কক্সের ব্যাটে টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টের চ্যাম্পিয়ন কেন্ট

কক্সের ব্যাটে টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টের চ্যাম্পিয়ন কেন্ট

পর্দা নামল ২০২১ মৌসুমের ইংল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি ব্লাস্ট আসরের। জমকালো ফাইনালে সমারসেটকে ২৫ রানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন কেন্ট স্পিটফায়ার। অপরাজিত ফিফটিতে ফাইনাল সেরা কেন্টের জর্ডান কক্স।

বার্মিংহামের এজবাস্টনে টস জিতে কেন্টকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় সমারসেট। দুই ওপেনারের ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পায় কেন্ট। উদ্বোধনী জুটিতেই স্কোরবোর্ডে সংগ্রহ ৪৪ রান। তবে এই জুটি ভাঙে ১৮ রান করা ড্যানিয়েল বেলের বিদায়ে। পরের বলেই ভ্যান ডার মেরওয়ের ফের আঘাত। শূন্য রানে ফিরতে হয় জো ডেনলিকে।

নিজের পরের ওভারে ভ্যান ডার মেরওয়ে তুলে নেন স্যাম বিলিংসের উইকেটও (২)। পরপর তিন উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়া কেন্ট স্বস্তি পায় ওপেনার জ্যাক ক্রাউলি ও জ্যাক লিনিংয়ের ব্যাটে। অর্ধশত রানের কাছে থাকলেও পূর্ণ হয়নি জ্যাক ক্রাউলির। আউট হয়ে ফেরার আগে তাঁর ব্যাট থেকে আসে ৪১ রানের ইনিংস। জ্যাক লিনিং করেন ২৭ রান।

রান আউটে কাটা পড়েন ড্যারেন স্টিভেনস (১২)। কিন্তু উইকেটের এক প্রান্ত আগলে রেখে দলের সংগ্রহ বাড়িয়ে নিয়ে যান জর্ডান কক্স। ঝড়ো ব্যাটিং করে তুলে নেন ফিফটি। শেষপর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ৫৮ রানে। ২৮ বলে তাঁর এই ইনিংস সাজানো ৩ চার ও ছয়ে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৭ রান সংগ্রহ করে কেন্ট।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই জো ডেনলির শিকার হন ওপেনার টম ব্যান্টন। প্যাভিলিয়নে ফেরেন খালি হাতে। পরের ওভারে আবারও কেন্টের বোলারদের আঘাত সমারসেটের ব্যাটিংয়ে। লুইস গোল্ডসওর্থিকে ৩ রানের বেশি করতে দেননি ফ্রেড ক্লাসেন।

এরপর ৫৮ রানের জুটি আসে উইল স্মেড ও টম অ্যাবেলের ব্যাট থেকে। তবে এই জুটি ভাঙে ২৬ রান করা অ্যাবেলের বিদায়ে। উইল স্মেড প্যাভিলিয়নে ফেরেন ৪৩ রানের ইনিংস খেলে। শুরু হয় উইকেটের মিছিল। দুই অঙ্কের ঘরেই পৌঁছাতে পারেনি ৪ ব্যাটসম্যান। শেষদিকে ক্রেইগ ওভারটন ১৩ ও জশ ডেভি ১৬ রানে অপরাজিত থাকলেও দলের জয়ের জন্য কাজে আসেনি।

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে সমারসেট স্কোরবোর্ডে জমা করে ১৪২ রান। ফলে ২৫ রানের জয়ে টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টের শিরোপা ঘরে তুলে কেন্ট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

কেন্টঃ ১৬৭/৭ (২০ ওভার) ক্রাউলি ৪১, ড্যানিয়েল ১৮, লিনিং ২৭, কক্স ৫৮*, স্টিভেনস ১২; ভ্যান ডার ৩/১৯, গোল্ডসওর্থি ১/২৭, ডেভি ১/৪১

সমারসেটঃ ১৪২/৯ (২০ ওভার) উইল ৪৩, অ্যাবেল ২৬, গ্রেগরি ৬, ওভারটন ১৩, ডেভি ১৬*; ডেনলি ৩/৩১, কাইস ২/১৯, ফ্রেড ১/১৭, ম্যাট ১/১৭, স্টিভেনস ১/৩০, গ্র‍্যান্ট ১/২৮

ফলাফলঃ কেন্ট স্পিটফায়ার ২৫ রানে জয়ী

ফাইনাল সেরাঃ জর্ডান কক্স (কেন্ট)

টুর্নামেন্ট সেরাঃ সামিত প্যাটেল (নটিংহ্যাম্পশায়ার).

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

নীরবেই নিষেধাজ্ঞামুক্ত ক্লাব, কপাল পুড়লো দুই ক্রিকেটারের

Read Next

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার চেয়ারম্যান নিয়োগে সমালোচনা

Total
1
Share