রাত পোহালেই বিসিবি নির্বাচন, সম্পন্ন সব আয়োজন

রাত পোহালেই বিসিবি নির্বাচন, সম্পন্ন সব আয়োজন

আসন্ন বিসিবি নির্বাচনের বাকি আর মাত্র কয়েক ঘন্টা। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি দেখভাল করতে আজ (৫ অক্টোবর) মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে আসেন নির্বাচন কমিশনের প্রিজাইডিং এসএম কবিরুল হাসান। পরে সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপে জানিয়েছেন নির্বাচনের সার্বিক অবস্থা।

আগামীকাল (৬ অক্টোবর) সকাল ১০ টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হবে বিসিবি কার্যালয়ে। যেখানে সশরীরে ভোট দেওয়ার পাশাপাশি করোনা প্রভাবে ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে ভোট দেওয়ার সুযোগ থাকছে।

ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালটের ভোট ইতোমধ্যে এসে পোঁছালেও নির্বাচন কমিশন এখনই তা খুলছে না। সশরীরে এসে কাউন্সিলরদের ভোট দেওয়া শেষ হলেই ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালট খুলবে নির্বাচন কমিশন।

প্রিজাইডিং অফিসার কবিরুল বলেন, ‘আমি এসেছি প্রস্তুতিটা দেখার জন্য, ব্যালট প্রস্তুত হল কিনা। আপনারা জানেন ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালট আমরা ইতোমধ্যে পাঠিয়ে দিয়েছি। এটা আমরা আগামীকাল ৫ টার মধ্যে চেক করবো। সে হিসেবে সকল প্রস্তুতিই সম্পন্ন। আমরা আগামীকাল ৫ টায় ওপেন করবো, এখনো করিনি। আমাদের ভোট প্রক্রিয়া যখন সম্পন্ন হবে তখন এগুলো ওপেন করবো।’

বেসরকারিভাবে আগামীকাল ও সরকারিভাবে পরদিন ফলাফল জানা যাবে। ১৭১ জন ভোটারের মধ্যে ভোট দেওয়ার সুযোগ মিলছে ১২৭ জনের। বাকিদের ক্ষেত্রে নিজ নিজ ক্যাটাগরিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন পরিচালকরা। ১২৭ জন ভোটারের মধ্যে ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালটের সুবিধা নিচ্ছেন ৫৭ জন।

কবিরুল যোগ করেন, ‘বেসরকারিভাবে আগামীকালই এটা ঘোষণা করা হবে, আর সরকারিভাবে তার পরের দিন পাবেন আপনারা। সবমিলিয়ে ১২৭ জন ভোট দিবে। মোট ভোটার ১৭৩ জন, কিন্তু বাকিরা ভোট দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না কারণ ওখানে নির্বাচিত হয়ে গেছে। ৫৭ জন ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালট, বাকিরা সশরীরে এসে ভোট দিবে।’

উল্লেখ্য, ৩ ক্যাটাগরিতে মোট ৩২ জন প্রার্থী মনোয়নপত্র কিনলেও ক্লাব ক্যাটাগরির শওকত আজিজ রাসেল নাম প্রত্যাহার করে নেন। ফলে ৩১ জনকে নিয়েই নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু করে নির্বাচন কমিশন। পরে সময়সীমা শেষ হওয়া স্বত্বেও নিজের নাম সরিয়ে নেন জেলা ও বিভাগ ক্যাটাগরির খালিদ হোসেন (মাদারীপুর, পরিচালক প্রার্থী ঢাকা বিভাগ)।

যদিও নির্বাচনে খালিদের আনুষ্ঠানিক অংশগ্রহণ ঠিকই থাকছে। তার নামে থাকবে নির্দিষ্ট ব্যালটও।

তিন ক্যাটাগরিতে ২৩ জন ও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ থেকে ২ জন, সবমিলিয়ে মোট ২৫ জন পরিচালক নির্বাচিত হয়। যেখানে জালাল ইউনুস ও আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ থেকে এবারও নির্বাচিত হচ্ছেন অনেকটা নিশ্চিত।

বাকি ২৩ জনের মধ্যেও ৭ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। তারা হচ্ছেন (আঞ্চলিক ও জেলা ক্রিকেট সংস্থার প্রতিনিধি ক্যাটাগরি-১) আ জ ম নাসির উদ্দিন ও আকরাম খান (চট্টগ্রাম বিভাগ), কাজী ইনাম আহমেদ ও শেখ সোহেল (খুলনা বিভাগ), শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল (সিলেট বিভাগ), এডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম (রংপুর বিভাগ) ও আলমগীর খান আলো (বরিশাল বিভাগ)।

ক্যাটাগরি-১ এ নির্বাচন হচ্ছে কেবল রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগে। রাজশাহীতে লড়বেন সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলট (রাজশাহী বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা) ও সাইফুল আলম স্বপন চৌধুরী (পাবনা জেলা ক্রীড়া সংস্থা)।  ঢাকা বিভাগের তানভীর আহমেদ টিটু (নারায়নগঞ্জ) ও খালিদ হোসেন (মাদারীপুর) নাম সরিয়ে নেন। ফলে এই ক্যাটাগরিতে ২ পদের বিপরীতে প্রার্থীও টিকে রইলো মাত্র দুইজন, তারা হলেন এ.এম নাইমুর রহমান দুর্জয় এমপি (মানিকগঞ্জ), সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু (কিশোরগঞ্জ)।

ক্যাটাগরি-২ (ক্লাব) এ ১২ পরিচালক পদের জন্য নির্বাচন করছেন ১৬ জন। তারা হলেন নাজমুল হাসান পাপন এমপি (আবাহনী লিমিটেড), গাজী গোলাম মুর্তজা (গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স), নজিব আহমেদ (শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব লিমিটেড), মাহবুব উল আনাম ও মাসুদুজ্জামান (মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড), ওবেদ রশীদ নিজাম (শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব), সাইফুল ইসলাম ভুইয়া (ওল্ড ডিওএইচএস স্পোর্টস ক্লাব), সালাহউদ্দিন চৌধুরী (কাকরাইল বয়েজ ক্লাব), ইসমাইল হায়দার মল্লিক (শেখ জামাল ক্রিকেটার্স), এনায়েত হোসেন (আজাদ স্পোর্টিং ক্লাব), ফাহিম সিনহা (সূর্য তরুণ ক্লাব), ইফতেখার রহমান (ফেয়ার ফাইটার্স স্পোর্টিং ক্লাব), মনজুর কাদের (ঢাকা এসেটস), আব্দুর রহমান (মিরপুর বয়েজ ক্রিকেট ক্লাব), রফিকুল ইসলাম (গাজী টায়ার্স ক্রিকেট একাডেমী) ও মনজুর আল্পম মনজু (আসিফ শিফা ক্রিকেট একাডেমী)।

এবারের নির্বাচনে নিশ্চিতভাবে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে পরিচালক ক্যাটাগরি-৩ (অন্যান্য প্রতিনিধি)। সাবেক ক্রিকেটার, অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজনের বিপরীতে লড়ার জন্য মনোনয়ন কিনেছেন বিশিষ্ট কোচ ও ক্রীড়া বিশ্লেষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম। এই ক্যাটাগরিতে এই ১ পদেই নির্বাচন হবে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ছোট ভাইয়ের ইনজুরিতে কপাল খুললো টম কারেনের

Read Next

যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেট লিগ খেলতে পাকিস্তান ছাড়লেন উমর আকমল

Total
1
Share