বিপ্লবকে নিয়ে যে ব্যাখ্যা দিলেন প্রধান নির্বাচক

আমিনুল ইসলাম বিপ্লব

আধুনিক ক্রিকেটে একজন লেগ স্পিনার হতে পারে তুরুপের তাস। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টির মত সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে লেগ স্পিনারের একটা স্পেলে এলোমেলো হয়ে যেতে পারে প্রতিপক্ষ। তবে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল স্কোয়াডে নেই কোনো লেগ স্পিনার। আমিনুল ইসলামকে রাখা হয়েছে স্ট্যান্ড বাই হিসেবে, দলের সাথে যাচ্ছেন অনুশীলনে সহায়ক হতে।

আজ (৯ সেপ্টেম্বর) আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করেছে নির্বাচকরা। যেখানে ১৫ সদস্যের স্কোয়াডে নেই আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। যদিও স্ট্যান্ড বাই হয়ে যাচ্ছেন দলে সাথে। তাকে মূল স্কোয়াডে জায়গা না দেওয়ার ব্যাখ্যা হিসেবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলছেন তারা যে পরিকল্পনায় এগিয়েছেন সেখানে ছিলনা বিপ্লব।

অথচ বিশ্বকাপের এখনো পর্যন্ত ঘোষিত প্রায় সব দলেই আছে অন্তত একজন লেগ স্পিনার। অস্ট্রেলিয়ার স্কোয়াডে অ্যাডাম জাম্পার সাথে মিচেল সুইপসন, নিউজিল্যান্ড স্কোয়াডে ইশ সোধি, পাকিস্তানে শাদাব খান, ভারত স্কোয়াডে আছেন রাহুল চাহার।

নিজেদের দলে লেগ স্পিনার না রাখলেও প্রতিপক্ষের লেগ স্পিন খেলতে কাজে দিবে স্ট্যান্ড বাই হিসেবে টাইগার স্কোয়াডে থাকা বিল্পব। আজ দল ঘোষণার পর এমনটাই বলছেন প্রধান নির্বাচক। এ ছাড়া দীর্ঘদিন না খেলাও মূল স্কোয়াডে বিপ্লবকে না রাখার ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলেছে।

মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘মাঝখানে ও (বিপ্লব) কিন্তু কিছু অসুস্থতার মধ্যে ছিল। ওখান থেকে ওভারকাম করেছে, তারপরও আমরা তাকে নিয়ে যাচ্ছি সাথে প্র্যাকটিসের জন্য। দুর্ভাগ্যবশত আমরা যে প্ল্যানে বিশ্বকাপ স্কোয়াড করেছি সেখানে ওকে বিবেচনায় রাখা যায়নি।’

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি অভিষেকের পর বিপ্লব সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছেন ২০২০ সালের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই। লম্বা বিরতির পর ফিরেছেন চলতি বছর জিম্বাবুয়ে সফরেই তবে বাবার মৃত্যুতে কোনো ম্যাচ না খেলেই ফেরেন দেশে। পরে বায়ো বাবল জটিলতায় ছিলেন না অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে। ঞ্চলমান নিউজিল্যান্ড সিরিজের স্কোয়াডে থাকলেও খেলেননি প্রথম চার ম্যাচের একটিতেও।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

তামিমকে মিস করবে বাংলাদেশ, বিশ্বকাপের পরই ফিরবেন আশাবাদী নান্নু

Read Next

মেয়েদেরকে খেলতে না দিলে আফগানদের সঙ্গে টেস্ট খেলবে না অস্ট্রেলিয়া

Total
15
Share