ঘরের দলকে পাত্তা না দিয়ে প্রোটিয়াদের বড় জয়, সঙ্গে সিরিজ জয়

ঘরের দলকে পাত্তা না দিয়ে প্রোটিয়াদের বড় জয়, সঙ্গে সিরিজ জয়

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে প্রোটিয়ারা উড়িয়ে দিল স্বাগতিক লঙ্কানকদের। ব্যাট কিংবা বল কোন বিভাগেই পাত্তা পায়নি শ্রীলঙ্কা। ৯ উইকেটের বড় জয় তুলে সিরিজ জয় নিশ্চিত করল প্রোটিয়ারা। শ্রীলঙ্কার করা ১০৩ রান টপকাতে নেমে ওপেনার কুইন্টন ডি কক তুলে নেন অর্ধশত রান। তবে ৩ উইকেট শিকার করা তাব্রাইজ শামসি পেলেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কার।

কলম্বোতে টস জিতে ব্যাটিং করতে নামা শ্রীলঙ্কার ইনিংসের শুরুটাই ভালো হয়নি। দ্বিতীয় ওভারে আনরিখ নরকিয়ার বলে ক্যাচ তুলে ফেরেন ৬ রান করা চান্দিমাল। এরপর ভানুকা রাজাপাকশেকে নিয়ে জুটি গড়ে এগোতে থাকেন কুশল পেরেরা। কিন্তু এই জুটির স্থায়িত্বও বেশি হয়নি। ২৮ রানের জুটি ভাঙে ঝড়ো শুরু করা রাজাপাকশের বিদায়ে। ৩ চার ও ১ ছয়ের সাহায্যে ১৩ বলে ২০ রানের ইনিংস খেলেন রাজাপাকশে।

এরপর উইকেটে এসে দাঁড়াতেই পারেননি ধনঞ্জয়া ডি সিলভা (৪), অধিনায়ক দাসুন শানাকা (১০)। পরপর দুই ওভারে এ দুই ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান তাব্রাইজ শামসি। ওপেনার কুশল পেরেরা আউট হন লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে। ফেরার আগে ২৫ বলে ৩০ রান আসে তাঁর ব্যাট থেকে।

থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ চারিথ আসালাঙ্কা। এইডেন মার্করামের তৃতীয় শিকার হয়ে ফেরার আগে ২০ বলে বাউন্ডারিবিহীন তাঁর ১৪ রানের ইনিংস। এরপর আর কোন ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেনি। ফলে নির্ধারিত ওভারের আগেই ১৮.১ ওভারে সবক’টি উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কা স্কোরবোর্ডে জমা করে কেবল ১০৩ রান।

বল হাতে প্রোটিয়াদের হয়ে তাব্রাইজ শামসি ও এইডেন মার্করাম ৩টি করে উইকেট দখলে নেন। এছাড়া মহারাজ, নরকিয়ার ঝুলিতে যায় ১টি করে উইকেট। ও ফোরটান শিকার করেন দুই উইকেট।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। শুরু থেকেই দারুণ সব স্ট্রোক্স খেলতে থাকেন ওপেনার কুইন্টন ডি কক। তবে ৬২ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে রেজা হেনড্রিকসের বিদায়ে। সিলভার শিকার হয়ে ফেরার আগে ১৮ রান আসে হেনড্রিকসের ব্যাট থেকে।

এরপর এইডেন মার্করামকে সঙ্গে নিয়ে ডি কক জয়ের বন্দরের দিকে এগিয়ে যান। মাঝে অর্ধশত রান পূর্ণ করেন কুইন্টন ডি কক। বল হাতে আর কোন ব্রেকথ্রু আনতে পারেনি লঙ্কান বোলাররা। ১৪.১ ওভারেই জয় নিশ্চিত হয় দক্ষিণ আফ্রিকার। শেষপর্যন্ত ওপেনার ডি কক অপরাজিত ৫৮ রানে, এইডেন মার্করাম ২১ রানে। ৩৫ বল বাকি থাকতেই ৯ উইকেটের জয় নিয়ে সিরিজে ২-০’তে এগিয়ে যায় সফরকারী দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

শ্রীলঙ্কাঃ ১০৩/১০ (১৮.১ ওভার) পেরেরা ৩০, চান্দিমাল ৫, রাজাপাকশে ২০, ধনাঞ্জয়া ৪, শানাকা ১০, আসালাঙ্কা ১৪, হাসারাঙ্গা ৪, চামিকা ৮, চামিরা ১, থিকশানা ০, জয়াবিক্রমা ০*; ফোরটান ৪-০-১২-২, নরকিয়া ২-০-৮-১, মার্করাম ৪-১-২১-৩, মহারাজ ২.১-০-১০-১, শামসি ৪-০-২০-৩

দক্ষিণ আফ্রিকাঃ ১০৫/১ (১৪.১ ওভার) ডি কক ৫৮*, হেনড্রিকস ১৮, মার্করাম ২১*; হাসারাঙ্গা ৪-০-২২-১

ফলাফলঃ দক্ষিণ আফ্রিকা ৯ উইকেটে জয়ী

সিরিজঃ ৩ ম্যাচের সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা

ম্যাচ সেরাঃ তাব্রাইজ শামসি (দক্ষিণ আফ্রিকা)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আবেগী বার্তায় ক্রিকেটকে বিদায় বললেন ব্রেন্ডন টেইলর

Read Next

আইপিএল প্লে অফে পাওয়া যাবে না ইংলিশ ক্রিকেটারদের

Total
10
Share