উইকেটেই হতাশা, উইকেটেই আশার আলো দেখা

উইকেটেই হতাশা, উইকেটেই আশার আলো দেখা

টানা জয়ের মধ্যে থেকেও বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে মন্থর উইকেটে খেলায় টাইগারদের প্রস্তুতি নিয়ে আছে প্রশ্ন। বিশেষ করে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে। যদিও বিশ্বকাপে স্পোর্টিং উইকেটে খেলা হবে বলে টানা ব্যর্থতায়ও আশার আলো দেখছে অনেকেই। প্রথম বার বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ডাক পাওয়া শামীম হোসেনও সেখান থেকেই পাচ্ছেন অনুপ্রেরণা।

অন্য অনেকের মত অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজে ব্যাট হাতে ব্যর্থ জিম্বাবুয়েতে দারুণ অভিষেক হওয়া শামীম। সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচে ব্যাট হাতে নেমে ফিরেছেন দুই অঙ্ক ছোঁয়ার আগেই। সাকূল্যে রান ১২!

তবে মিরপুরের পিচে ব্যাটসম্যানদের যে কঠিন চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তা অস্বীকার করার উপায় নেই। সেদিক থেকেই হতাশ না হওয়ার বার্তা দিয়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান সহ টিম ম্যানেজমেন্ট। কারণ সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানে ব্যাটিং বান্ধব উইকেটে লিটন দাস, মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকাররা ঘুরে দাঁড়াবে বলে আশার বাণী শোনা যাচ্ছে। একই কথা শোনালেন শামীমও।

তরুণ এই ব্যাটসম্যান আজ (২০ সেপ্টেম্বর) মিরপুরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘উইকেট কিন্তু অনেক ম্যাটার করে। আপনারা দেখেছেন এখানে এবারে উইকেটটা একটু ভিন্ন ছিল। বিশ্বকাপের উইকেটটা কিন্তু ভালো হওয়াটাই স্বাভাবিক। আমাদের সিনিয়র ক্রিকেটাররা আছেন, আমি অনেক আশাবাদী ওনারা ওখানে অনেক ভালো করবেন‌। যদি দেখেন আমাদের মেইন ব্যাটসম্যানরা কিন্তু সফল হতে পারেননি এখানে। তো ওখানে সবাই ভাল করবে ইন শা আল্লাহ।’

বিশ্বকাপে নিজের লক্ষ্য অবশ্য এখনো ঠিক করেননি চাঁদপুরের এই ক্রিকেটার, ‘বিশ্বকাপের লক্ষ্য বলতে যেহেতু এবার আমি প্রথমবার সুযোগ পেয়েছি এখনো সেভাবে তেমন কিছু চিন্তা করিনি। আমি টিমের সাথে যেতে পারছি এটাই আমার কাছে বড় কিছু। জুনিয়র হিসেবে দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

দলে সাকিব থাকায় বিদেশীদের উদাহরণ দিতে হয়না হেরাথকে

Read Next

বিশ্বকাপে বিশ্বমানের খেলোয়াড়দের চ্যালেঞ্জ মানছেন শামীম

Total
21
Share