চট্টগ্রামে এইচপির বিপক্ষে নিয়ন্ত্রণ নিল মুমিনুল হকের ‘এ’ দল

চট্টগ্রামে বল হাতে মুরাদের দিনে মুমিনুল, শান্ত'র জোড়া ফিফটি

প্রথম ইনিংসে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে খালি হাতে ফিরেছেন ইয়াসির আলি রাব্বি। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ফিফটি তুলে এগোচ্ছেন সেঞ্চুরির দিকে। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেওয়া মোহাম্মদ মিঠুনও ফিফটির দ্বারপ্রান্তে। দুজনের শতরানের জুটিতে হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের বিপক্ষে দ্বিতীয় চারদিনের ম্যাচের তৃতীয় দিন শেষে ২৫২ রানে এগিয়ে বাংলাদেশ ‘এ’ দল।

বাংলাদেশ ‘এ’ দলের প্রথম ইনিংসে ২৩১ রানের জবাবে এইচপি নিজেদের প্রথম ইনিংসে থামে ২৩৭ রানে। ৬ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ ‘এ’ দল দিন শেষ করেছে ৪ উইকেটে ২৫৮ রান তুলে।

ইয়াসির ৬৫ ও মিঠুন ৪৬ রানে অপরাজিত আছেন। সাদমান ইসলাম ও নাজমুল হোসেনের ব্যাটে যথাক্রমে ৪৯ ও ৪৭ রান। অধিনায়ক মুমিনুল হক করেছেন ৩০ রান।

৮ উইকেটে ২৩৭ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছিল এইচপি। ৫ রানে অপরাজিত ছিল রেজাউর রহমান রেজা। আজ (২৪ সেপ্টেম্বর) কোনো রান যোগ না করেই ফিরেছেন এইচপির শেষ দুই ব্যাটসম্যান। হাসান মুরাদ ও তানভীর ইসলামকে খালি হাতে ফিরিয়ে ইনিংসে নিজের ৫ম উইকেট পূর্ণ করেন বাঁহাতি স্পিনার রাকিবুল হাসান।

৬ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে ‘এ’ দল। দুই ওপেনার সাইফ হাসান ও সাদমান ইসলামের ৩১ রানের জুটি। সাইফকে (১৮) বোল্ড করে জুটি ভাঙেন পেসার মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ।

তিন নম্বরে নামা নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে সাদমানের ৭৫ রানের জুটি। স্পিনার তানভীর ইসলামের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে ফিরতে হয় শান্তকে। ৮০ বলে ৪৭ রানের ইনিংস খেলে ফেরার পথে অসন্তোষ প্রকাশ করেন আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের।

শান্তর বিদায়ের পর এশিক্ষণ টিকেননি সাদমানও, ফিরতে হয় ফিফটির আক্ষেপ নিয়ে। তানভীরকে ফিরতি ক্যাচ দেন ১২১ বলে ৪৯ রান করে। অধিনায়ক মুমিনুল হক ৩০ রানে ফেরেন রেজাউর রহমান রাজার বলে।

১৫৫ রানে ৪ উইকেট হারানো ‘এ’ দলকে দিনের বাকি পথ অনায়েসেই পার করান মোহাম্মদ মিঠুন ও ইয়াসির আলি রাব্বি। দুজনে অবিচ্ছেদ্য আছে ১০৩ রানের জুটিতে। ১১৮ বলে ৬ চারে ৪৬ রানে অপরাজিত আছেন মিঠুন। অন্যদিকে ইয়াসির অবশ্য খেলেছেন অনেকটা ওয়ানডে মেজাজে, ৫৩ বলে ফিফটি তুলে অপরাজিত ৭৪ বলে ৬ চার ৩ ছক্কায় ৬৫ রানে। ৪ উইকেটে ২৫৮ ‘এ’ দলের স্কোরবোর্ডে, লিড ২৫২ রানের।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (তৃতীয় দিন শেষে)

এইচপি প্রথম ইনিংসঃ (দ্বিতীয় দিন ২৩৭/৮) ২৩৭/১০ (৮২ ওভার) ইমন ৪, তামিম ১১, জয় ৭৩, দিপু ০, হৃদয় ৪৭, আকবর ৫১, আনিসুল ৩৫, সুমন ৩, রেজাউর ৫* মুরাদ ০, তানভীর ০; রাহি ৯-৪-১৬-১, খালেদ ১৩-২-৪৬-২, রাকিবুল ২২-৭-৬০-৫, শহিদুল ১০-৪-২৭-১, নাইম ২৭-৮-৭৬-১, মুমিনুল ১-০-৫-০

বাংলাদেশ ‘এ’ দল প্রথম ইনিংসে ২৩১ ও দ্বিতীয় ইনিংসঃ ২৫৮/৪ (৭৯ ওভার) সাদমান ৪৯, সাইফ ১৮, শান্ত ৪৭, মুমিনুল ৩০, মিঠুন ৪৬*, ইয়াসির ৬৫*; সুমন ১১-০-৪৭-০, মুরাদ ২২-৪-৭৯-০, রেজাউর ১২-০-৩৯-১, মুগ্ধ ১১-৪-২০-১, জয় ৬-১-২২-০, তানভীর ১৭-২-৪৮-২।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নটরাজনের বিকল্প হিসেবে হায়দ্রাবাদ দলে উমরান মালিক

Read Next

প্রান্তিক নওরোজ ও আইচ মোল্লার ব্যাটে চড়ে বাংলাদেশ যুবাদের লিড

Total
1
Share