একটা জিনিস মনে হয়েছে যে ৯৯ ভাগ ভোটারের আস্থা আছে যারা পাশ করেছে তাদের ওপর। এর চেয়ে বড় কথা পুরাতন যারা তারা সকলেই পাশ করেছে।’

পুরনোদের সাথে নতুন বেশ কয়েকজন এবার পরিচালক নির্বাচিত হয়েছেন। সভাপতি হলে নতুনদের নিয়ে কাজ করতে সমস্যা হবেনা বলে মনে করেন নাজমুল হাসান পাপন।

তার মতে, ‘আগে যে বোর্ড ছিল সেখানে কাউকে নিয়ে কাজ করতে আমার সমস্যা হয় নাই। এবারও যারা আসবে তাদের নিয়ে কাজ করতে সমস্যা হওয়ার কোন কারণ নেই। প্যানেল না দেয়ার কারণটাই হল এটা। প্যানেল যদি থাকতো তাহলে বাইরে থেকে কেউ আসলে বলতাম যে তার সঙ্গে সমস্যা হবে কিনা। এখন তো সেটা না, যে জিতবে সেটাই প্যানেল।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

‘৩’ ভোট পাওয়া ফাহিম বলছেন ‘বিব্রত নই’

Read Next

আবারও ব্যর্থ তামিম, তবুও জিতল দল

Total
21
Share